চীনে ৫১৬১ পণ্য রপ্তানিতে শুল্কমুক্ত সুবিধা পেয়েছে বাংলাদেশ


Published: 2020-06-19 09:33:15 BdST, Updated: 2020-08-08 00:55:56 BdST

লাইভ ডেস্কঃ চীনের আরও ৫ হাজার ১৬১টি পণ্যের শুল্কমুক্ত রপ্তানির সুবিধা পেয়েছে বাংলাদেশ। এর মাধ্যমে দেশটিতে মোট শুল্কমুক্ত পণ্যের সংখ্যা দাঁড়াল ৮ হাজার ২৫৬টি।

বৃহস্পতিবার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্র এ তথ্য জানায়। সূত্র জানায়, চীন বাংলাদেশের জন্য যেসব পণ্যের শুল্কমুক্ত সুবিধা দিয়েছে, তার মধ্যে দিয়ে বাংলাদেশ চীনা বাজারে মোট রপ্তানি পণ্যের ৯৭ শতাংশই শুল্ক মুক্ত সুবিধা পাবে।

চীনে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মাহবুব উজ জামান বৃহস্পতিবার (১৮ জুলাই) পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে চীনা শুল্কমুক্ত সুবিধা নিয়ে বার্তা পাঠিয়েছেন। সেই বার্তায় ৫১৬১টি পণ্যের শুল্ক মুক্ত রপ্তানির সুবিধার কথা বলা হয়েছে। এর মধ্যে দিয়ে চীনা বাজারে বাংলাদেশের পণ্য রপ্তানির দুয়ার খুলবে।

এ নিয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন বৃহস্পতিবার রাতে গণমাধ্যমকে জানান, বাংলাদেশ যে ইকোনমিক ডিপ্লোমেসি বা অর্থনৈতিক কূটনীতি চালু করেছে, এটা তারই বড় অর্জন। এই সিদ্ধান্তের ফলে চীনের বাজারে বাংলাদেশের ৯৭ শতাংশ পণই শুল্ক মুক্ত সুবিধা পাবে। এটাকে শত ভাগ শুল্কমুক্ত রপ্তানি সুবিধাও বলা যায়। কারণ বাংলাদেশ থেকে যত ধরনের পণ্য চীনে রপ্তানি হয় তার মধ্যে মাত্র ৩টি বাদে সবই বিনা শুল্কে দেশটির বাজারে ঢুকতে পারবে।

এলডিসি কান্ট্রি হিসাবে বাণিজ্যের ওই প্রাধিকারটি পেতে দীর্ঘ দিন ধরে ঢাকা-বেইজিং আলোচনা চলছিল। ১৬ জুন সুবিধাটি দিতে সম্মত হয় শি জিন পিংয়ের নেতৃত্বাধীন সরকার। আগামী ১ জুলাই থেকে এই সিদ্ধান্ত কার্যকর হবে।

ঢাকা, ১৯ জুন (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//টিআর

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।