২০ নম্বর পেলেই ইবিতে কোটায় ভর্তির সুযোগ


Published: 2019-12-18 21:26:10 BdST, Updated: 2020-04-06 16:35:50 BdST

ইবি লাইভ: ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষের ২য় ধাপে কোটায় ভর্তির শর্ত শিথিল করেছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। ভর্তি পরীক্ষায় কোটায় ৮০ নম্বরের মধ্যে নূন্যতম ২০ নম্বর পেলে ভর্তির সুযোগ পাবে কোটায় ভর্তিচ্ছুরা।

বুধবার বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে শর্ত শিথিলের এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, কোটায় ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীরা ২০ নম্বর পেলেই ভর্তির জন্য আবেদন করতে পারবেন। এছাড়াও মোট আসনের পাঁচ শতাংশ (১১৫ জন) মুক্তিযোদ্ধা কোটার জন্য বরাদ্দ। প্রতিবন্ধী কোটায় ২০ জন, উপজাতি কোটায় ১৫ জন, হরিজন সম্প্রদায় ৫ জন, খেলোয়াড় কোটায় ১০ জন। এসব কোটায় সর্বমোট ভর্তি হবে ১৬৫ জন শিক্ষার্থী।

রেজিস্ট্রার অফিস সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার ভিসির নেতৃত্বে কেন্দ্রীয় ভর্তি পরীক্ষা কমিটির সভায় ২য় ধাপে শর্ত শিথিলের এ সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে। প্রথম ধাপে কোটায় ভর্তির ক্ষেত্রে মুক্তিযোদ্ধাসহ অন্যান্য কোটায় ৩২ ও পোষ্য ও খেলোয়াড় কোটায় ২৬ নম্বর নির্ধারিত ছিল।

এবিষয়ে আইন বিভাগের শিক্ষার্থী নুরুন্নবী সবুজ ক্যাম্পাসলাইভকে বলেন, ‘মুক্তিযুদ্ধ কোটা বা প্রতিবন্ধী কোটায় শর্ত শিথিল গ্রহণযোগ্য। তবে পোষ্য কোটায় মাত্র ২০ নম্বরে ভর্তি কোনোভাবেই যোগ্যতার মাপকাঠি হতে পারে না।’

এবিষয়ে ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার এস এম আব্দুল লতিফ ক্যাম্পাসলাইভকে জানান, ইতোপূর্বে কোটায় ভর্তির ক্ষেত্রে প্রায় প্রতিটি কোটায় আলদা শর্ত বিদ্যমান ছিল। যেটি এক প্রকার বৈষম্য। তাই এসকল বৈষম্য দূরীকরণ ও বিভিন্ন বিভাগের শর্ত শিথিলের দাবির প্রেক্ষিতে সকল কোটায় ভর্তির ক্ষেত্রে সমতা আনা হয়েছে।


ঢাকা, ১৮ ডিসেম্বর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমআই

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।