অস্ট্রেলিয়ায় নর্থ সাউথের সাবেক ছাত্রীর যে কারণে ৪২ বছর জেল!


Published: 2019-06-06 14:20:05 BdST, Updated: 2019-12-08 21:31:42 BdST

লাইভ ডেস্ক: মোমেনা সোমা। তিনি বাংলাদেশী শিক্ষার্থী। উচ্চ শিক্ষার জন্য অস্ট্রেলিয়ায় পাড়ি জমান। ২৬ বছর বয়সী এই তরুণী গিয়েছেন হিজাবের বেশে। কিন্তু গিয়ে বনে যান আধুনিক। জীবন বদলে দেন। কিন্তু এমনটি হলো এর নেপথ্যে কি অন্য কিছু কাজ করেছে নাকি তিনি আসলেই বিপথগামি হয়ে যান এমনি থেকেই। এনিয়ে রয়েছে বিস্তর বিতর্ক।

অস্ট্রেলিয়ার পুলিশের সরল ভাষ্য সোমা জড়িয়ে পড়েন জঙ্গি সংগঠনের সঙ্গে। ২০১৮ সালের ১ ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশ থেকে স্টুডেন্ট ভিসায় অস্ট্রেলিয়ায় যান সোমা। বাকিটা সময় অন্ধকার জগতের সঙ্গেই কাটে বলে ধারণা পুলিশ ও গোয়েন্দাদের।

সোমার নথিপত্র

 

জানাগেছে অস্ট্রেলিয়ায় বাংলাদেশি ওই সোমাকে ৪২ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে দেশটির আদালত। বুধবার ভিক্টোরিয়া রাজ্যের সুপ্রিম কোর্টের বিচারক লেসলি টেইলর এই রায় দেন।
কারাদণ্ড পাওয়া শিক্ষার্থীর পুরো নাম মোমেনা সোমা। তার বাড়ি নারায়ণগঞ্জে। তিনি বেসরকারি নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ইংরেজি সাহিত্যে পড়াশোনা শেষ করেন।

তার স্বপ্ন ছিল উচ্চ শিক্ষায় শিক্ষিত হয়ে দেশে ফিলে মানুষের জন্যে কিছু করবেন। কিন্তু সেটা আর হলো না। অস্ট্রেলিয়ায় গিয়ে তিনি বাড়ি ভাড়া নেন। সংশ্লিস্টরা জানান মেলবোর্নের একটি বাড়িতে উঠেন। কিন্তু ওই বাড়ির মালিক ভাল ছিল না। তাকে নানান ভাবে উত্যক্ত করতো। তিনি লজ্জায় ভয়ে কিছু বলতে পারতেন না।

পুলিশ জানিয়েছে ২০২৮ সালের ১০ ফেব্রুয়ারি অস্ট্রেলিয়ার মেলবোর্নে বাড়ির মালিককে ছুরিকাঘাত করার অভিযোগে গ্রেফতার হন মোমেনা সোমা। স্টুডেন্ট ভিসায় অস্ট্রেলিয়া যাওয়ার ৯ দিনের মাথায় তিনি এই ঘটনা ঘটান।

জানা গেছে ভিক্টোরিয়া রাজ্যের কারাবিধি অনুযায়ী, সোমাকে কমপক্ষে ৩১ বছর ছয় মাস কারাগারে থাকতে হবে। এরপরেই তিনি প্যারোলের আবেদন করতে পারবেন। এর আগে তাকে থাকতে হবে কারাগারে বন্দি হিসেবে। পুলিশ তাকে জঙ্গি প্রমানের চেষ্ঠা করছে বলে অভিযোগ সোমার।

দেশটির পুলিশ জানায়, ২০১৮ সালের ১ ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশ থেকে স্টুডেন্ট ভিসায় অস্ট্রেলিয়ায় যান সোমা। সেখানে গিয়ে মেলবোর্নে রজার সিংগারাভেলু নামের এক ব্যক্তির বাড়ি ভাড়া নেন। এরপর ৯ ফেব্রুয়ারি রজারকে হত্যার উদ্দেশ্যে ছুরিকাঘাত করেন।

মোমেনা সোমা

 

এ ঘটনার পরই তাকে গ্রেফতার করা হয়। অস্ট্রেলীয় পুলিশের অভিযোগ, জঙ্গি সংগঠন আইএসের মতাদর্শে উদ্বুদ্ধ ছিলেন মোমেনা সোমা। ওই ঘটনার পর রাজধানী মিরপুরের কাজীপাড়ায় সোমাদের বাসায় যায় ডিএমপির কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের একটি দল।

সেদিন ইউনিটের এক কর্মকর্তার উপর ছুরি নিয়ে আক্রমণ চালান সোমার ছোট বোন আসমাউল হুসনা সুমনা। বিষয়টি নিয়ে অধিকতর তদন্ত চান সোমার পরিবার।
তাদের দাবী তারা যে কোন কারণেই হোক ফেঁসে যাচেছন। তাদের সঙ্গে কেউ হয়তো শত্রুতামি করছে।

ঢাকা, ৬ জুন (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//বিএসসি

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।