একযুগ পরে কুবির প্রথম সমাবর্তন !


Published: 2019-10-02 15:32:23 BdST, Updated: 2019-10-22 19:48:45 BdST

কুবি লাইভঃ প্রতিষ্ঠার ১৩ বছর পরে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রথমবারের মতো সমাবর্তন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। আগামী বছরের ফেব্রুয়ারি ও মার্চের মাঝামাঝি সময়ে হতে পারে এ সমাবর্তন।
অক্টোবর মাসের ২য় সপ্তাহ থেকে রেজিস্ট্রেশন প্রক্রিয়া শুরু হবে।সমাবর্তন আয়োজক কমিটির আহবায়ক ড. এ. কে. এম রায়হান উদ্দিন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, "আগামী বছরের ফেব্রুয়ারি মাসের শেষ সপ্তাহ এবং মার্চের প্রথম সপ্তাহ এ দুইয়ের মাঝামাঝি সময়ে আমাদের ১ম সমাবর্তন অনুষ্ঠিত হবে। এর জন্য এ মাসের মাঝামাঝি সময়ে রেজিস্ট্রেশনের জন্য আহবান করা হবে।

অনলাইনের মাধ্যমে এ রেজিস্ট্রেশন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে হবে। রেজিস্ট্রেশন ফি স্নাতকের জন্য ৩৫০০ টাকা এবং স্নাতকোত্তর সহ ৪০০০ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে।"

বিশ্ববিদ্যালয়ের ১ম ব্যাচ (২০০৬-০৭ শিক্ষাবর্ষ) থেকে ৮ম ব্যাচ (২০১৩-১৪ শিক্ষাবর্ষ) পর্যন্ত স্নাতক শেষ করা এবং ৬ষ্ট ব্যাচ পর্যন্ত স্নাতকোত্তর শেষ করা শিক্ষার্থীরা অংশ নিতে পারবে এ সমাবর্তনে।

এদিকে ২০১৩-১৪ শিক্ষাবর্ষ থেকে ফার্মেসি বিভাগ চালু হলেও তাদের স্নাতক ৫ বছরের হওয়ায় প্রথম সমাবর্তনে অংশ নিতে পারবেনা এ বিভাগের শিক্ষার্থীরা।

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক নুরুল করিম বলেন, "স্নাতক শেষ করা ৮টি ব্যাচের ৩৫৫০ জন শিক্ষার্থী এবং স্নাতকোত্তর শেষ করা ২০৫২ জন শিক্ষার্থী সমাবর্তনে অংশ নিতে পারবেন।"

বহুল প্রতিক্ষিত ১ম সমাবর্তনের অংশীদার হতে পেরে খুশি সমাবর্তন স্নাতক বা স্নাতকোত্তর শেষ করা শিক্ষার্থীরা।

লোক প্রশাসন বিভাগের ৭ম ব্যাচের শিক্ষার্থী হানিফ ওয়াহিদ বলেন, "বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম সমাবর্তনে অংশ নিতে পারবো জেনে আমরা আনন্দিত উচ্ছ্বাসিত। আমরা বিশ্ববিদ্যালয়ে আসার পর প্রথম ব্যাচ থেকে সবাইকে দেখেছি।

আমরা আমাদের সিনিয়ার ভাই-বোনদেরকে বিদায় দিয়েছি। বিদায়ের সময় উনারা বলেছিলেন আমাদের সাথে মাসে বা বছরে দেখা হবে বা কথা হবে। কিন্তু ব্যস্ততার খাতিরে আমাদের সাথে তাঁদের যোগাযোগটা কমে গেছে।

সমাবর্তন উপলক্ষে আমরা আবার তাঁদেরকে একসাথে দেখতে পাবো। সবার সাথে কথা বলতে পারবো। এই মুহূর্তে আসলে ভাষায় প্রকাশ করা যায় না। আমরা আবার সেই পুরনো দিনগুলো ফিরে যাব। বিশ্ববিদ্যালয় একটি উৎসবে মেতে উঠবে।"

মার্কেটিং বিভাগের ৮ম ব্যাচের শিক্ষার্থী সাবিকুন্নাহার জাকিয়া বলেন, "প্রথম সমাবর্তনে অংশ নিতে পারবো জেনে আমরা ৮ম ব্যাচের শিক্ষার্থীরা অত্যন্ত আনন্দিত। প্রথমে ভেবেছিলাম আমরা সমাবর্তনে অংশ নিতে পারবো না। কিন্তু পরে আমরা সুযোগ পাওয়ায় নিজেদেরকে ভাগ্যবান মনে করছি।"

এদিকে সমাবর্তনকে সামনে রেখে বিশ্ববিদ্যালয়ের অভ্যন্তরীণ সৌন্দর্যবর্ধন, রাস্তা তৈরি, মাঠ সংস্কারসহ বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজ চলমান রয়েছে।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর ড. এমরান কবির চৌধুরী বলেন, "একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাবর্তন অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয়। বিশেষ করে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে আরো বেশি গুরুত্বপূর্ণ। এটি না হলে শিক্ষাজীবনের পূর্ণতা পায় না।"

তিনি আরো বলেন, " এ বিশ্ববিদ্যালয়ে যোগদানের পর আমার প্রথম লক্ষ্য ছিল শিক্ষার্থীদের দীর্ঘদিনের এ আক্ষেপ পূরণ করা। সেজন্য আমি সহ বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে মহামান্য রাষ্ট্রপতির সাথে সাক্ষাত করেছি।

তিনি আশ্বাস দিয়েছেন আগামী বছরের ফেব্রুয়ারির শেষ ও মার্চের প্রথম দিকে এ দুইয়ের মাঝামাঝি সময়ে একটি সময় ফিক্সড করে আমাদেরকে জানাবেন। আমরা রাষ্ট্রপতি দপ্তরের সাথে নিয়মিত যোগাযোগ রেখেছি।"

সমাবর্তন উপলক্ষে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রস্তুতির বিষয়ে তিনি বলেন, "অভ্যন্তরীণ রাস্তার কাজ শেষ হয়ে গেছে। সমাবর্তনের মাঠ প্রস্তুত করা হচ্ছে এবং আগামী মাসেই আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়ের দৃষ্টি-নন্দন গেটের কাজ শুরু হবে।

সমাবর্তনের প্রত্যেকটি বিভাগের সাব কমিটি গঠন করা হয়েছে। নির্ধারিত সময়ে প্রত্যেকে তাদের নিজস্ব কাজগুলো সম্পন্ন করবে। আশা করি আমরা সুন্দরভাবে সমাবর্তনটি সম্পন্ন করতে পারব।"

ঢাকা, ০২ অক্টোবর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমজেড

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।