জামিয়ার লাইব্রেরিতে পুলিশি তাণ্ডব, ভিডিও প্রকাশ


Published: 2020-02-16 21:01:30 BdST, Updated: 2020-08-03 21:11:08 BdST

লাইভ ডেস্কঃ দিল্লির জামিয়া মিলিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের লাইব্রেরিতে পুলিশি তাণ্ডবের একটি ভিডিও ক্লিপ প্রকাশিত হয়েছে। প্রকাশ পাওয়া ওই ভিডিওতে দেখা যায়, একদল পুলিশ লাইব্রেরিতে ঢুকেই পড়াশোনায় মগ্ন থাকা শিক্ষার্থীদের উপর তাণ্ডব চালায়।

২ মাস পূর্বের ওই ভিডিও প্রকাশ পাওয়ার পরে দিল্লি পুলিশের ভূমিকা নিয়ে আবারও উঠেছে বিভিন্ন প্রশ্ন। বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়া এবং সাবেক শিক্ষার্থীদের নিয়ে গঠিত জামিয়া কো-অর্ডিনেশন কমিটির পক্ষ হতে সোশ্যাল মিডিয়ায় ৪৯ সেকেন্ডের ওই ভিডিও ক্লিপটি প্রকাশ করা হয়েছে।

লাইব্রেরির সিসিটিভি ফুটেজেই শিক্ষার্থীদের উপর নির্যাতনের ওই দৃশ্য ধরা পড়েছে। এসময় তাদের উপর নির্যাতনের পাশাপাশি লাঠি উঁচিয়ে পুলিশ তাদের শাসাতেও দেখা গেছে।

জামিয়া কো-অর্ডিনেশন কমিটির পক্ষ থেকে বিবৃতি প্রকাশ করে বলা হয়েছে, এই সিসিটিভি ফুটেজটি শিক্ষার্থীদের উপর পুলিশি নৃশংসতার প্রমাণ। এতে এইটাই প্রমাণিত হয় যে, রাষ্ট্রের পোষা সন্ত্রাসবাদীরা লাইব্রেরিতে ঢুকে পরীক্ষার জন্য প্রস্তুতি গ্রহণকারী শিক্ষার্থীদের ওপর কীভাবে নৃশংস নির্যাতন চালিয়েছে।

এ বিষয়টি নিয়ে তদন্ত করা হচ্ছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

প্রকাশিত ওই ভিডিও দেখে দিল্লি পুলিশের নিন্দা জানিয়ে কংগ্রেস নেত্রী প্রিয়াঙ্কা গান্ধী তার টুইটারে তিনি লেখেন, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এবং দিল্লি পুলিশের কর্মকর্তারা মিথ্যা বলেছিলেন। এই ভিডিও সামনে আসার পরেও জামিয়ার ঘটনায় কারো বিরুদ্ধে পদক্ষেপ গ্রহণ করা না হলে এই সরকারের অভিসন্ধি সবার কাছে পরিষ্কার হয়ে যাবে।

ভিডিও দেখতে নিচের লিঙ্কটিতে ক্লিক করুন:

https://twitter.com/Jamia_JCC/status/1228772837583753216

সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন (সিএএ) এবং জাতীয় নাগরিক পঞ্জি (এনআরসি)-র বিরুদ্ধে আন্দোলন চলাকালীন গত ১৫ ডিসেম্বর বিক্ষোভে উত্তাল হয়ে ওঠে দক্ষিণ দিল্লির জামিয়া এবং ওখলা এলাকা। এ সময় শতাধিক মোটর বাইক, অন্তত তিনটি বাসে আগুন ধরিয়ে দেয় উত্তেজিত জনতা। পুলিশ গেলে তাদের সঙ্গেও ব্যাপক দ্বন্দ্বের সৃষ্টি হয়। সেই বিক্ষোভের আঁচ কমতেই জামিয়া মিলিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে ঢুকে শিক্ষার্থীদের বেধড়ক নির্যাতনের অভিযোগ ওঠে পুলিশের বিরুদ্ধে।

এ প্রসঙ্গে শিক্ষার্থীরা অভিযোগ জানান, শুধু লাঠিপেটা করাই নয়, গু*ও চালিয়েছিল পুলিশ। তবে এই বিষয়গুলো পুলিশ সবকিছু অস্বীকার করে আসছিল।

কিন্তু সামাজিক মাধ্যমে প্রকাশ পাওয়া ওই ভিডিওতে দেখা যায়, এক পুলিশ অফিসারকে গু* চালাচ্ছেন। এ অবস্থায় অভিযোগ মেনে নিয়ে দিল্লি পুলিশের পক্ষ হতে জানানো হয়, সে সময় বিক্ষোভকারীদের ভয় দেখানোর জন্য শূন্যে গু* ছোড়া হয়েছিল।

ঢাকা, ১৬ ফেব্রুয়ারি (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমজেড

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।