খুবিতে জিনিয়ার বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহারের দাবি


Published: 2019-09-17 23:20:34 BdST, Updated: 2019-10-19 06:49:09 BdST

খুবি লাইভ: দ্যা ডেইলি সান পত্রিকার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি ফাতেমা-তুজ-জিনিয়াকে ফেসবুকে অপপ্রচার চালানোর অভিযোগে সাময়িক বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহারের দাবিতে মানববন্ধন করেছে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের (খুবি) শিক্ষার্থীরা। একইসঙ্গে তারা আলোকিত বাংলাদেশ পত্রিকার বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি শামস জেবিনের ওপর হামলাকারীদের বিচারের দাবি জানান।

মঙ্গলবার খুবির গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা ডিসিপ্লিনের সাধারণ শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণে সকাল ১১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের হাদী চত্বরে অনুষ্ঠিত হয় এ মানববন্ধন। মানববন্ধনে বক্তারা জিনিয়ার বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার এবং শামসের ওপর হামলাকারীদের বিচারের দাবি জানান।

সাধারণ শিক্ষার্থীদের এ দাবির সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশ করে গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা ডিসিপ্লিনের শিক্ষক মো. শরিফুল ইসলাম বলেন, আমরা জিনিয়ার এ বহিষ্কারাদেশের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি। একইসঙ্গে বাংলাদেশ ক্যাম্পাস জার্নালিস্ট ফেডারেশন যে ৪৮ ঘণ্টার আল্টিমেটাম দেওয়া হয়েছে তা যদি মানা না হয় তাহলে আমরা আরও কঠোর আন্দোলনে যেতে বাধ্য হব।

জার্নালিজম ক্লাব খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের সভাপতি মতিউর রহমান বলেন, সারাদেশের সাংবাদিকরা একটি দেহের মতো। কারো শরীরে একটি অনৈতিক আঁচড়ও বরদাস্ত করা হবে না। তিনি আরও বলেন, জিনিয়ার বহিষ্কারাদেশ ও শামস জেবিনের ওপর হামলা ক্যাম্পাস সাংবাদিকতার ইতিহাসে একটি ন্যাক্কারজনক ঘটনা।

গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা ডিসিপ্লিনের শিক্ষার্থী জি এম জাহাঙ্গীর আলম বলেন, এ ঘটনা সাংবাদিকদের মুক্ত চিন্তার ওপর নগ্ন হস্তক্ষেপ। তিনি বশেমুরবিপ্রবি উপাচার্য খোন্দকার নাসিরউদ্দিনের স্বৈরাচারী মনোভাবের সমালোচনা করে বলেন, বশেমুরবিপ্রবি প্রশাসনকে শিক্ষার্থীদের গঠনমূলক সমালোচনা এবং মত প্রকাশের স্বাধীনতাকে মেনে নেওয়ার মতো মানসিকতা তৈরি করতে হবে।

একই বিভাগের শিক্ষার্থী তেহসিন আশরাফ প্রত্যয়ের সঞ্চালনায় মানববন্ধনে আরও উপস্থিত ছিলেন- গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা ডিসিপ্লিনের সহকারী অধ্যাপক মামুন অর রশিদ, সহকারী অধ্যাপক ছোটন দেবনাথ, প্রভাষক মাজিদুল ইসলাম মিঠু এবং সাধারণ শিক্ষার্থীরা।

ঢাকা, ১৭ সেপ্টেম্বর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমজেড

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।