''ছাত্রলীগকে নিয়ন্ত্রণ না করলে ছাত্রদল দ্বায়িত্ব নেবে''


Published: 2019-10-07 19:12:03 BdST, Updated: 2019-10-22 20:25:17 BdST

ঢাবি লাইভঃ সাধারণ শিক্ষার্থীসহ বিভিন্ন ছাত্র সংগঠনের নেতাকর্মীদের উপর একের পর এক হামলা ও হত্যার ঘটনায় ছাত্রলীগকে নিয়ন্ত্রণ না করলে ছাত্রদল তার দ্বায়িত্ব নেবে বলে হুশিয়ারী দিয়েছেন বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের নেতারা।

বুয়েটের ছাত্র আবরার ফাহাদকে পিটিয়ে হত্যার ঘটনায় জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে সোমবার বিকেল ৫ টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে আয়োজিত বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তারা এ হুশিয়ারী দেন।

এ সময় ছাত্রদলের সভাপতি ফজলুর রহমান খোকন বলেন, আপনারা জানেন ছাত্রলীগ কীভাবে বর্বোচিতভাবে ও অন্যায়ভাবে শিবিরের ব্লেম দিয়ে বুয়েটের ছাত্র আবরারকে স্ট্যাম্প দিয়ে পিটিয়ে হত্যা করেছে।

আমরা এ জঘন্য হত্যাকাণ্ডের নিন্দা ও তীব্র প্রতিবাদ জানাই। ছাত্রলীগ আজ লাগামহীন হয়ে গেছে। সাধারণ শিক্ষার্থীরা আজ তাদের কাছে নিরাপদ নয়। বিভিন্ন ছাত্র সংগঠনের নেতাকর্মীদের উপর একের পর এক হামলা ও হত্যাযজ্ঞ চালাচ্ছে। ছাত্রলীগ যেভাবে ছাত্র সমাজের উপর হামলা ও নির্যাতন চালাচ্ছে, এ মুহুর্তে তাদের নিয়ন্ত্রণ না করা হলে ছাত্রদল তার দ্বায়িত্ব নেবে।

সমাবেশে ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন শ্যামল বলেন, ছাত্রদল আজ জেগে উঠেছে। ছাত্রলীগ সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের মাধ্যমে সাধারণ শিক্ষার্থীদের জিম্মি করে রেখেছে।,

শিক্ষার্থীদের মত প্রকাশের স্বাধীনতাকে কেড়ে নিয়েছে। তাদের কথা না শুনলে শিক্ষার্থীদেরকে হল থেকে বের করে দেয়া হচ্ছে, শিক্ষার্থীদেরকে মাথা ফাটিয়ে দেয়া হচ্ছে এবং সর্বশেষ পরিণিতি আমরা দেখেছি বাংলাদেশের সেরা প্রতিষ্ঠান বুয়েটের মতো প্রতিষ্ঠানে একজন ছাত্রকে পিটিয়ে হত্যা করে সিঁড়িতে তার লাশ রাখা হয়েছে।

ছাত্রদল আজ জেগে উঠেছে। সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তা নিশ্চিতি করা না হলে, ছাত্র সমাজকে নিয়ে আমরা তার সমুচিত জবাব দেবো।

এর আগে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি চত্বর হতে ছাত্রদলের দুই শতাধিক নেতা-কর্মী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করেন।

এ সময় তারা ‘আমার ভাই মরল কেন, প্রশাসন জবাব চাই’, ‘হলে হলে সন্ত্রাস রুখে দাড়াও ছাত্র সমাজ’, ‘দিয়েছি রক্ত, আরো দেবো রক্ত’, ‘রক্তের বন্যায় ভেসে যাবে অন্যায়’, ‘শিক্ষা, ছাত্রলীগ, একসাথে চলে না’, ‘সন্ত্রাসীদের কালো হাত, ছাত্রলীগের কালো হাত, ভেঙ্গে দাও গুড়িয়ে দাও’, ‘জেগেছে রে জেগেছে ছাত্র সমাজ জেগেছে’ ইত্যাদি স্লোগান দেন।

উল্লেখ্য, ফেইসবুকে ভারত ও বাংলাদেশের সাম্প্রতিক কিছু চুক্তির সমালোচনা করে স্ট্যাটাস দেন আবরার। এর জেরে সোমবার রাতে বুয়েট শাখা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা তাকে পিটিয়ে হত্যা করেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

ঢাকা, ০৭ অক্টোবর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমজেড

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।