''সুন্নাতে খতনার অনুষ্ঠানে নাচ করতে গিয়ে গণধর্ষণের শিকার হয়েছেন এক নৃত্যশিল্পী''নাচতে নাচতে গণধর্ষণের শিকার হলেন তরুণী


Published: 2020-12-05 13:45:34 BdST, Updated: 2021-01-21 11:13:51 BdST

নারায়ণগঞ্জ লাইভ: এবার পুরো ঘটনাটাই ভিন্ন ধরনের। নাচতে নাচতে গণধর্ষণের শিকার হলেন তরুণী। তাও যেনতেন অনুষ্ঠান নয় খাতনার অনুষ্ঠানে নাচতে গিয়েই সব খোয়ালেন তরুণী।

পুলিশ জানায়, নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় এক বাড়িতে সুন্নাতে খতনার অনুষ্ঠানে নাচ করতে গিয়ে গণধর্ষণের শিকার হয়েছেন এক নৃত্যশিল্পী। এ ঘটনায় দুইজনের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন তিনি।

বৃহস্পতিবার (৩ ডিসেম্বর) রাত সাড়ে ১২টায় ফতুল্লার পূর্ব ধর্মগঞ্জ এলাকার ডালডা কলোনির আহসান উল্লাহর বাড়িতে এই গণধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে।

পুলিশ ৯৯৯ নম্বরে ফোন পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে ফজলে রাব্বি (২৫) নামের এক যুবককে গ্রেফতার করে পুলিশ। অন্য যুবকেরা বিষয়টি ঠের পেয়ে খেটে পড়ে।

গ্রেফতার ফজলে রাব্বি গোপালগঞ্জের শশাবাড়ীয়া গ্রামের শাহাবুদ্দিনের ছেলে। তিনি কলোনির আহসান উল্লাহর বাড়ির ভাড়াটিয়া। যদিও তার ব্যাপারে এ ধরনের আরো অভিযোগ আছে কি তা তদন্ত করছে পুলিশ।

ফতুল্লা মডেল থানার ওসি আসলাম হোসেন মামলার বরাত দিয়ে বলেন, ‘ধর্ষণের শিকার তরুণী একটি গার্মেন্টসে চাকরির পাশাপাশি বিভিন্ন অনুষ্ঠানে নাচ করতেন।

বৃহস্পতিবার রাতে শরীফ নামে এক ড্যান্স মাস্টারের সঙ্গে দুই বান্ধবী পূর্ব ধর্মগঞ্জ এলাকার ডালডা কলোনির রাসেলের বাড়িতে একটি সুন্নতে খতনার অনুষ্ঠানে নাচ করতে যান।’ বেশ সেজে গুজেই তারা গিয়েছিলেন।

ওসি আরও জানান, রাত সাড়ে ১২টায় ফজলে রাব্বি কৌশলে দুই বান্ধবীর মধ্যে একজনকে পাশের আহসান উল্লাহর বাড়িতে একটি রুমে নিয়ে যান। সেখানে প্রথমে ফজলে রাব্বি পরে আহসান উল্লাহর ছেলে কামরুল ইসলাম (২৩) তাকে ধর্ষণ করেন।

এ সময় আরেক বান্ধবী ৯৯৯ নম্বরে ফোন করে থানায় অভিযোগ করেন। এতে তাৎক্ষণিক পুলিশ গিয়ে ফজলে রাব্বিকে গ্রেফতার করতে পারলেও পালিয়ে যান কামরুল ইসলাম। তাকে গ্রেফতারে চেষ্টা চলছে।
পুলিশ বলছে ওই এলাকায় এধরনের বিভিন্ন অপকর্ম প্রায় সময় ঘটতো। কিন্তু অজ্ঞাত কারণে পুলিশ চুপ থাকতো। জেনেও না জানার ভান করতো।

ঢাকা, ০৫ ডিসেম্বর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//বিএসসি

 

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।