শোভন -রাব্বানীর স্বপদে বহাল চায় মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ


Published: 2019-09-17 22:09:34 BdST, Updated: 2019-10-19 05:17:14 BdST

ঢাবি লাইভ: ছাত্রলীগের সদ্য পদচ্যুত শীর্ষ দুই নেতা শোভন এ রাব্বানীর স্বপদে বহাল এবং তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগের পুনর্বিবেচনার দাবি জানিয়েছেন মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ। একই সাথে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর ফারজানা ইসলামের বিরুদ্ধে উন্নয়ন প্রকল্পে দুর্নীতি, কমিশন কেলেঙ্কারিতে জড়িত থাকার অপরাধ ও বিএনপি জামাত সমর্থক হিসেবে আখ্যা দিয়ে তার অপসারণের দাবি জানিয়েছেন মঞ্চের নেতা-কর্মীরা।

মঙ্গলবার বিকাল পাঁচটায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজুভাস্কর্যের পাদদেশে আয়োজিত মানববন্ধন থেকে এসব দাবি জানানো হয়। এসময় জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর ফারজানা ইসলামের কুশপুত্তলিকাদাহ করে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের নেতা-কর্মীরা।

মানববন্ধনে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের আহ্বায়ক আ ক জামাল উদ্দীন বলেন, শোভন-রাব্বানীকে অপসারণের মতো এতো দুর্বল সিদ্ধান্ত কিভাবে সরকারের পলিটিকস মেকাররা নিয়েছে, আমি আশ্চর্যিত হই । কোনো ধরনের ট্রাইব্যুনাল গঠন ছাড়াই তাদেরকে দোষী সাব্যস্ত করা হয়েছে। মুক্তিযুদ্ধ মানে ছাত্রলীগ। ছাত্রলীগের কোনো ক্ষতি হলে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ তা মেনে নিবে না ।

তিনি বলেন, ছাত্রলীগকে নিয়ে নানা ষড়যন্ত্র চলছে। এরই অংশ হিসেবে একটি চক্র ছাত্রলীগের সভাপতি শোভন ও সাধারণ সম্পাদক রাব্বানীর সাথে অন্যায় করেছে। ভিসি আসল নাটের গুরু। তাকে অপসারণ করা হোক। ২৪ ঘন্টার মধ্যে ঐ বিএনপি-জামাত সমর্থক ভিসি ফারজানা ইসলামকে অপসারণ করতে হবে।

এসময় মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সভাপতি আমিনুল ইসলাম বুলবুল বলেন, অন্যায়ের বিরুদ্ধে এই কুশপুত্তলিকা। এই ভিসি অপপ্রচারের মাধ্যমে মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসকে বিক্রিত করেছে। ছাত্রলীগকে কলঙ্কিত করেছে। কাল থেকে আমি রাব্বানীর জন্য মধুতে অবস্থান কর্মসূচি পালন করবো। শোভন রাব্বানীর জন্য হাজার হাজার নেতাকর্মী জীবন দিতে প্রস্তুত। যে দোষ আপনারা দিয়েছেন, এটার কোনো প্রমাণ নেই।

গোলাম রাব্বানী-শোভন ষড়যন্ত্রের স্বীকার। জাবি ভিসি নিজেই একজন দুর্নীতিবাজ। সে পরিকল্পিতভাবে ছাত্রলীগের সভাপতি শোভন ও সাধারণ সম্পাদক রাব্বানীকে বলীর পাঁঠা বানিয়েছেন। তাই,আমরা শোভন-রাব্বানীকে আবারো স্বপদে ফিরিয়ে দেয়ার দাবি জানাই।

ঢাকা, ১৭ সেপ্টেম্বর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমজেড

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।