'ড্রোন হামলায় তেহরানের হাত ছিল না' পুতিন


Published: 2019-10-03 19:31:10 BdST, Updated: 2019-10-20 22:55:52 BdST

লাইভ ডেস্কঃ সৌদি আরবের দু’টি তেল শোধনাগারে সাম্প্রতিক সময়ে ড্রোন হামলার কারণে পশ্চিমা দেশগুলো ইরানকে দায়ী করার যে চেষ্টা করছে তা সরাসরি নাকচ করে দিয়েছেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন।

তিনি বলেন, আমেরিকা ওই ঘটনায় ইরানের জড়িত থাকার পক্ষে কোন রকম প্রমাণ দেখাতে পারেনি।

গতকাল রাজধানী মস্কোয় জ্বালানী বিষয়ক একটি সম্মেলনে পুতিন একথা জানান। রুশ প্রেসিডেন্ট বলেন, আমরা সৌদি তেল শোধানাগারে হামলার তিব্র নিন্দা জানাই। এর পক্ষে কোনো প্রমাণ নেই। তাই আমরা এর দায় ইরানের ওপর চাপানোর বিরোধিতা করি।

গত ১৪ সেপ্টেম্বর ইয়েমেনের হুথি বিদ্রোহীরা ঘোষণা দেয়, তারা ১০টি ড্রোন পাঠিয়ে সৌদি আরবের পূর্বাঞ্চলীয় আবকাইক ও খুরাইস তেল শোধনাগারে হামলা চালিয়েছে। ওই হামলায় তেল শোধানাগার দু’টির মারাত্মক ক্ষতি হয় এবং সৌদি আরবের তেল রফতানি অর্ধেকে নেমে আসে।

পুতিন বলেন, ইরানের প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি ব্যক্তিগতভাবে তাকে জানিয়েছেন যে, ওই হামলায় তেহরানের হাত ছিল না।

প্রায় গত পাঁচ বছর ধরে সৌদি আগ্রাসনের শিকার ইয়েমেনের হুথিরা ওই হামলার দায় স্বীকার করলেও ওয়াশিংটন ও রিয়াদ কোনো প্রমাণ উপস্থাপন ছাড়াই এর জন্য ইরানকে দায়ী করে। পরে জার্মানি, ব্রিটেন ও ফ্রান্স এবং ইরানকে দায়ী করা দেশগুলোর তালিকায় যোগ দেয়।

প্রেসিডেন্ট রুহানি গত শুক্রবার বলেন, যেসব ইউরোপীয় দেশ এখন তেহরানকে দায়ী করছে সেসব দেশের নেতারা সম্প্রতি নিউ ইয়র্কে তার সঙ্গে সাক্ষাতে বলেছেন, সৌদি তেল স্থাপনায় হামলার ঘটনায় কে বা কারা জড়িত তা তাদের জানা নেই।

ইরান এসব অভিযোগ সরাসরি প্রত্যাখ্যান করে বলেছে, সৌদি আগ্রাসনের মুখে আত্মরক্ষার অধিকার ইয়েমেনিদের রয়েছে এবং তারাই এ হামলা চালিয়েছে।

ঢাকা, ০৩ অক্টোবর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমজেড

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।