আন্দোলনে ঢাবি শিক্ষককের বাধা দেয়ায় ক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা


Published: 2019-07-22 20:37:03 BdST, Updated: 2019-08-25 22:20:50 BdST

ঢাবি লাইভ: ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে (ঢাবি) অধিভুক্তি বাতিলের আন্দোলনে প্রফেসর জামাল উদ্দীনের বাধা দেয়ায় ক্ষুব্ধ আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা। সাত কলেজের অধিভুক্তি বাতিলের আন্দোলনে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের কেন্দ্রীয় কমিটির আহ্বায়ক ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজ বিজ্ঞান বিভাগের প্রফেসর ড. আ ক ম জামাল উদ্দীনের বাধা ও হস্তক্ষেপে ক্ষুব্ধ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ শিক্ষার্থীরা।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অধিভুক্ত সরকারি সাত কলেজের অধিভুক্তি বাতিলের দাবিতে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা সকালে ১০টায় সমাজ বিজ্ঞান অনুষদের প্রধান ফটক তালাবদ্ধ করে অবস্থান নেয়। এসময় তিনি অনুষদে প্রবেশ করার চেষ্টা করলে শিক্ষার্থীদের সাথে প্রফেসর আ.ক.ম জামালের সাথে কথা-কাটাকাটি হয়।

এক পর্যায়ে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের নেতা-কর্মীরা এসে বাধা দিলে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে।
এসময তিনি শিক্ষার্থীদেরকে ফটকের তালা খুলে দেয়ার জন্য চাপ সৃষ্টি করেন কিন্তু শিক্ষার্থীরা তালা খুলে না দেয়ায় তাদেরকে শিবির বলে আখ্যায়িত করেন। তার এই কথায় ক্ষুব্ধ হয় শিক্ষার্থীরা। ভুয়া ভুয়া স্লোগানে দিলে পরিবেশ উত্তাল হয়ে পরে।

কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে প্রফেসর আ.ক.ম জামাল স্পষ্ট ভাষায় ঘোষনা করেন, আমি সাত কলেজের পক্ষে এবং কথাটি তিনি কয়েকবার পুনরাবৃত্তি করেন। তখন উপস্থিত শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভে ফেটে পড়েন এবং স্লোগান দিতে থাকেন “সাত কলেজের টিচার, ঢাবি ছাড়, ঢাবি ছাড়” “পদত্যাগ,পদত্যাগ”।

একপর্যায়ে পরিস্থিতি বেশি উত্তাল হলে রাষ্ট্রবিজ্ঞান ডিপার্টমেন্টের চেয়্যারম্যান প্রফেসর ড. ফেরদৌস হোসেন বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীদেরকে শান্ত করার চেষ্টা করেন এবং শিক্ষার্থীদের অভিযোগ শুনেন। তখন আ.ক.ম জামালকে সড়িয়ে নেয়ার জন্য শিক্ষার্থীরা প্রফেসর ফেরদৌস স্যারকে অনুরোধ করেন।

আন্দোলকারী শিক্ষার্থীরা বলেন, ‘আমরা আন্দোলন করার এক পর্যায়ে তারা এসে সামাজিক বিজ্ঞান ভবনে প্রবেশ করতে চান। আমরা তালা খুলতে না দিলে আমিনুল ইসলাম বুলবুল আমাদের ‘ছেলে-পেলে আনবো নাকি’ বলে হুমকি দেন।’

সেখানে সরেজমিনে দেখা যায়, আমিনুল ইসলাম বুলবুল আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের হুমকি দিলে তারা উত্তেজিত হয়ে পাল্টা বিভিন্ন স্লোগান দিতে থাকেন। এসময় আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীরা, ‘নির্লজ্জ প্রশাসন, ধিক্কার-ধিক্কার’, ‘অ্যাকশন-অ্যাকশন, ডাইরেক্ট অ্যাকশন’, ‘ভুয়া-ভুয়া’ বলে স্লোগান দিতে থাকেন।

সাত কলেজের অধিভুক্তি বাতিলের দাবিতে গত কয়েকদিন ধরে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা আন্দোলন করে এলেও বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন কোনো কার্যকরী সিদ্ধান্ত নেয়নি। এতে শিক্ষার্থীরা গতকাল রবিবার থেকে ক্লাস-পরীক্ষা বন্ধসহ গুরুত্বপূর্ণ ভবনের ফটকে তালা লাগিয়ে লাগাতার বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করে আসছেন।


ঢাকা, ২২ জুলাই (ক্যাম্পাসলাইভ২৪কম)//এমআই

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।