ঢাবিতে আবরার হত্যা ও দেশবিরোধী চুক্তির প্রতিবাদে মিছিল


Published: 2019-10-09 16:19:35 BdST, Updated: 2019-10-18 22:57:28 BdST

ঢাবি লাইভঃ বুয়েট শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদ হত্যা, দেশবিরোধী চুক্তির প্রতিবাদ ও ক্যাম্পাসে ছাত্রলীগের সন্ত্রাসী রাজনীতি বন্ধের দাবিতে কালো পতাকা মিছিল ও বিক্ষোভ করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা।

বুধবার দুপুর সাড়ে ১২ টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সন্ত্রাসবিরোধী রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশ সংক্ষিপ্ত সমাবেশের মাধ্যমে মিছিলটি শুরু হয়। মিছিলটি ভিসি চত্বর, ব্রিটিশ কাউন্সিলের সামনে দিয়ে পলাশীর মোড় হয়ে বুয়েট ক্যাম্পাস প্রদক্ষিণ করে পুনরায় রাজু ভাস্কর্যে এসে শেষ হয়।

এসময় সম্প্রতি বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যকার চুক্তি বাতিলের দাবিতে স্লোগান দেন তারা। ‘ঢাকা না দিল্লি? ক্ষমতা না জনতা?’, ‘ছাত্রলীগের আস্তানা ভেঙ্গে দাও গুড়িয়ে দাও’, শিক্ষা-সন্ত্রাস এক সাথে চলে না, শিক্ষা ছাত্রলীগ এক সাথে চলে না, ‘আমার ভাই আবরার আর কত লাশ দরকার’, উই ওয়ান্ট জাস্টিস ইত্যাদি স্লোগান দেন।

মিছিলের শুরুতে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের প্রফেসর আসিফ নজরুল বলেন, ভারতের সাথে যে দেশবিরোধী চুক্তি হয়েছে, তা কি শুধু শিবির করবে? কাশ্মীরের পক্ষে কথা বললে কি শিবির হয়ে যায়? আজকে আবরার মারা না গিয়ে যদি গুরুতর আহত হত, তাহলে পত্রিকায় দেখতাম শিবির সন্দেহে বুয়েটে ছাত্রকে পুলিশে সোপার্দ।

আমরা কেউ তার প্রতিবাদ করতাম না। এ ধরনের ঘটনা আগে বহুবার হয়েছে। আমার প্রশ্ন হচ্ছে আবরার যদি শিবিরই করতো, তাহলে ছাত্রলীগ কোন অধিকারে তাকে মারধর করবে?কোন আইনে আছে, ছাত্রলীগ শিক্ষার্থীদের মারধর করবে, মোবাইল -মানিব্যাগ চকে করবে? কোন আইনে আছে তাকে টর্চার করতে পারবে? তাহলে আপনারা আইন করুন- ছাত্রলীগ ভিন্ন মতের লোকদের প্রতিহত করতে পারবে।

সংক্ষিপ্ত এই সমাবেশ শেষে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের প্রফেসর আসিফ নজরুল , (ডাকসু) ভিপি নুরুল হক নুর, সমাজসেবা সম্পাদক আকতার হোসেন, বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের আহ্বায়ক হাসান আল মামুন, যুগ্ম-আহবায়ক ফারুক হোসেন, মুঁহাম্মদ রাশেদ খান, ছাত্র ফেডারেশন সভাপতি আবু রায়হান খানসহ বিভিন্ন প্রগতিশীল সংগঠনের নেতৃবৃন্দ এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা মাথায় কালো কাপড় বেঁধে কালো পতাকা মিছিলে অংশ নেন।

মিছিলটি বুয়েট কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের সামনে গেলে সেখানে ডাকসুর ভিপি নুরুল হক নুর বুয়েট শিক্ষার্থীদের সঙ্গে সংহতি জানান এবং তাদের পাশে থাকার ঘোষণা দেন। এছাড়া তাদের কোন ভয় নেই বলেও আশ্বাস দেন। এসময় দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত এবং এদের বিচার না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার জন্য অনুরোধ করেন ভিপি নুর।

ঢাকা, ০৯ অক্টোবর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমজেড

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।