টাইফয়েডেও লকডাউন : বন্দি ঘরে নর্থসাউথ ভার্সিটি ছাত্রের চিকিৎসা!


Published: 2020-04-07 01:38:18 BdST, Updated: 2020-05-30 04:47:37 BdST

পিরোজপুর লাইভ: নর্থসাউথ ইউনিভার্সিটির কম্পিউটার সাইন্সের মেধাবী ছাত্র সিক্তর টাইফয়েড ধরা পড়েছে। তবুও করোনা সন্দেহে তার বাড়ি লকডাউন করে রাখা হয়েছে। এতে বন্দি জীবন কাটছে সিক্তর। হাসপাতালে তার চিকিৎসা হচ্ছে না। বাড়িতেই চলছে চিকিৎসা। এমনকি তাদের বাড়িতে লাল পতাকা টানিয়ে দেয়া হয়েছে। এতে আশেপাশের এলাকার লোকজন তাদের সঙ্গে অমানবিক আচরণ করছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। সামাজিকভাবে হেয় প্রতিপন্ন হচ্ছেন সিক্তর পরিবারের লোকজন। টাইফয়েড সনাক্ত হওয়ার পর লকডাউন প্রত্যাহারের আবেদন করলেও প্রশাসনের পক্ষ থেকে কোন ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে না। যদিও প্রশাসনের পক্ষ থেকেও বিষয়টি নিশ্চিত হয়েছে যে সিক্তর টাইফয়েড হয়েছে। তার করোনা হয়নি।

জানা গেছে, করোনা সন্দেহে পিরোজপুরের কাউখালীতে সিক্তর বাসা গত ৩০ মার্চ লকডাউন করে প্রশাসন। পরে তার শরীরে ধরা পরে টাইফয়েড, নিউমোনিয়া এবং সেই মোতাবেক এখন পর্যন্ত চলছে চিকিৎসা। টাইফয়েড চিকিৎসা প্রদানের পরে লকডাউন প্রত্যাহার হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু তা করা হচ্ছে না। লকডাউনের ফলে সিক্তর পরিবারের লোকজন সামাজিকভাবে হেয় প্রতিপন্ন হচ্ছেন। জরুরি প্রয়োজনেও বাসা থেকে বের হতে পারছেন না তারা।

সিক্তর মা শিল্পী বেগম বলেন, আমার ছেলের টাইফয়েড হয়েছে। বিষয়টি প্রশাসনকে জানানো হয়েছে। তারা বলেছে লকডাউন প্রত্যাহার করা হবে। কিন্তু তা না করায় আমরা ঘরে আটকে আছি।

উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাঃ হাবিবুর রহমান জানান, সোমবার সকালে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নিকট লকডাউন প্রত্যাহারের চিঠি দিয়েছেন।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা খালেদা খাতুন রেখা জানান, তিনি থানার ওসির কাছে লকডাউন প্রত্যাহারের চিঠি পাঠিয়ে দিয়েছেন।

তবে ওসি মোঃ নজরুল ইসলাম জানান, যেহেতু কোন পুলিশ পাহারা নেই তাই লকডাউন আগেই প্রত্যাহার হয়েছে।

ঢাকা, ০৭ এপ্রিল (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//সিএস

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।