৭ মাস পর ঢাবিতে গণিত বিভাগের ফল প্রকাশ, ক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা


Published: 2019-07-11 17:17:26 BdST, Updated: 2019-10-17 23:33:00 BdST

ঢাবি লাইভ: পরীক্ষার দুই মাসের মধ্যে রেজাল্ট প্রকাশ করার নিয়ম থাকলেও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণিত বিভাগের ১ম বর্ষের ফলাফল প্রকাশ করতে সময় লেগেছে প্রায় ৭ মাস। ৮ জুলাই প্রকাশিত ওই পরীক্ষায় ১৮৫ জনের মধ্যে অকৃতকার্য হয়েছে ৭০ জন শিক্ষার্থী।

এই নিয়ে শিক্ষার্থীদের মাঝে চরম হতাশা এবং উত্তেজনা বিরাজ করছে।এতো দেরিতে রেজাল্ট দেয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করেন বিভাগের শিক্ষার্থীরা।

শিক্ষার্থীরা জানায়, ২০১৭-১৮ সেশনের ১ম বর্ষের লিখিত পরীক্ষা শেষ হয়েছিল গত বছরের ডিসেম্বরের ১৭ তারিখে। বিশ্ববিদ্যালয়ে অন্যান্য বিভাগগুলো যেখানে দুই মাসের মধ্যে রেজাল্ট প্রকাশ করে সেখানে গণিত বিভাগের লেগেছে প্রায় ৭ মাস। আর ফেইলের সংখ্যাটা ৭০ জন, যা অন্যান্য বিভাগের তুলনায় খুবই মাত্রাতিরিক্ত

তারা বলেন, বিভাগের নিয়মানুযায়ী যারা কৃতকার্য হতে পারেনি তাদেরকে আবার ১ম বর্ষে ভর্তি হয়ে ক্লাস করে ফাইনাল পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে হবে, কিন্তু বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যালেন্ডার অনুযায়ী ২০১৮-১৯ সেশনের প্রথম বর্ষ ফাইনাল পরীক্ষার তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে আগামী মাসের ২২ তারিখ। এত অল্প সময়ের মধ্যে যে ৭০ জন ফেইল করেছে তাদের ভর্তি প্রক্রিয়া সম্পন্ন করার জন্যই পর্যাপ্ত নয়, সেখানে পরীক্ষা দিয়ে মানোন্নয়ন করা তো অনেক দূরের কথা।

শিক্ষার্থীরা আরো বলেন, অন্যদিকে ফাইনাল পরীক্ষার জন্য নির্ধারিত তারিখ পেছানো হলে অনেক শিক্ষার্থীর সেশন জটে পড়ার সম্ভাবনা রয়েছে। যেহেতু অকৃতকার্যদের কোন পথ খোলা নেই সেহেতু তারা আন্দোলনে যাওয়ার কথা চিন্তা করছেন।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক গণিত বিভাগের এক শিক্ষার্থী বলেন, আমরা অনেকে কিছু বলতে পারছি না এই ভয়ে যে,সামনে অন্যান্য পরীক্ষায় টিচাররা আবার খারাপ বানিয়ে দিবে ভেবে। আমরা এই ফলাফল পুর্বিবেচনার দাবি জানাচ্ছি।

এ বিষয়ে কথা বলতে গণিত বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. অমল কৃষ্ণ হালদার এর সাথে মোবাইলে যোগাযোগ করা হলে তিনি পরিচয় পাওয়ার সাথে সাথে "স্যরি এ ব্যাপারে কোনো কথা বলতে পারবো না" বলে ফোন কেটে দেন।


ঢাকা, ১১ জুলাই (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//আরএইচ

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।