মাকে রক্ত দেয়ার কথা বলে অনার্সের ছাত্রীকে ধর্ষণ বয়ফ্রেন্ডের!


Published: 2019-10-11 14:19:35 BdST, Updated: 2019-11-19 05:53:44 BdST

বরগুনা লাইভ : মাকে রক্ত দেয়ার কথা বলে অনার্সের এক ছাত্রীকে হোটেলে নিয়ে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে প্রতারক বয়ফ্রেন্ডের বিরুদ্ধে। এসময় ওই ছাত্রীর কিছু আপত্তিকর ছবি তুলে রাখে বয়ফ্রেন্ড। পরে ওই ছবি প্রকাশের ভয় দেখিয়ে ছাত্রীকে একাধিকবার ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। অবশেষে অতিষ্ট হয়ে এবিষয়ে মামলা করেছেন ওই ছাত্রীর মা। বৃহস্পতিবার বরগুনা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক ও জেলা জজ মো. হাফিজুর রহমান মামলাটি গ্রহন করেন। একই সঙ্গে বরগুনা থানার ওসিকে সাত দিনের মধ্যে এজাহার রুজু করার নির্দেশ দিয়েছেন। অভিযুক্ত প্রতারক বয়ফ্রেন্ড পাথরঘাটা উপজেলার বটতলা নাচনাপাড়া গ্রামের জামাল হোসেনের ছেলে জসিম উদ্দিন।

মামলা সূত্রে জানা যায়, কলেজে যাওয়া আসার পথে জসিমের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক হয় ওই ছাত্রীর। জসিম ওই ছাত্রীকে বলে তার মা (জসিমের মা) বরিশাল শেরেই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি। তাকে এখনই রক্ত দিতে হবে। বরিশাল কোথাও রক্ত পাওয়া যাচ্ছে না। তার মাকে বাঁচাতে হলে এখনই বরিশাল যেতে হবে। এমন কথা বলে জসিম ওই ছাত্রীকে নিয়ে ২ আগষ্ট বরিশাল যান। একপর্যায়ে ফ্রেশ হওয়ার কথা বলে একটি আবাসিক হোটেলে উঠে। বেলা ১২ টার সময় জসিম একাধিকবার ধর্ষণ করে ওই ছাত্রীকে। এসময় মেয়ে বাধা দিলে জসিম বলে চিৎকার করলে আমাদের সমস্যা হবে। নিরব থাকলে পরে আমি তোমাকে বিয়ে করবো। অসহায় কলেজ ছাত্রী ওই সময় জমিমের প্রস্তাব মেনে নেয়। বরিশাল হোটেল কক্ষে জসিম কৌশলে ধর্ষণের কিছু ছবি তুলে নেয় তার মুঠোফোনে। পরে ওই ছবি দেখিয়ে ব্ল্যাকমেইল করে বেশ কয়েকবার ধর্ষণ করা হয় ওই ছাত্রীকে।

ওই ছাত্রীর মা বলেন, আমার মেয়ের জীবনটা জসিম একেবারে শেষ করে দিয়েছে। জসিম আমার মেয়েকে বিয়ে না করে ৪ অক্টোবর আপত্তিকর ছবিগুলো আমার পরিবারের একাধিক মোবাইল ফোনে পাঠায়। কিছু ছবি জসিম সামাজিক যোগাযোগে ভাইরাল করে। আমার মেয়ে জসিমের কারণে এখন কলেজে যাওয়া বন্ধ করে দিয়েছে। এমন কি আমার মেয়ে ঘরে বসে দিনরাত কান্নাকাটি করে। জসিমের কারণে আমার মেয়েটি যে কোন সময় আত্মহত্যা করতে পারে। বাদী আরও বলেন, এই ব্যাপারে আমি ৮ অক্টোবর বরগুনা থানায় মামলা করতে গেলে থানা মামলা নেয়নি।

বরগুনা থানার ওসি আবির মোহাম্মদ হোসেন সাংবাদিকদের বলেন। মামলা না নেওয়ার কোন প্রশ্নই উঠেনা। বাদী থানায় মামলা করতে আসেনি। এখন আসলে এখনই মামলা নেব। তাছাড়া আদালত যে আদেশ দিবেন আমরা বাস্তবায়ন করবো।

ঢাকা, ১১ অক্টোবর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//সিএস

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।