ফুটবলার আঁখি পাচ্ছে কোটি টাকার জমি!


Published: 2019-04-20 15:39:01 BdST, Updated: 2019-09-15 14:36:51 BdST

স্পোর্টস লাইভ: প্রায় ১ কোটি টাকা মূল্যের বাড়ি তৈরির জন্য জমি পাচ্ছে জাতীয় মহিলা ফুটবল দলের গোল্ডেন বুট জয়ী সেরা খেলোয়াড় আঁখি খাতুন। সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর উপজেলার পৌর শহরের মণিরামপুর গ্রামে ৫ শতক জমি বরাদ্দ দিতে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। খবর এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে আঁখির পরিবারসহ গোটা এলাকায় আনন্দে ভাসছে।

এবিষয়ে আঁখির বাবা আক্তার হোসেন বলেন, পৈতৃক সূত্রে পাওয়া তার মাত্র এক শতক বাড়ির জমির ওপর দোচালা একটি টিনের ঘর জীর্ণ ঘর ছাড়া তার আর কোনো সহায়সম্বল নেই। এ জীর্ণ ঘরেই দক্ষিণ এশিয়ার সেরা নারী ফুটবলার আঁখির জন্ম ও বেড়ে ওঠা। তার একমাত্র ভাই নাজমুল হোসেন বাবা-মাকে নিয়ে এখনও এ জীর্ণ কুটিরে বসবাস করেন।

এছাড়াও তিনি আরো বলেন, একটি সংস্থা আঁখিকে একটি পাকা ভবন তৈরি করে দেয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করেন। সংস্থাটির পক্ষ থেকে জানানো হয়, আঁখি জমির ব্যবস্থা করতে পারলে তারা ভবন নির্মাণ করে দেবেন। কোনো উপায়ান্তর না দেখে তিনি সিরাজগঞ্জ জেলা প্রশাসক বরাবর জমির জন্য আবেদন করেন।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নাজমুল হুসেইন খান জানান, ফুটবলার আঁখির পরিবারের নিজস্ব কোনো বাড়ি নেই। তার বাবা আক্তার হোসেন ওয়ারিশ সূত্রে পাওয়া মাত্র এক শতক জায়গাতে পরিবার নিয়ে বসবাস করেন। তাই জেলা প্রশাসক বরাবর তিনি বসবাসের জমি চেয়ে আবেদন করেন। তার আবেদনের প্রেক্ষিতে আমরা পৌর এলাকার মনিরামপুর বাজার এলাকায় প্রায় এক কোটি টাকা মূল্যের ৫ শতক জমি আঁখির জন্য নির্ধারণ করেছি।

অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) ইফতেখার উদ্দিন শামীম জানান, গত ১১ এপ্রিল ফুটবলার আঁখির একটি আবেদন আমরা পেয়েছি। জমি পাওয়ার অধিকার তার আছে। সবেমাত্র আবেদনটা করেছে, এখনো সিদ্ধান্ত হয়নি। তবে জমি আছে দেয়া যাবে।

উল্লেখ্য, বঙ্গমাতা গোল্ডকাপ ফুটবলে শাহজাদপুর ইব্রাহিম বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের হয়ে খেলে উঠে আসে আঁখি। তাজিকিস্তানে এএফসি অনূর্ধ্ব-১৪ আঞ্চলিক ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপে প্রথম খেলে আঁখি। সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ নারী ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে ভারতকে ১-০ গোলে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয় বাংলাদেশ। এ টুর্নামেন্টে সেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হয়ে আঁখি খাতুন গোল্ডেন বুট জিতেছিলেন।

 

ঢাকা, ২০ এপ্রিল (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমআই

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।