মানসম্মত উচ্চশিক্ষা নিশ্চিত করতে ছাত্র ফেডারেশনের প্রস্তাবনা


Published: 2019-09-17 22:46:04 BdST, Updated: 2019-10-19 05:16:07 BdST

ঢাবি লাইভ: জাতীয় শিক্ষা দিবস উপলক্ষে বাংলাদেশ ছাত্র ফেডারেশন প্রাথমিক থেকে উচ্চশিক্ষা পর্যন্ত একই ধারার বিজ্ঞানভিত্তিক শিক্ষার ব্যবস্থা করাসহ ১৪টি উচ্চশিক্ষায় ১৮টি প্রস্তাবনা উত্থাপন করেছেন।

মঙ্গলবার সকাল ৮ টায় রাজধানীর শিক্ষা অধিকার চত্বরে শিক্ষা আন্দোলনের শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে প্রস্তাবনা উত্থাপন করা হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, ছাত্র ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক জাহিদ সুজন, সাংগঠনিক সম্পাদক সাদিক রেজা, ঢাবি শাখার সাধারণ সম্পাদক সালমান ফারসি, ঢাকা মহানগর শাখার আহ্বায়ক সৈকত আরিফ, ঢাকা মহানগর শাখার সম্পাদক রূপক রায় ও অর্থ সম্পাদক মাহবুবুর রহমান নাঈমসহ নেতৃবৃন্দ।

মানসম্মত প্রাথমিক ও মাধ্যমিক শিক্ষা নিশ্চিক করতে ছাত্র ফেডারেশনের প্রস্তাবনাঃ
১। বহুধারার (সাধারণ, মাদ্রাসা ও ইংরেজি মাধ্যম) শিক্ষাপদ্ধতি বাতিল করে একই ধারার বিজ্ঞানভিত্তিক শিক্ষার ব্যবস্থা করতে হবে।
২। স্কুল-কলেজ শিক্ষকদের প্রাইভেট পড়ানো বন্ধ করে ক্লাসে পাঠদান নিশ্চিত করতে শিক্ষকদের বেতন বৃদ্ধি করতে হবে। শিক্ষকদের প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করতে হবে। অংশগ্রহণমূলক পাঠদান পদ্ধতি চালু করতে হবে যাতে করে শিক্ষার্থীদের অনুসন্ধিৎসু ও চিন্তার সক্রিয়তা বৃদ্ধি পায়।

৩। কোচিং, গাইড-নোট-মডেল টেস্টসহ যাবতীয় শিক্ষা ধ্বংসের তৎপরতা ও বাণিজিকীকরণ বন্ধ করতে হবে।
৪। প্রচার মাধ্যম ও পাঠ্যপুস্তক থেকে সাম্প্রদায়িক, ইতিহাসের দলীয়করণ, অবৈজ্ঞানিক, পুরুষতান্ত্রিক, জাতিবিদ্বেষী ও বর্ণবৈষম্যমূলক উপাদান বাতিল করতে হবে।
৫। সকল জাতিসত্তার শিশুদের জন্য প্রাথমিক পর্যন্ত মাতৃভাষায় শিক্ষার ব্যবস্থা করতে হবে।
৬। শিক্ষাক্ষেত্র থেকে ঝরেপড়া রোধ করতে এবং প্রত্যেক শিশুর শিক্ষাজীবন নিশ্চিত করতে অভিভাবকদের ন্যূনতম আয় ও বাঁচার মতো মজুরি নিশ্চিত করতে হবে।

৭। প্রাথমিক থেকে উচ্চ মাধ্যমিক পর্যন্ত ভাষা, গণিত, সমাজ, বিজ্ঞান, ইতিহাস এবং প্রয়োজনীয় সামগ্রিকতার সাধারণ শিক্ষা এমন পদ্ধতিতে প্রদান করতে হবে যাতে শিক্ষার ভিত মজবুত হয়।
৮। সবার জন্য শিক্ষা নিশ্চিত করতে প্রাথমিক থেকে উচ্চ মাধ্যমিক পর্যন্ত সারাদেশে প্রয়োজনীয় সংখ্যক সরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান নির্মাণ ও অবকাঠামো উন্নয়ন ঘটাতে হবে। ছাত্র শিক্ষকের অনুপাত ৩০ঃ১ হারে প্রয়োজনীয় শিক্ষক নিয়োগ দিতে হবে।

৯। প্রত্যেক স্কুল-কলেজে শিক্ষার্থীদের উপযোগী আনন্দদায়ক পাঠাগার ও গবেষণাগার নির্মাণ এবং এগুলো মনিটরিং করা। পর্যাপ্ত গ্রন্থাগারিক নিয়োগ ও তাদের মর্যাদা নিশ্চিত করতে হবে। পরিবহণ ও চিকিৎসা ক্ষেত্রে বিশেষ সুবিধা নিশ্চিত করতে হবে।
১০। শিক্ষার্থীদের মানসিক বিকাশে খেলার মাঠ, সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ড ও শিক্ষা সফরের ব্যবস্থা করতে হবে।

১১। শ্রেণিমূল্যায়ন পদ্ধতিকে যুগোপযোগী ও শিক্ষার্থীদের প্রতি বিবেচনাপূর্ণ করে শ্রেণি উন্নয়নের নীতি প্রণয়ন করতে হবে। শিক্ষক কর্তৃক শিক্ষার্থী মূল্যায়ন ও শিক্ষার্থী কর্তৃক শিক্ষক মূল্যায়ন ব্যবস্থা চালু করতে হবে।
১২। ধর্ম, বর্ণ, লিঙ্গ, জাতি, আর্থিক অবস্থা কোনো ক্ষেত্রেই শিক্ষার্থীদের প্রতি বৈষম্যমূলক আচরণ করা চলবে না। শিক্ষার্থীদের শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করা চলবে না। এ বিষয়ে সুনির্দিষ্ট নীতিমালা প্রণয়ন করতে হবে।

১৩। স্কুল-কলেজগুলোতে প্রশাসনিক দলীয়করণ বন্ধ করে ছাত্র-শিক্ষক-অভিভাবকদের সমন্বয়ে স্কুল/কলেজ পরিচালনা কমিটি গঠন এবং কমিটির কার্যক্রম মনিটরিং করতে হবে।
১৪। ভর্তি বাণিজ্য, বোর্ডের বই নিয়ে দুর্নীতি ও ব্যবসা বন্ধ করতে হবে। বোর্ডের সকল বই দেশীয় ব্যবস্থাপনায় ছাপাতে হবে।

মানসম্মত উচ্চশিক্ষা নিশ্চিক করতে ছাত্র ফেডারেশনের প্রস্তাবনাঃ
১। শিক্ষাঙ্গনের গণতান্ত্রিক পরিবেশ নিশ্চিত কর। প্রতিষ্ঠানের যাবতীয় সিদ্ধান্ত গ্রহণ প্রক্রিয়ায় এবং প্রশাসনিক কার্যক্রমে ছাত্র প্রতিনিধিত্ব নিশ্চিত করতে হবে। সকল কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্র সংসদ নির্বাচন দিতে হবে।
২। উচ্চশিক্ষায় প্রবেশের অধিকার যাতে অর্থনৈতিক অবস্থার অধীন না হয় এ কারণে শিক্ষা ব্যয় জনগণের ন্যূনতম আয়ের সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণভাবে গ্রহণ করতে হবে।

৩। শিক্ষার বাণিজ্যিকীকরণ ও শিক্ষা সংকোচনের সাম্রাজ্যবাদী চক্রান্তে বছর বছর বেতন-ফি বৃদ্ধি চলবে না। বর্ধিত বেতন-ফি প্রত্যাহার করতে হবে। শিক্ষা ও গবেষণা কার্যক্রমে বরাদ্দ বৃদ্ধি করতে হবে। গবেষককে হয়রানি করা বা গবেষণা কার্যক্রম পরিচালনায় বাধা দেয়া চলবে না।
৪। প্রত্যেক বিশ্ববিদ্যালয় ও বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ আবাসিক হলে মানসম্মত পাঠাগার গঠন ও পর্যাপ্ত বই-জার্নাল সরবরাহ নিশ্চিত করতে হবে। লাইব্রেরি ও বিভাগীয় সেমিনারে পর্যাপ্ত নতুন বই-জার্নাল ও অন্যান্য সুযোগ-সুবিধা ছাত্রানুপাতে বাড়াতে হবে।
৫। ভর্তি জালিয়াতি বন্ধ কর।

৬। কলেজ সহ অধিভুক্ত সকল কলেজের একাডেমিক ক্যালেণ্ডার প্রণয়ন ও বাস্তবায়ন করতে হবে। অধিভুক্ত কলেজে সারাবছর ক্লাস চালু রেখে নির্দিষ্ট সময়ে কোর্স সম্পন্ন ও পরীক্ষা গ্রহণ কর। অনিয়মতান্ত্রিক উপায়ে পরীক্ষা পদ্ধতি বছর বছর বদলানো যাবে না। স্বতন্ত্র পরীক্ষা হল ও পর্যাপ্ত শ্রেণিকক্ষ তৈরি করতে হবে।

৭। সেমিস্টার পদ্ধতি বাতিল করা। শিক্ষার মান উন্নয়নে উপযুক্ত সিলেবাস প্রণয়ন ও পাঠদান পদ্ধতির সংস্কার কর। ছাত্র কর্তৃক শিক্ষক মূল্যায়ন ব্যবস্থা চালু কর। ছাত্র স্বার্থবিরোধী শিক্ষানীতি বাতিল করতে হবে।
৮। শিক্ষাঙ্গনকে সন্ত্রাস ও দখলদারমুক্ত করতে সন্ত্রাসী, নির্যাতক ও যৌন নিপীড়কদের পৃষ্ঠপোষকতা প্রদান বন্ধ করে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নিতে হবে। প্রশাসনিক স্বৈরতন্ত্র রুখতে দলীয়করণ বন্ধ করতে হবে।

৯। যৌন নিপীড়ন বিরোধী নীতিমালা প্রণয়ন করতে হবে। যৌন নিপীড়নের অভিযোগ নির্ভয়ে দাখিলের প্রাতিষ্ঠানিক ব্যবস্থা হিসেবে অভিযোগ সেল গঠন করতে হবে।
১০। শিক্ষকদের বেতন ও অন্যান্য সুযোগ-সুবিধা বৃদ্ধি ও পর্যাপ্ত শিক্ষক নিয়োগের মাধ্যমে ছাত্র-শিক্ষক অনুপাত বিজ্ঞানসম্মত করতে হবে। নিয়োগসহ বিশ্ববিদ্যালয় ও জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল প্রকার দুর্নীতি বন্ধ করতে হবে।
১১। শতভাগ আবাসনের উদ্যোগ গ্রহণ করতে হবে। প্রথম বর্ষ থেকে আবাসিক হলে সিট বরাদ্দ দিতে হবে। উন্নত পরিবহণ ও চিকিৎসা সুবিধা নিশ্চিত করতে হবে। হলে বিদ্যুৎ, স্বাস্থ্যসম্মত খাবার ও বিশুদ্ধ পানি সরবরাহ নিশ্চিত করতে হবে।

১২। কারিগরী ও পলিটেকনিকের শিক্ষার্থীদের উচ্চশিক্ষার সুযোগ নিশ্চিত করতে প্রয়োজনীয় উদ্যোগ নিতে হবে।
১৩। যে সব বিশ্ববিদ্যালয় ও কলেজে ছাত্র রাজনীতি ও সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ডের ওপর নিষেধাজ্ঞা রয়েছে তা প্রত্যাহার করতে হবে। পাঠচক্র, আলোচনা, সাংস্কৃতিক ও রাজনৈতিক কর্মকাণ্ড ইত্যাদি পাঠ্যবহির্ভূত কার্যক্রমের জন্য উপযুক্ত পরিবেশ নিশ্চিত করতে হবে।
১৫। মাতৃভাষায় শিক্ষার সুযোগ নিশ্চিত করতে অনুবাদ সংস্থা প্রতিষ্ঠা করে বাংলায় প্রয়োজনীয় বিদেশি বই-জার্নাল সরবরাহ করতে হবে। বিদ্যমান পাঠ্যবই অনুধাবনের সুবিধার্থে স্নাতক প্রথমবর্ষে ইংরেজি ভাষা শিক্ষা প্রদান করতে হবে।

১৬। প্রকল্প ও গবেষণাভিত্তিক শিক্ষা চালু করতে হবে। পাঠ্য বিষয়কে বাস্তবতা ও জীবন সংশ্লিষ্ট করতে হবে।
এই প্রস্তবনা বাস্তবায়ন করলে শিক্ষাব্যবস্থা যুগোপযোগী ও উৎপাদনমুখি হবে, তরুণ শিক্ষার্থীদের উদ্ভবনী শক্তির বিকাশ ঘটবে বলে জানান বক্তারা।

ঢাকা, ১৭ সেপ্টেম্বর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমজেড

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।