দক্ষিণ এশিয়ার ক্রমবর্ধমান বৈষম্য দূর করতে মানববন্ধন


Published: 2020-01-20 14:20:26 BdST, Updated: 2020-02-24 05:44:45 BdST

ঢাবি লাইভঃ দক্ষিণ এশিয়ার ক্রমবর্ধমান বৈষম্য ও অসমতা দূর করতে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহন করার দাবিতে সাউথ এশিয়ান অ্যালান্স ফর পাভার্টি ইরাডিকেশন (স্যাপি)- বাংলাদেশ চ্যাপ্টারের উদ্যাগে 'বৈষম্যহীন দক্ষিণ এশিয়া গড় তুলতে সকল ঐক্যবদ্ধ হই' শীর্ষক এক মানব বন্ধনের আয়োজন করা হয়।

সোমবার ২০২০ তারিখে সকাল ১১ টায় জাতীয় জাদুঘরের সামনে এ মানববন্ধনের আয়োজন করা হয়।

সাউথ এশিয়া অ্যালান্স ফর প্রভার্টি ইরাডিকেশন (স্যাপি)- র প্রতিষ্টাতা সদস্য, বাংলাদেশ নারী প্রগতি সংঘের নির্বাহী পরিচালক রোকেয়া কবিরের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন শ্রমিকনেতা আবুল হোসেন, শিশু সংগঠক ও কেন্দ্রীয় খেলাঘরের সাধারণ সম্পাদক ডা. লেলিন চৌধুরী, আইইডি-র নির্বাহী পরিচালক নূমান আহমেদ খান, বিএমএ- এর সাবেক সভাপতি ডা. রশিদ-ই-মাহবুব বক্তব্য প্রদান করেন।

মানববন্ধনে রোকেয়া কবির বলেন, দক্ষিণ এশিয়ার জনগোষ্ঠী জাতি, ধর্ম, বর্ণ, গোত্র ও লিঙ্গ বৈষম্যের শিকার। এই বৈষম্যগুলো সামাজিক, অর্থনৈতিক, রাজনৈতিক কারনেই সৃষ্টি হয়েছে এবং দক্ষিণ এশিয়ার জনগণ ওয়াল্ড ইকোনমিক ফোরামের মত ফোরামগুলো দেশ গুলোর সার্থ রক্ষা করে চলছে, আমরা এ ধরনের অর্থনৈতিক আলোচনাকে প্রত্যাখ্যান করার জন্য দাঁড়িয়েছি। আমরা একটি মহৎ একটি বৃহৎ সমতা ভিত্তিক বিশ্ব নির্মানে একত্রে দাঁড়িয়েছি, যেখানে সকল মানুষের অধিকার ও সমমর্যাদা সুরক্ষিত হবে।

বিএমএ-র সাবেক সভাপতি ডা. রশিদ-ই-মাহবুব বলেন, যে সিস্টেমে ক্ষমতাশীলদের শক্তিশালী করে আর জনগণের প্রতি বৈষম্য সৃষ্টি করে আমরা সেই সিস্টেমের বিরুদ্ধে একসঙ্গে দাঁড়িয়েছি। আমরা একটি নতুন অর্থনৈতিক মডেল চাই যেখানে মানুষের অর্থনৈতিক সুবিধা, শান্তি এবং গণতন্ত্র পুননির্মাণ করবে এবং একটি অধিকতর বিশ্ব ব্যবস্থা তৈরি করবে।

মানববন্ধনে বক্তারা বাংলাদেশসহ দক্ষিণ এশিয়া অঞ্চলের এবং অন্যান্য বিশ্বের সরকারসূহকে ধনী এবং দরিদ্রদের মধ্যকার ব্যবধান কমানের জন্য কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহন করতে আহ্বান জানান।

ঢাকা, ২০ জানুয়ারি (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমজেড

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।