বোনের সঙ্গে প্রেম, বয়ফ্রেন্ডকে হত্যার নৃশংস বর্ণনা ভাইয়ের!


Published: 2020-05-09 20:14:43 BdST, Updated: 2020-06-06 01:01:10 BdST

টাঙ্গাইল লাইভ : বোনের সাথে প্রেম করায় কলেজ ছাত্রকে হত্যার অভিযোগ উঠেছে এক মাদ্রাসা ছাত্রের বিরুদ্ধে। হত্যার পর ওই কলেজ ছাত্রকে নদীতে ফেলে দেন গার্লফ্রেন্ডের ভাই মাহিম। ঘটনাটি ঘটেছে টাঙ্গাইলে। বাড়িতে ডেকে নিয়ে ছুরিকাঘাত করে নৃশংস হত্যাকাণ্ড ঘটায় মহিম নামে ওই যুবক। পরে তার লাশ বাড়ি পাশে লৌহজং নদীতে কুচুরি পানার নিচে ফেলে দেয়া হয়। টাঙ্গাইল জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিতে মাহিম এমন তথ্য দিয়েছেন। নিহত ছাত্র আব্দুল্লাহ আল মামুন আশিক পুলিশ কর্মকর্তার ছেলে। ঘাতক মাহিম ঢাকার একটি মাদ্রাসায় অধ্যায়ন করছেন।

পুলিশ জানায়, শহরের কাগমারা এলাকার বাসিন্দা ও ঢাকায় পুলিশে কর্মরত রাশেদুল ইসলামের ছেলে আব্দুল্লাহ আল মামুন (১৮) গত ৩০ এপ্রিল সন্ধ্যার পর নিখোঁজ হন। তার পারিবারিক সূত্র জানায়, কয়েকমাস তাদের প্রতিবেশি মাহিমের বোনের সাথে মামুনের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। মামুন তার প্রেমিকাকে একটি মোবাইল ফোন সেট কিনে দেয়। এটা জানতে পেরে প্রেমিকার ভাই মাহিম ক্ষুদ্ধ হয়। নিখোঁজের দিন মোবাইল ফোনটি ফেরত নেওয়ার জন্য মাহিম তাদের বাড়িতে মামুনকে ডেকে পাঠায়। ওইদিন ফোন ফেরত আনতে গিয়েই মামুন নিখোঁজ হন। পরে গত ৫ মে সন্ধ্যায় লৌহজং নদী থেকে মামুনের লাশ ভেসে উঠে। খবর পেয়ে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা লাশ উদ্ধার করে।

লাশ উদ্ধারের পরেই পুলিশ মাহিম, তার মা ও বোনকে আটক করে। ৬ মে মামুনের লাশ দাফনের পর তার মা আনোয়ারা বেগম বাদি হয়ে টাঙ্গাইল সদর থানায় মামলা দায়ের করেন।

টাঙ্গাইল সদর থানার ওসি মীর মোশারফ হোসেন জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে মাহিম মামুনকে হত্যা করে লাশ নদে ফেলার কথা স্বীকার করেন। পরে আদালতে জবানবন্দি দিতে রাজি হন। বৃহস্পতিবার বিকেলে তাকে জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে নেওয়া হলে তিনি জবানবন্দি দেন।

আদালত সূত্র জানায়, জবানবন্দিতে মাহিম জানিয়েছেন ঘটনার দিন তার বোনকে দেওয়া মোবাইল ফোন ফেরত নেওয়ার জন্য মামুনকে খবর দেওয়া হয়। সন্ধ্যার পর মামুন ফোন ফেরত নিতে মাহিমদের বাসায় যান। আগে থেকেই ছুড়ি চেয়ারের পিছনে রেখেছিলেন। মামুনের পাশে বসে কথা বলার এক পর্যায়ে মাহিম ছুড়ি দিয়ে বুকে আঘাত করে। এতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। পরে গভীর রাতে লাশ বাসার পাশে লৌহজং নদীতে কুচুরিপানার নিচে ফেলে রাখেন।

ঢাকা, ০৯ মে (ক্যাম্পাসলাইভ২৪কম)//সিএস

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।