অশুভ শক্তি বিনাশে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে: ভিসিযবিপ্রবিতে শুভ দীপাবলি উদযাপন


Published: 2019-10-28 20:23:44 BdST, Updated: 2019-11-19 03:25:45 BdST

যবিপ্রবি লাইভঃ যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (যবিপ্রবি) ভিসি প্রফেসর ড. মোঃ আনোয়ার হোসেন অশুভ শক্তি বিনাশে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ থাকার আহ্বান জানিয়ে বলেছেন, বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সকল অরাজকতা, অশুভ শক্তি দূর করতে হবে।

এ জন্য সকল শিক্ষক-শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা-কর্মচারীরা মিলে এক হয়ে থাকব। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দেশ গড়ার কাজ এগিয়ে নিতে তাঁর হাতকে শক্তিশালী করব।

গতকাল রোববার সন্ধ্যায় যবিপ্রবির প্রধান সড়কে শুভ দীপাবলি উপলক্ষে আয়োজিত মঙ্গল প্রদীপ প্রজ্জ্বলন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রফেসর ড. মোঃ আনোয়ার হোসেন এসব কথা বলেন। শুভ দীপাবলি উপলক্ষে যবিপ্রবির প্রধান ফটকের রাস্তার দুই পাশে বর্ণিল আলোকসজ্জা ও মঙ্গল প্রদীপ প্রজ্জ্বলন করা হয়।

প্রফেসর ড. মোঃ আনোয়ার হোসেন বলেন, ঈশ্বর কখনোই আমাদের সাহায্য করবে না, যতদিন না আমরা আমাদের সাহায্য করব। আমরা আমাদের সাহায্য করতে হলে ২০১৪ সালে রিয়াদ হত্যার মাধ্যমে যে অশুভ ছায়া পড়া শুরু হয়েছে, পরবর্তীতে টেন্ডারবাজি, চাকরিবাজি হয়েছে এর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে হবে।

বর্তমানে বিশ্ববিদ্যালয় একটি সুন্দর অবস্থানে এসেছে, যা গর্ব করার মতো। ছাত্র-শিক্ষক, কর্মকর্তা-কর্মচারী সকলের ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় আমরা এখানে নিয়ে এসেছি।

এ বিশ্ববিদ্যালয়কে ঐক্যবদ্ধভাবে সামনের দিকে নিয়ে যেতে হবে। তিনি বলেন, ২০১৪ সালের মতো আর কোনো ঘটনা যেন না ঘটে, সেদিকে সবার দৃষ্টি রাখতে হবে। অশুভ শক্তি দূর করার জন্য শুভ শক্তির যে একটা শক্তি আছে, সেটা দেখাতে হবে।

বিশ্ববিদ্যালয়ে রাজনীতি বন্ধ হয়নি উল্লেখ করে প্রফেসর ড. মোঃ আনোয়ার হোসেন বলেন, ‘আমি রাজনীতি বিমুখ ব্যক্তি নই। আমি রাজনৈতিক প্রক্রিয়ায় তৈরি একজন মানুষ। কিন্তু রাজনীতির নামে যে অপরাজনীতি হয়, এটার সমর্থন করার মানুষ আমি নই। এখানে রাজনীতির নামে যে অপরাজনীতি হয়, সেটাকে দূর করব। এ জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ে সকল ছাত্র-ছাত্রীদের সহযোগিতা চাই।

র‌্যাগিংয়ের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতির কথা উল্লেখ করে প্রফেসর ড. মোঃ আনোয়ার হোসেন বলেন, সামনে নতুনেরা আসবে। যদি কোনো নবীনের সাথে খারাপ ব্যবহার করা হয়, কোনো পরীক্ষার্থীর সাথে খারাপ ব্যবহার করা হয় কিংবা কাউকে র‌্যাগ দেওয়া হয়েছে, এটা প্রমাণ হলে তাঁর কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে। র‌্যাগিং চিরতরে এ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বন্ধ করা হয়েছে, এটা যেন আর ফিরে না আসে।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন যবিপ্রবির প্রক্টর প্রফেসর ড. শেখ মিজানুর রহমান, শহীদ মসিয়ূর রহমান হলের প্রভোস্ট প্রকৌশলী ড. মোঃ আমজাদ হোসেন, সহকারী প্রভোস্ট ড. সুজন চৌধুরী, গণিত বিভাগের সহকারী প্রফেসর সমীরণ মন্ডল,

অ্যাকাউন্টিং অ্যান্ড ইনফরমেশন সিস্টেমস বিভাগের অ্যাসিস্টেন্ট প্রফেসর সৌরভ চন্দ্র তালুকদার, পুষ্টি ও খাদ্য প্রযুক্তি বিভাগের অ্যাসিস্টেন্ট প্রফেসর রাজীব কান্তি রায়, যবিপ্রবি শাখা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আফিকুর রহমান অয়ন, শহীদ মসিয়ূর রহমান হল শাখা ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সোহেল রানা, শেখ হাসিনা ছাত্রী হলের সভাপতি শিলা আক্তার প্রমুখ।

ঢাকা, ২৮ অক্টোবর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমজেড

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।