ডাকসু: " আমাগো নেতা" সৈকত"


Published: 2020-05-13 17:45:53 BdST, Updated: 2020-06-06 00:03:47 BdST

ঢাবি লাইভ : করোনাভাইরাস জনিত লকডাউনের পরিস্থিতিতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ও আশেপাশের এলাকার ছিন্নমূল মানুষদের আয় বন্ধ। এমন ১০০০ মানুষের অন্ন জোগানোর ভার নিয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) সদস্য ও ছাত্রলীগ নেতা তানভীর হাসান সৈকত।

দেশের সংকটময় পরিস্থিতিতে হাজারো অসহায় ছিন্নমূল মানুষের কাছে ডাকসু নেতা তানভীর হাসান সৈকত এখন করো কাছে সৈকত ভাই, কারো কাছে সৈকত মামা তবে বেশিরভাগ মানুষ বলে আমাগো নেতা সৈকত।

জানতে চাইলে ক্যাম্পাস লাইভ ২৪ কে সৈকত বলেন, "আসলে তারা আমাকে ভালোবেসে একেক জন একেক নামে ডাকে কেউ সৈকত ভাই ডাকে, কেউ সৈকত মামা বলে, কেউ আবার আমাগো নেতা বলে ডাকে। তবে আমাগো নেতা বলেই বেশি ডাকে। ওরা যেই নামেই ডাকুক না কেন আমার কাছে নামের চেয়ে এদের ভালোবাসাটায় গুরুত্বপূর্ণ, তাই আমি যে কোন ডাকেই সাড়া দেই।"

করোনায় ছিন্নমূল মানুষের খাদ্য সংকটের কথা চিন্তা করে খাবার জোগানের কাজ একাই শুরু করেন তিনি। শুরুটা ছিল ২৩ মার্চ ২০২০। এরপর চলে গেছে এপ্রিল মাস। মে মাসের অর্ধেক শেষ। শুরুতে চাল, ডাল ও আলু বিতরণের মধ্য দিয়ে শুরু হয়। পরে ৫০০ জন মানুষের জন্য খিচুড়ি রান্না করে খাবার বিতরণ করে সে। খাদ্যসংকটের কারণে অনেকে বাদ যাচ্ছে বলে ১০০০ জনের জন্য রান্না করা শুরু করেন তিনি। রমজান মাসের শুরু থেকে সেহরী ও ইফতার দিচ্ছে ১০০০ মানুষকে।

ঝুকিপূর্ণ পরিস্থিতিতে এত কাজ চালিয়ে যাওয়ার প্রেরণা কোথায় পান জানতে চাইলে সৈকত বলেন, "মানুষের প্রতি ভালোবাসা থেকেই পাই,মানুষের জন্য রাজনীতি করি, দূর্যোগে মানুষের পাশে দাঁড়ানো নৈতিক দ্বায়িত্ব বলে মনে করি।"

তবে তিনি আশংকা প্রকাশ করে বলেন,সহযোগিতা প্রথম দিকে কিছুটা পেলেও এখন খুব কম সহযোগিতা পাচ্ছি, "জানিনা সামনের দিনগুলোতে কিভাবে এ অসহায় মানুষগুলোর মুখে খাবার তুলে দিব।তবে আমি আমার সর্বোচ্চ চেষ্টা করবো এই অসহায় মানুষগুলোর মুখে খাবার তুলে দিতে।"

তার সাথে কারা কাজ করছেন জানতে চাইলে তিনি বলেন,"আমার সাথে আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়ের কয়েকজন শিক্ষার্থী ও বিশ্ববিদ্যালয়ের কয়েকজন দোকানদার কাজ করছে।যেহেতু আমাদের বিশ্ববিদ্যালয় এখন বন্ধ তাই এই দোকানদাররা কর্মহীন তাই এদের কিছুটা হলেও কর্মসংস্থান হয়েছে।"

সৈকত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের থিয়েটার অ্যান্ড পারফরম্যান্স স্টাডিজ বিভাগে পড়ছেন। ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদের সদস্য ছিলেন। ডাকসুতে সদস্য নির্বাচিত হয়ে গণরুম প্রথা উচ্ছেদ, ক্যাম্পাসে যানবাহনের ভাড়া নির্ধারণ, হল ক্যান্টিনের খাবারের মান বাড়ানো নিয়ে সোচ্চার ভূমিকা রেখেছেন।

ঢাকা, ১৩ মে (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমআর//এআইটি

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।