আবরার হত্যার আসামি ছাত্রলীগ নেতা মুন্নার বাবা বিএনপির সভাপতি!


Published: 2019-10-10 02:57:39 BdST, Updated: 2019-12-14 18:41:26 BdST

লাইভ প্রতিবেদক : বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) ছাত্র আবরার ফাহাদ হত্যায় জড়িত ছাত্রলীগ নেতা ইশতিয়াক আহমেদ মুন্নার বাবা বিএনপির সভাপতি। তাদের পরিবারের সদস্যরা বিএনপির রাজনীতির সঙ্গে জড়িত। মুন্না নিজেও ছাত্রদল ঘরানার। কিন্তু বুয়েটে গিয়ে তিনি ছাত্রলীগের রাজনীতির সঙ্গে জড়িয়ে পড়েন। যদিও মুন্নার পরিবারের সদস্যদের দাবি, হত্যার ঘটনার সময় সে বাড়িতে ছিল।

জানা গেছেন হবিগঞ্জের চুনারুঘাটের ঘরগাঁও গ্রামের প্রয়াত আহাদ আলী মেম্বারের মেজ ছেলে মুন্না। বুয়েটে মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে পড়া মুন্না ছাত্রলীগ বুয়েট শাখার গ্রন্থনা ও প্রকাশনা সম্পাদক। তার বড় ভাই ক্যাপ্টেন আশরাফ আহমেদ মনির সিলেট ক্যান্টনমেন্টে কর্মরত, ছোট ভাই ইফতেখার আহমেদ সিলেট শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র। তাদের বাবা আহাদ চুনারুঘাট ইউনিয়ন বিএনপির ৫নং ওয়ার্ডের সভাপতি ছিলেন। তার চাচা ওয়াহেদ আলী মেম্বার বর্তমানে ৫নং ওয়ার্ড বিএনপির সহ-সভাপতি।

বিএনপি ঘরানার পরিবারের সন্তান হয়ে মুন্না বুয়েটে গিয়ে কিভাবে ছাত্রলীগ নেতা হন এ নিয়ে তোলপাড় চলছে। এ বিষয়ে চুনারুঘাট সদর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শাহ ফারুক আহমেদ বলেন, প্রয়াত আহাদ আলী বিএনপি করতেন। তার পরিবারও বিএনপি সমর্থক। কিন্তু মুন্না কীভাবে ছাত্রলীগের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত হল তা আমরা জানি না।

ঢাকা, ১০ অক্টোবর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.ম)//সিএস

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।