মিয়ানমারে খনিতে ভূমিধসে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১১৩


Published: 2020-07-02 15:45:16 BdST, Updated: 2020-08-08 12:24:41 BdST

লাইভ ডেস্কঃ মিয়ানমারের উত্তরাঞ্চলে জেড পাথরের একটি খনিতে ভূমিধসের পর নিহতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১১৩ জনে। এর আগে ৫০ জন নিহতের কথা জানানো হয়েছিল। নিউইয়র্ক টাইমসের খবরে বলা হয়, ভারি বর্ষণের মধ্যে শ্রমিকরা পাথর সংগ্রহ করার সময় আড়াইশ ফুট উঁচু বিশাল এক কাদার স্তূপ ধসে পড়ে। ফলে খনিতে জমে থাকা বৃষ্টির পানিতে জল-কাদার বিশাল ঢেউ সৃষ্টি হয় এবং বহু শ্রমিক তার নিচে চাপা পড়েন।

স্থানীয় এক পুলিশ কর্মকর্তা জানিয়েছেন, ভারী বৃষ্টিপাতের কারণে তল্লাশি ও উদ্ধার অভিযান আপাতত বন্ধ রয়েছে। এর আগে সেভেনডে নিউজ জার্নাল জানিয়েছে, ২০০ জন এখনও নিখোঁজ রয়েছে।

ফেসবুক পোস্টে ফায়ার সার্ভিস জানায়, ভারী বৃষ্টিপাতের কারণে জেড পাথর সংগ্রহকারীদের ওপর ভূমিধসে পড়ে। বিশ্বের সবচেয়ে বেশি জেড পাথর মজুদ রয়েছে মিয়ানমারে। কিন্তু সেখানে প্রায়ই অসংখ্য দুর্ঘটনা ঘটে থাকে।

ফেসবুকে পোস্ট করা ছবিতে দেখা গেছে, ভূমিধসের ঘটনাস্থলে তল্লাশি ও উদ্ধার অভিযান চালাচ্ছে দমকল বাহিনীর কর্মীরা।

এদিকে এই দুর্ঘটনার কারণে কারা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে সেটা এখনও স্পষ্ট নয়। লরি থেকে ফেলে পাথরের মধ্যে জেড পাথর খুঁজে পাওয়ার আশায় শত শত মানুষ ওই সাইটে জড়ো হয়। গত বছর বিভিন্ন জেড পাথরের খনিতে ১০০ জনের বেশি মানুষের মৃত্যু হয়।

প্রসঙ্গত, প্রতি বছর জেড পাথর বিক্রি করে ৩০ বিলিয়ন ডলারের বেশি আয় করে মিয়ানমার। আর হপাকান্তেই রয়েছে বিশ্বের সবচেয়ে বড় জেড পাথর খনি।

ঢাকা, ০২ জুলাই (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমজেড

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।