রামেকে শিক্ষককে মারধর, মুচলেকায় মুক্তি পেলেন ইন্টার্ন ডাক্তাররা


Published: 2020-09-25 20:40:37 BdST, Updated: 2020-10-31 11:04:31 BdST

রাজশাহী লাইভ: শিক্ষানবিশ চিকিৎসকদের দৌরাত্ব বাড়ছে। তারা রোগী ও তাদের স্বজনদের সাথে হরহামেশাই নানান অনাহুত ঘটনা ঘটিয়েই চলেছেন। বিষয়টি এখন গোটা জেলায় ওপের সিক্রেট। জানা গেছে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে এসে লাঞ্ছিত হয়েছেন এক শিক্ষক।

শুক্রবার দুপুরের এ ঘটনায় পরে মামুনুর রশীদ রিপন নামের ওই শিক্ষকের কাছ থেকে জোর করে মুচলেকা আদায় করেন শিক্ষানবিশ চিকিৎসকরা। এর আগে গত ২ সেপ্টেম্বর অবহেলায় রোগী মৃত্যুর জেরে মুক্তিযোদ্ধা ও তার ছেলেকে লাঞ্ছিত করেন শিক্ষানবিশ চিকিৎসকরা।

তবে সেই ঘটনায় মামলা দায়ের করেছেন মুক্তিযোদ্ধা। দোষীদের শাস্তির দাবিতে শুরু হয় আন্দোলন। পরে ক্ষমা চেয়ে সেই যাত্রায় চিকিৎসকরা রক্ষা পান। ভুক্তভোগী মামুনুর রশীদ রিপন রাজশাহী নগরীর বঙ্গবন্ধু কলেজের অর্থনীতি বিভাগের প্রভাষক।

শারীরিক সমস্যা নিয়ে বৃহস্পতিবার রামেক হাসপাতালের চার নম্বর ওয়ার্ডে ভর্তি হয়েছেন তিনি। আনসার সদস্যদের দিয়ে তাকে পেটানো হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন ওই শিক্ষক। তিনি বলেন, বৃহস্পতিবার ভর্তির পর তিনি কোনো চিকিৎসা পাননি।

একজন নার্সকে বিষয়টি জানিয়েছিলেন। এ কারণে শুক্রবার একজন চিকিৎসক ওয়ার্ডে গেলে তিনি তাকে জানান যে তারও একজন বন্ধু চিকিৎসক। আর এ কথা শুনেই ওই চিকিৎসক ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন।

তিনি ইন্টার্ন চিকিৎসকদের ডেকে আনেন। ইন্টার্নরা ডাকেন আনসার সদস্যদের। তারা ওই শিক্ষকের গায়ে হাত তোলেন। শিক্ষক রিপন জানান, আমি একজন রোগী। সেখানে আমাকেই যদি মারধর করা হয় তাহলে এটা কোন হাসপাতাল? এসব দেখার কী কেউ নেই?

তিনি আরো জানান, মারধরের পর উল্টো তার কাছ থেকেই মুচলেকা নেয়া হয়েছে। মুচলেকার কাগজে লেখা ছিল, রিপন চিকিৎসকদের সঙ্গে অশ্লীল ও অসাদাচরণ করেছেন। স্বাক্ষর করতে না চাইলে জোর করে মুচলেকার কাগজে তার টিপসই নেয়া হয়েছে।

এ বিষয়ে তিনি আইনগত পদক্ষেপ গ্রহণের কথা ভাবছেন বলেও জানান। হাসপাতালের উপ-পরিচালক ডা. সাইফুল ফেরদৌস বলেন, তিনি বিষয়টি এখনও জানেন না। এ ব্যাপারে খোঁজখবর নিয়ে দেখবেন বলেও জানান।

বিষয়টি নিয়ে গোটা এলাকায় তোলপাড় চলছে। হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল জামিলুর রহমানকে কল দেয়া হলে তিনি ফোন ধরেননি। বার বার চেষ্ঠা করেও তাকে পাওয়া যায়নি।

ঢাকা, ২৫ সেপ্টেম্বর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এআইটি

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।