সার্ভিস ইউনিফর্মে বাংলাদেশ কাস্টমস ও ভ্যাট


Published: 2019-12-25 21:45:15 BdST, Updated: 2020-04-09 02:29:23 BdST

লাইভ প্রতিবেদক: আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের মত বাংলাদেশ কাস্টমস ও ভ্যাট বিভাগের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা ‘সার্ভিস ইউনিফর্ম’ পরিধাণ শুরু করেছে। আনুষ্ঠানিকভাবে সার্ভিস ইউনিফর্মের উদ্বোধন করেন জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) চেয়ারম্যান মো. মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া।

রাজধানীর আইডিইবিতে শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তরের মহারিচালক ড. সহিদুল ইসলামের নেতৃত্বে ইউনিফর্ম পরিহিত কাস্টমস ও ভ্যাট বিভাগের ১১৩ জন কর্মকর্তা-কর্মচারী প্যারেডে অংশ নেন। এসময় এনবিআর চেয়ারম্যান কুজকাওয়াজ পরিদর্শন ও সালাম গ্রহণ করেন।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এনবিআর চেয়ারম্যান বলেন,বাংলাদেশ কাস্টমস ও ভ্যাট পোশাক বিধিমালার আওতায় এই পোশাক বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। এখন থেকে এই পোশাক পরিধান শুরু হলো, তবে আগামি ১ মার্চ থেকে কাস্টমস ও ভ্যাটের সব পর্যায়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের জন্য এটি কার্যকর হবে। নতুন পোশাক বানানো একটু সময় সাপেক্ষ, তাই বাড়তি সময় দেওয়া হয়েছে। শিগগির এ বিষয়ে আদেশ ইস্যু করা হবে বলে তিনি জানান।

এসময় তিনি আরও বলেন,আজ থেকে কাস্টমস ও ভ্যাট কর্মকর্তারা যে পোশাক পরিধান শুরু করলো, তার মর্যাদা আপনাদের রক্ষা করতে হবে। চোরাচালান রোধে সর্বত্র প্রহরীর মতো কাজ করতে হবে।

অনুষ্ঠানে এনবিআর সদস্য খন্দকার আমিনুর রহমান বলেন, চোরাচালান ও নিষিদ্ধ পণ্যের বিরুদ্ধে অভিযানের প্রধান ফোর্স হচ্ছে কাস্টমস। এ কাজ যদি অন্যান্য বাহিনী করে তাহলে কাস্টমস অকেজো হয়ে যাবে। অন্যান্য বাহিনী সহযোগি হিসাবে অভিযানে অংশ নিতে পারে।
কাস্টমস ও ভ্যাট বিভাগে কর্মরত সিপাহী, সাব-ইন্সপেক্টর,সহকারী রাজস্ব কর্মকর্তা, রাজস্ব কর্মকর্তা, সহকারী কমিশনার, ডেপুটি কমিশনার, যুগ্ম কমিশনার, অতিরিক্ত কমিশনার, কমিশনার ও সমপদমর্যাদার অন্যান্য কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা এই ইউনিফর্ম পরবেন।

নতুন ইউনিফর্মের রং হবে জলপাই রঙের শার্ট, গাঢ় জলপাই রঙের প্যান্ট। কমিশনার ও মহাপরিচালকের ক্ষেত্রে একটি শার্টে ‘সোনালি দ্বার’ এবং মধ্যবর্তী ফাঁকা অংশে তিনটি ‘গৌরব তারকা’ থাকবে। অতিরিক্ত কমিশনার ও অতিরিক্ত মহাপরিচালকের ক্ষেত্রে একটি ‘সোনালি দ্বার’ ও মধ্যবর্তী ফাঁকা অংশে দু’টি ‘গৌরব তারকা’, যুগ্ম কমিশনার ও যুগ্মপরিচালকের ক্ষেত্রে একটি ‘সোনালি দ্বার’ ও মধ্যবর্তী ফাঁকা অংশে একটি ‘গৌরব তারকা’, উপকমিশনার ও উপপরিচালকের ক্ষেত্রে একটি ‘সোনালি দ্বার’ থাকবে। সহকারী কমিশনার, সহকারী পরিচালকের ক্ষেত্রে তিনটি ‘গৌরব তারকা’, রাজস্ব কর্মকর্তার ক্ষেত্রে দু’টি ‘গৌরব তারকা’ এবং সহকারী রাজস্ব কর্মকর্তার ক্ষেত্রে একটি ‘গৌরব তারকা’ থাকবে। সাব-ইন্সপেক্টর ও সিপাহীরা মাথায় গাঢ় জলপাই রঙের বেরেট ক্যাপ পরবেন, যার সামনে পৌনে দুই ইঞ্চি ব্যাসের দশমিক ১২৫ ইঞ্চি পুরুত্বের পিতলের চাকতির ওপর কাস্টমস ও ভ্যাট বিভাগের লোগো থাকবে।

কর্মকর্তাদের ইউনিফর্মে গর্জেট প্যাঁচ থাকবে,যা হবে সমুদ্র নীল ভিত্তির ওপর রুপালি জরির সুতা দিয়ে এমব্রয়ডারি করা। কমিশনার ও মহাপরিচালকের ক্ষেত্রে গর্জেট প্যাঁচে জলপাইপত্র সংবলিত বিপরীতমুখী লম্বালম্বি চারটি শাখা এবং অতিরিক্ত কমিশনার ও অতিরিক্ত মহাপরিচালকের ক্ষেত্রে জলপাইপত্র সংবলিত একটি শাখা থাকবে।

অন্যদিকে, নারী কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের ইউনিফর্মের ক্ষেত্রে সম্মুখের দিকে চার পকেটবিশিষ্ট হালকা জলপাই রঙের মসৃন টিসি কাপড়ের হাফ হাতা বা ফুল হাতা লং শার্ট এবং গাঢ় জলপাই রঙের টিসি ড্রিল কাপড়ের তৈরি ট্রাউজার।

ঢাকা, ২৫ ডিসেম্বর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমআই

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।