ইবতেদায়ির সমাপনী পরীক্ষা নেবে মাদরাসা বোর্ড


Published: 2019-09-03 15:36:27 BdST, Updated: 2019-12-15 17:03:48 BdST

লাইভ প্রতিবেদক : ইবতেদায়ির সমাপনী পরীক্ষার সব দায়দায়িত্ব মাদরাসা শিক্ষা বোর্ডের কাছে হস্তান্তর করা হচ্ছে। জনবল সংকটের কারণ উল্লেখ্য করে ইবতেদায়ি শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষা প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অধীনে না নিয়ে মাদরাসা শিক্ষা বোর্ডের অধীনে অনুষ্ঠিত হবে।

গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় পরীক্ষাটি নেয়ার ব্যাপারে তাদের অনাগ্রহের কথা জানিয়ে এবং পরীক্ষাটি শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অধীনে হস্তান্তর করতে ইতোমধ্যেই শিক্ষা মন্ত্রণালয়কে চিঠি পাঠিয়েছেন।

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়সূত্র জানা গেছে, এতে এক ধরনের দ্বৈত ব্যবস্থা তৈরি হয়েছে। অপরদিকে প্রতি বছর সারাদেশ থেকে প্রায় ২৮ লাখ পরীক্ষার্থী পিইসি পরীক্ষায় অংশ নেয়। নিজস্ব শিক্ষা বোর্ড ও পর্যাপ্ত জনবল না থাকায় এ বিশাল কর্মযজ্ঞ সম্পন্ন করতে হিমশিম খাচ্ছে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়।

প্রশাসনিক কাজ বন্ধ রেখে প্রতি বছর এ পরীক্ষার আয়োজন করতে হচ্ছে। সব মিলিয়ে একটি পরীক্ষা আয়োজনই কঠিন হয়ে পড়েছে। ফলে আরেক মন্ত্রণালয়ের পরীক্ষা তাদের ওপর বাড়তি চাপ তৈরি করেছে। এসব কারণে ওই মন্ত্রণালয় পরীক্ষা শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে ফেরত দিতে চায়।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সচিব আকরাম-আল-হোসেন জানান, প্রতি বছর প্রায় ৩৪ লাখ শিক্ষার্থীর পঞ্চম শ্রেণির সমাপনী ও ইবতেদায়ি পরীক্ষা আয়োজন করতে হচ্ছে। খাতা মূল্যায়ন ও ফলাফল প্রকাশ করতে হয়। এতে আমাদের নিয়মিত কার্যক্রম নির্ধারিত সময়ে শেষ করা অসম্ভব হয়ে পড়ে।

তিনি আরো বলেন, অন্যদিকে মাদরাসা শিক্ষার জন্য একটি বোর্ড আছে। তারা পরীক্ষা নেয়ার ব্যাপারে অনেক দক্ষ। তারা পরীক্ষাটি নিলে আমাদের কাজে সেটা আরও স্বস্তিদায়ক হবে। বিষয়টি নিয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয়কে জানানো হয়েছে।

এ ব্যাপারে কারিগরি ও মাদরাসা বিভাগের সচিব মুন্সি শাহাবুদ্দীন আহমেদ জানান, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে একটা চিঠি এসেছে। আলাপ-আলোচনা করে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

মাদরাসা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান প্রফেসর কায়সার হোসেন বলেন, ইবতেদায়ি পরীক্ষা আমাদের দেয়া হলে তা গ্রহণে কোনো সমস্যা হবে না।

ঢাকা, ০৩ সেপ্টেম্বর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম.কম)//এমআই

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।