কে হচ্ছেন সাভার পৌরসভার অভিভাবক গনি না রেফাত উল্লাহ


Published: 2021-01-16 11:06:58 BdST, Updated: 2021-03-09 03:44:49 BdST

লাইভ প্রতিবেদক: দ্বিতীয় ধাপে সারাদেশে ৬০টি পৌরসভার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে শনিবার। এদিন সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত টানা ভোটগ্রহণ চলবে। দ্বিতীয় ধাপের এই পৌরসভা নির্বাচনের সব প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।

এ ধাপে ৬০টির মধ্যে ২৮টি পৌরসভায় ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) ভোট নেয়া হবে। ইতোমধ্যে নির্বাচনের যাবতীয় প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে নির্বাচন কমিশন। বৃহস্পতিবার (১৪ জানুয়ারি) মধ্যরাত থেকে সব ধরনের নির্বাচনি প্রচার-প্রচারণা বন্ধ হয়েছে।

ঢাকার অদূরে সাভার পৌরসভায় ভোটারের সংখ্যা সবচেয়ে বেশি। এখানে ভোটার সংখ্যা ১ লাখ ৮৮ হাজার ৮৮ জন এবং ভোট কেন্দ্র ৮৪ টি।

মেয়র পদে লড়ছেন আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের প্রার্থী আলহাজ্ব আব্দুল গণি, বিএনপির ধানের শীষ প্রতীকে আলহাজ্ব রেফাত উল্লাহ এবং ইসলামী আন্দোলনের হাতপাখা প্রতীকের মোশারফ হোসেন।

আব্দুল গণি ও রেফাত উল্লাহ দু'জনই মেয়র হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন এখানে। এর মধ্যে গত নির্বাচনে জিতেছিলেন আব্দুল গণি।

এবার ৯টি ওয়ার্ডে সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৩৯ জন এবং সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর পদে লড়ছেন ৯ জন। ভোটের প্রচারে এখানে অপ্রীতিকর কোনো ঘটনাই ঘটেনি। ফলে বাড়তি কোনো উত্তেজনা নেই।

গত তিন সপ্তাহে আনুষ্ঠানিক প্রচারে এখানে আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা ছিলেন একনিষ্ঠ। পথসভা, মিছিল, দল বেঁধে ভোটারদের দুয়ারে দুয়ারে যাওয়ার পাশাপাশি পোশাক শ্রমিকদেরকে ঘিরে আলাদা প্রচার চালানো হয়েছে।

এই এলাকায় ভোটারদের একটি বড় অংশই পোশাক শ্রমিক, যারা দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে চাকরির সূত্রে এখানে বসবাস করেন। সে তুলনায় বিএনপির নেতা-কর্মীরা মাঠে সক্রিয় ছিলেন কম।

নির্বাচনের পরিস্থিতি আর প্রত্যাশা নিয়ে জানতে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী আলহাজ্ব আব্দুল গণির নম্বরে যোগাযোগ করলে কল ধরেন তার ছেলে আশুলিয়া থানা যুবলীগের আহ্বায়ক ফারুক হোসেন তুহিন। তিনি বলেন, আব্বু একটু বিশ্রামে। নির্বাচন নিয়ে আমাদের কোনো অভিযোগ নেই। আমরা ভোটারের রায়ের অপেক্ষায় আছি।

কথা হয়েছে ধানের শীষের প্রার্থী রেফাত উল্লাহর সঙ্গে। তবে তিনি সরাসরি কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি। তিনি বলেন, আজকে প্রচার প্রচারণা বন্ধ। তাই আজকে কোনো কমেন্টস করব না।

ভোট নিয়ে কোনো অভিযোগ আছে কি না- জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমি এই বিষয়ে কোনো কথাই বলব না। হাতপাখা মার্কার অপর প্রার্থী মোশারফ হোসেনকে ফোন করে পাওয়া যায়নি।

রিটার্নিং অফিসার মনির হোসাইন খান বলেন, নির্বাচনের সার্বিক অবস্থা ভালো। এখনও আমাদের কাছে কোনো অভিযোগ আসেনি। এখানে লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড আছে। কেন্দ্র বেশি বলে সেখানে নিরাপত্তা কর্মী থেকে শুরু করে ভোট গ্রহণ কর্মকর্তা-সবই বেশি।

কোনো কেন্দ্র নিয়ে শঙ্কা আছে কি না, বা কোনো কেন্দ্র ঝুঁকিপূর্ণ কি না, জানতে চাইলে তিনি বলেন, এখানে সব কেন্দ্রকে সমানভাবে গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে। আমরা আজ সকালে নির্বাচনের সার্বিক দিক নিয়ে আলোচনা করেছি। প্রতিটি কেন্দ্রে নির্বাচনের সামগ্রী পৌঁছে গেছে।

নিরাপত্তা পরিস্থিতি নিয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, এখানে তিনজন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আছেন। বিজিবিসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা মোতায়েন আছেন। কোনো ঘটনা ঘটলে আমাদের ব্যবস্থা নেয়ার সক্ষমতা আছে।

সাভার মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এ এফ এম সায়েদ জানান, তারা এক হাজার দুইশ পুলিশ প্রস্তুত রেখেছেন ভোটের দিনের নিরাপত্তার জন্য।
এই এলাকায় প্রথমবারের মতো ভোট হবে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন বা ইভিএমে। এ নিয়ে ভোটারদের মধ্যে উৎসাহ উদ্দীপনা বিরাজ করছে।

ঢাকা, ১৬ জানুয়ারি (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//বিএসসি

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।