৫ দফা দাবিতে আন্দোলনে কুবি শিক্ষার্থীরা


Published: 2019-11-18 21:38:35 BdST, Updated: 2019-12-09 19:21:08 BdST

কুবি লাইভঃ সেশনজট নিরসনসহ ৫ দফা দাবিতে আন্দোলন ও অবস্থান কর্মসূচি পালন করেছে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রত্নতত্ত্ব বিভাগের শিক্ষার্থীরা। শিক্ষার্থীরা সোমবার সকাল নয়টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের সামনে আন্দোলন করেছে। পরে ভিসির আশ্বাসে আন্দোলন স্থগিত করে শিক্ষার্থীরা।

আন্দোলন চলাকালীন সময়ে শিক্ষার্থীরা সেশনজট বিরোধী বিভিন্ন শ্লোগান দেন এবং সেই সাথে প্ল্যাকার্ড প্রর্দশন করেন। ৩ বছরে ৩ সেমিস্টার, প্রশাসন জবাব চাই, ৪ বছরে ৫ সেমিস্টার, ধিক্কার! ধিক্কার! কাউকে ছোট করতে আসিনি, অধিকার আদায় করতে এসেছি ইত্যাদি এমনই লেখা ছিল প্ল্যাকার্ডগুলোতে।

এ সময় শিক্ষার্থীরা তাদের ৫ দফা দাবি উত্থাপন করেন। উত্থাপিত দাবিগুলো হলো-
১. সেশনজট নিরসনের লক্ষ্যে নির্দিষ্ট সময়ে ৯ম থেকে ১২ তম ব্যাচের পরীক্ষা সম্পন্ন করতে হবে।
২. ব্যাচভিত্তিক শিফট করে ক্লাস রুটিন প্রণয়ন করতে হবে।

৩. নির্দিষ্ট একাডেমিক ক্যালেন্ডার প্রণয়ন করতে হবে।
৪. ২৫ নভেম্বরের মধ্যে গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায় আর্টস এন্ড হেরিটেজ সোসাইটির নির্বাচন সম্পন্ন করতে হবে।
৫. প্রতি জোড় সেমিস্টার পরীক্ষা পরবর্তী এক মাসের মধ্যে ফিল্ড ওয়ার্ক ও ভাইবা শেষ করতে হবে।

এই সময়ে প্রত্নতত্ত্ব বিভাগের বিভাগীয় প্রধান ও অন্যান্য শিক্ষকগণ বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসির উপস্থিতিতে বিভিন্ন ব্যাচের প্রতিনিধিদের নিয়ে আলোচনা করেন। আলোচনায় শিক্ষার্থীদের দাবি মেনে নিয়ে সেশনজট কমানোর আশ্বাস দিলে সাড়ে এগারোটার দিকে অবস্থান কর্মসূচি তুলে নেন আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীরা।

এ প্রসঙ্গে প্রত্নতত্ত্ব বিভাগের বিভাগীয় বিভাগীয় প্রধান মো. সাদেকুজ্জামান জানান, সেশনজট নিরসনের জন্য আমরা শিক্ষকরা বসে একাডেমিক ক্যালেন্ডার করেছি।

সেই সাথে সোসাইটির নির্বাচনসহ অন্যান্য দাবিগুলোও অতিদ্রুত সমাধান করবো। বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার প্রফেসর ড. মো. আবু তাহের জানান, প্রত্নতত্ত্ব বিভাগের সেশনজট নিরসনের জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসন থেকে যে পদক্ষেপ নিতে হবে আমরা ওই পদক্ষেপগুলো বাস্তবায়ীত করবো।

ঢাকা, ১৮ নভেম্বর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমজেড

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।