বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে মাদ্রাসা ছাত্রীকে...


Published: 2020-02-01 01:38:57 BdST, Updated: 2020-08-04 23:22:58 BdST

মৌলভীবাজার লাইভঃ এবার কমলগঞ্জে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে এক মাদ্রাসা ছাত্রীকে (১৮) লালসা মেটানোর অভিযোগ পাওয়া গেছে। লালসার শিকার ওই ছাত্রী বর্তমানে মৌলভীবাজার ২৫০ শষ্যা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

মাদ্রাসা ছাত্রীকে লালসার সমাপ্তির পর আব্দুস সালাম (২২) নামে এক যুবককে আটক করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার বিকালে উপজেলার রাজকান্দি গ্রামের ফারুক মিয়ার বাড়ি থেকে সালামকে আটক করা হয়। আটক সালাম রাজকান্দির বড়খোলা গ্রামের তাজর মিয়ার ছেলে। তাকে বখাটে হিসেবেই এলাকাবাসী চেনে।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, কমলগঞ্জ উপজেলার আলীনগর ইউনিয়নের বড়খোলা গ্রামের তাজর মিয়ার বিবাহিত ছেলে আব্দুস সালাম গত ২২শে জানুয়ারি রাতে পার্শ্ববর্তী চিৎলীয়া গ্রামের মাদ্রাসায় পড়ুয়া ওই ছাত্রীকে বাড়ি থেকে ফুসলিয়ে তুলে নিয়ে লালসা মেটায়।

ওই শিক্ষার্থী স্থানীয় একটি মাদ্রাসার চলতি বছরের দাখিল পরীক্ষার্থী। ঘটনাটি জানাজানি হলে স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও এলাকার গন্যমান্যরা মিলে ঘটনাটি ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা করেন বলে মেয়েটির বাবা অভিযোগ করেন।

এ বিষয়ে মাদ্রাসা ছাত্রীর বাবা ৩০ জানুয়ারি বৃহস্পতিবার দুপুরে কমলগঞ্জ থানায় মৌখিক অভিযোগ করলে কমলগঞ্জ থানার ওসির নির্দেশে ওইদিন বিকালে এএসআই আনিছুর রহমান ও রিপন সরকারের নেতৃত্বে অভিযুক্ত লম্পট আব্দুস সালামকে আটক করা হয়।

স্থানীয় ইউপি সদস্য শামীম আহমেদ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, মেয়েটি বর্তমানে মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। কমলগঞ্জ থানার ওসি আরিফুর রহমান বলেন, মাদ্রাসার ছাত্রীকে এসব করার পর মৌখিক অভিযোগই তাৎক্ষনিক অভিযোক্ত যুবককে আটক করা হয়।

ঢাকা, ৩১ জানুয়ারি (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এজেড

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।