লিফট কিনতে ইউরোপ যাত্রাঃ জাককানইবিতে মিশ্র প্রতিক্রিয়া


Published: 2019-10-05 20:39:48 BdST, Updated: 2019-10-20 22:08:34 BdST

জাককানইবি প্রতিনিধিঃ বিশ্ববিদ্যালয়ের নতুন ভবনের জন্য লিফট কিনতে ও পরীক্ষা-নিরীক্ষা করতে ১০ দিনের জন্য ইউরোপের দুই দেশ সুইজারল্যান্ড ও স্পেন সফরে যাচ্ছেন জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকসহ নয় জন প্রতিনিধি দল।

তবে তাদের মধ্যে সাত জনেরই নেই কারিগরি জ্ঞান। আর নয় সদস্যের মধ্যে দুজন প্রকৌশলী থাকলেও তাদেরও নেই লিফট সংক্রান্ত পূর্ব অভিজ্ঞতা। এমন সংবাদ প্রচারে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক শিক্ষার্থীদের মাঝে দেখা গিয়েছে মিশ্র প্রতিক্রিয়া।

বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী আদিবা খান সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এক স্ট্যাটাসে জানান, কোন হাই কোয়ালিটি প্রোডাক্ট বিদেশ থেকে আনার আগে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের ট্যুর হয়, এমনকি সেটা লিফট হলেও হতে পারে।

আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য যখন এতো টাকার লিফট আনা হচ্ছে সেখানেও এমন ট্যুর হতেই পারে, কিন্তু কথা হচ্ছে কতটা কোয়ালিটি সম্পন্ন আর কোন দেশ থেকে আনা হবে। এই বিষয় টা যেভাবে খবরে আসছে সেভাবে না আসলেই বরং ভাল লাগতো।

বিশ্ববিদ্যালয়ের আরেক শিক্ষার্থী হামিদুর রহমান সুমন প্রতিবেদক কে জানান, লিফট খুব-ই স্পর্শ কাতর বিষয়। আমাদের জীবন মরণের প্রশ্ন। এখানে লিফট কিনতে যে ৯ সদস্যের টিম ইউরোপ যাচ্ছে সেখানে আমি দোষের কিছু দেখছিনা।

উনারা সশরীরে লিফট দেখে যাচাই করে তারপর কিনবেন। এখানে একটি মহল উদ্দেশ্যে মূলক ভাবে ভিসি স্যার এবং শিক্ষক দের হেয় প্রতিপন্ন করছে এবং কতিপয় ছাত্রছাত্রী না জেনেই নানান মন্তব্য করছে।

তবে খোদ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকরাই বলছেন, প্রাক চালান পরিদর্শন বা প্রি-শিপমেন্ট ইন্সপেকশন হিসেবে ইউরোপের দুই দেশে সফরকারীরা কেউই এই বিষয়ে অভিজ্ঞ নন। তাই এর স্বচ্ছতা নিয়েও বিভিন্ন প্রশ্ন তুলেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক নেতারা।

জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক রফিকুল আমিন বলেন, ‘আমার প্রশ্ন হচ্ছে ইন্সপেকশন যে কমিটি সেখানে এক্সপার্ট মেম্বার আছে কিনা।

লিফট এনালাইসিস করার জন্য যে এক্সপার্ট প্রয়োজন আমার জানা মতে যারা যাচ্ছেন সেখানে সেই এক্সপার্টরা নাই। তাহলে কোন উদ্দেশ্যে যাওয়া হচ্ছে। এক্সপার্ট ছাড়া যদি লিফট কিনতে যাওয়া হয় তাহলে মূল উদ্দেশ্যই অর্জন হবে না’।

এদিকে ভিসি জানিয়েছেন, তিনি এই সফর বাতিল করেছেন। তবে লিফট কেনার চুক্তির সময় এই বিদেশ সফরের কথা উল্লেখ ছিলো তাই ক্রয় কমিটির সদস্যরা যাচ্ছেন।

তিনি বলেন, ‘লিফটগুলো সাপ্লাই দিবে সুইজারল্যান্ড ও স্পেনের দুটি ফার্ম। তাদের চুক্তিই ছিলো ভিসিসহ লোকাল প্রজেক্ট ইমপ্লিম্যানটেশন কমিটির সদস্যরা দুটি লিফটের জন্য একজন করে যাবে। সাপ্লাইয়ের আগে যাচাই-বাছায়ের জন্য এ টিমকে তারা আমন্ত্রণ জানায়।

এটি একদম বিধি সম্মত। কিন্তু আমার কাছে মনে হয়েছে আমি কোনো টেকনিক্যাল পার্সন নই। আমি তো লিফটের ভাল মন্দ কিছু বুঝি না। শুধু দেশ ভ্রমণের জন্য যাওয়া ঠিক হবে না। তাই আমি মনে করেছি আমার না যাওয়াটাই উচিত তাই আমি যাচ্ছি না’।

ক্রিয়েটিভ ইঞ্জিনিয়ার্সের এরিয়া মার্কেটিং অফিসার জুবায়ের আহমেদ রিজভী জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ে লিফট সরবরাহের কথা নিশ্চিত করে জানান, এই বিশ্ববিদ্যালয় ৫৫০০৩ (বাণিজ্যিক) মডেলের দুই ক্যাটাগরির লিফট কিনবে।

১০০০ কেজির একটি ক্যাটাগরির প্রতিটি লিফট সুইজারল্যান্ড থেকে আনতে খরচ পড়বে প্রায় ৫৮ লাখ টাকা। আর ১২৫০ কেজির আরেক ক্যাটাগরির জন্য খরচ হবে ৭৫ লাখের কাছাকাছি।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা গেছে, বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজবিজ্ঞান ও ব্যবসা অনুষদের জন্য ১০ তলা করে দুটি ভবনসহ চলছে অন্যান্য নির্মাণ কাজ। প্রকল্পে বিভিন্ন ভবনের জন্য সব মিলিয়ে ১৫টি লিফট কেনা হচ্ছে প্রায় ১৩ কোটি টাকা ব্যয়ে। সেই লিফট সরবরাহ করছে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান ক্রিয়েটিভ ইঞ্জিনিয়ার্স।

প্রি-শিপপেমন্ট ইন্সপেকশনের জন্য চলতি মাসের ২০ থেকে ২৯ তারিখ পর্যন্ত ওই দুই দেশে সফরে থাকবেন বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি দল। এসময় তাদের বিমান ভাড়া থেকে যাবতীয় খরচ মেটাবে লিফট সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান ক্রিয়েটিভ ইঞ্জিনিয়ার্স।

ঢাকা, ০৫ অক্টোবর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমজেড

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।