বিচার ছাড়া হত্যাকাণ্ড বন্ধের দাবি


Published: 2020-08-07 23:46:54 BdST, Updated: 2020-09-28 15:52:35 BdST

লাইভ প্রতিবেদক: পুলিশের গুলিতে সাবেক সেনা কর্মকর্তা নিহতের ঘটনায় ফের আলোচনায় এসেছে বিচার ছাড়া হত্যাকাণ্ড। বিচার ছাড়া হত্যাকাণ্ড বন্ধের দাবি জানিয়েছেন দেশের বিশিষ্টজন। ‘ক্রসফায়ার’ বা তথাকথিত ‘বন্দুকযুদ্ধ’।

গত দুই বছর আগে ক্রসফায়ার বা তথাকথিত বন্দুকযুদ্ধে টেকনাফের পৌর কাউন্সিলর একরামকে হত্যা করা হয়। শুরু হয় দেশজুড়ে সমালোচনার ঝড়।

জানা গেছে, বিচার ছাড়া হত্যাকাণ্ড বন্ধের দাবি জানান অপরাধ বিশেষজ্ঞ ডক্টর জিয়া রহমান। অপরদিকে, মানবাধিকার রক্ষায় ক্রসফায়ার বন্ধ করা জরুরি বলে মত দিয়েছেন সাংবাদিক ও কলামিস্ট সৈয়দ আবুল মকসুদ।

বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের সময় ২০০৪ সালে র‌্যাব গঠনের পর সন্ত্রাস দমনের নামে শুরু হয় ক্রসফায়ার। একের পর এক মারা পড়ে অনেক শীর্ষ সন্ত্রাসী। এরপর সময়ের পরিক্রমায় পুলিশের অন্যান্য শাখাগুলোও এতে জড়িয়ে পড়ে। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর দাবি করা ‘ক্রসফায়ার, ‘বন্দুকযুদ্ধ’, ‘গুলিবিনিময়’, ‘এনকাউন্টারে’ প্রতি বছর প্রাণ হারাচ্ছেন শত শত মানুষ।

সাংবাদিক ও কলামিস্ট সৈয়দ আবুল মকসুদ জানান, আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কাজ হলো যদি কেউ অপরাধ করে থাকে অথবা সন্দেহভাজন কোনো ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করে আদালতে সমর্পণ করা। কিন্তু সেটা না করে যেখানে-সেখানে রাস্তাঘাটে অথবা বাড়ি থেকে ধরে নিয়ে এইভাবে হত্যা করা হচ্ছে। এর ফলে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর কতিপয় সদস্য অপরাধ প্রবণতায় জড়িয়ে পড়ছে। যেটা রাষ্ট্রের ভাবমূর্তিকে চরমভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করছে।

অপরাধ বিশেষজ্ঞরাও বলছেন, ‘ক্রসফায়ার’র নামে হত্যা করে অপরাধ নির্মূল করা সম্ভব নয়। এ জন্য দরকার সামাজিক সচেতনতা ও মূল্যবোধের চর্চা করা।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অপরাধ বিজ্ঞান বিভাগের প্রফেসর জিয়া রহমান বলেন, যে কোনো বিচারেই ক্রসফায়ার যুক্তিযুক্ত কোনো সমাধান নয়। সেই কারণে আমরা বলছি যে, দীর্ঘ পরিকল্পনার মধ্য দিয়ে আমাদের প্রিমিয়াম জাস্টিস সিস্টেমকে আরও শক্তিশালী করতে পারি। আইনের শাসন প্রতিষ্ঠার প্রিজমটাকে যদি একটা কারেকশন সেন্টারে রূপান্তরিত করতে পারি। এটা একদিনে হবে না কিন্তু আমরা ধীরে ধীরে ক্রসফায়ার নামক বীভৎস পথ থেকে মুক্তি পেতে পারি।

আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর হেফাজতে থাকা ব্যক্তিদের এমন হত্যাকাণ্ড বন্ধ করতে সরকারকে কঠোর হওয়ার পাশাপাশি আইনের শাসনকে জোরদার করার আহ্বান জানান তারা।


ঢাকা, ০৭ আগস্ট (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমআই

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।