বশেমুরবিপ্রবিতে ভর্তির দাবিতে অপেক্ষমাণদের আমরণ অনশন


Published: 2020-10-27 15:12:59 BdST, Updated: 2020-12-04 23:26:47 BdST

বশেমুরবিপ্রবি লাইভঃ গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (বশেমুরবিপ্রবি) ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষের অপেক্ষমান তালিকায় ফাঁকা আসনে ভর্তির দাবিতে অনশন করছে ভর্তি ইচ্ছুক শিক্ষার্থীরা।

মঙ্গলবার (২৭ অক্টোবর) সকাল ১১ টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকে আমরণ অনশনে বসে ভর্তি ইচ্ছুক শিক্ষার্থীরা।

অনিশ্চয়তায় ভুগছেন এমন কিছু সংখ্যক শিক্ষার্থী দাবি করেন গত ১৪ সেপ্টেম্বর বিশ্ববিদ্যালয় উপাচার্য বরাবর চিঠি প্রদান করেন। তারা দাবি করেন সাবেক ভারপ্রাপ্ত উপাচার্য এবং প্রশাসন আসন সংখ্যা অপূর্ণ রেখে অপেক্ষমান শিক্ষার্থীদের ভবিষ্যৎ অনিশ্চয়তায় ফেলে দিয়েছেন। বিভিন্ন শিক্ষক এবং প্রশাসনের ব্যক্তিবর্গ এ ব্যাপারে পদক্ষেপ নিবেন বলে আশ্বাস দিলেও বিগত ৯ মাসে পদক্ষেপ নেয়নি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসন।

ভর্তির দাবিতে অনশন

 

অনশনরত শিক্ষার্থীদের মধ্যে বি ইউনিটে ১১৩১ তম আকিবুল হাসান বলেন, "বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখিত পরীক্ষা এবং ফলাফল ঘোষণার নির্ধারিত সময়সূচী পরিবর্তন সহ পরীক্ষার সেন্টার পরিবর্তনে অসংখ্য শিক্ষার্থীকে ভোগান্তিতে পড়তে হয়েছিল এবং পরীক্ষার ফলাফল ঘোষণায় বিলম্ব করে পূর্ববর্তী প্রশাসন। এছাড়াও প্রশ্ন ফাঁস ঠেকাতে ব্যর্থ হয়েছে প্রশাসন"।

অপেক্ষমান শিক্ষার্থী ই ইউনিটের ১৩৪৫ তম আল মামুন বলেন, "আমরা ২০১৯-২০ সেশনের ভর্তি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে ও কেন আমাদের ভর্তি নিবেনা।কেন আমাদের জীবন শঙ্কায় ফেলে দিলো? আমাদের ভবিষ্যৎ নিয়ে কেন খেলা করলো? বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনের কাছে আমাদের দাবি, অপেক্ষামান তালিকায় ভর্তি করে ফাঁকা আসন পূর্ণ করা হোক"।

ভর্তির দাবিতে অনশন

 

ভর্তি ইচ্ছুক অন্যান্য শিক্ষার্থীরা বলেন, "কেন ২য় অপেক্ষমান তালিকা থাকা সত্ত্বেও কোন প্রকার নোটিশ বা বিজ্ঞপ্তি ব্যাতিত ভর্তি বন্ধ করা হলো।প্রশাসন সেই শুরু থেকে আমাদেরকে আশ্বাস দিচ্ছে, কিন্তুু পরে নোটিশ ছাড়া ভর্তি বন্ধ করা হয়েছে"। তারা আরও বলেন,"দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত আমরা আমাদের অনশন পালন করে যাবো"।

এ বিষয়ে বশেমুরবিপ্রবি'র উপাচার্য অধ্যাপক ড. এ কিউ. এম. মাহবুব বলেন, "বন্ধ ক্যাম্পাসে সিদ্ধান্ত দেওয়া সম্ভব নয়। তবে ক্যাম্পাস খুললে শীঘ্রই একটি সিদ্ধান্তে পৌঁছানো যাবে"।

ভর্তির দাবিতে অনশন

 

উল্লেখ্য, বশেমুরবিপ্রবি 'র ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক প্রথমবর্ষ ভর্তি পরীক্ষার দশ মাস পূর্ণ হলেও বিভিন্ন অনুষদে ৪৪৪ টি আসন ফাঁকাই থেকে গেছে।

একাডেমিক অফিস সূত্রে জানা যায়, বিশ্ববিদ্যালয়ের ৯ টি অনুষদের অধীনে ৩৪ টি বিভাগে সর্বমোট ২৭৫০ আসনেরর বিপরীতে ২৩০৬ জন শিক্ষার্থী ভর্তি হয়েছেন। ফলে ৪৪৪ টি আসন ফাঁকা রয়েছে।ইঞ্জিনিয়ারিং অনুষদে ৬ টি বিভাগে ১৪৯ টি, বিজ্ঞান অনুষদে ৫ টি বিভাগে ৯৩ টি,

জীব বিজ্ঞান অনুষদে ৫ টি বিভাগে ৩৬ টি, মানবিক অনুষদে ৩ টি বিভাগে ১৪৭ টি, সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদে ৫ টি বিভাগে ৫ টি, ব্যাবসায় শিক্ষা অনুষদে ৫ টি বিভাগে ৪ টি, আইন অনুষদের আইন বিভাগে ৯ টি এবং আর্কিটেকচার অনুষদের আর্কিটেকচার বিভাগে ৮ আসন ফাঁকা রয়েছে।

ঢাকা, ২৭ অক্টোবর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমএইচ//এমজেড

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।