34775

ঢাবির মৎস্যবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থীর পরিবারের উপর সন্ত্রাসী হামলা

ঢাবির মৎস্যবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থীর পরিবারের উপর সন্ত্রাসী হামলা

2020-07-27 12:44:06

ঢাবি লাইভঃ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) মৎস্যবিজ্ঞান বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী নুর হাসান এর পরিবারের সদস্যের ওপর সন্ত্রাসী হামলার অভিযোগ উঠেছে।

ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীর বাড়ি নেত্রকোনা জেলা সদর ৪নং সিংহের বাংলা ইউনিয়নের রায়দুম রুহী গ্রামে। প্রতিবেশী কিছু স্বার্থানেশী মানুষ তাদের পরিবারের জায়গাজমি কেড়ে নিতে চেয়েছিল। এ নিয়ে আগে তাদের মধ্যে বিবাদ সৃষ্টি হলে পুলিশ সমস্যাটি মিমাংসা করে দেয়।

নুর হাসান ক্যাম্পাসলাইভ২৪ কে জানান, "এবার আমার বড় ভাইয়ের কাছে কিছু টাকা পাওনা থাকায়, উক্ত টাকা আমার বড় ভাই দিতে গেলে তারা অতিরিক্ত টাকা দাবি করে এবং কথার কাটাকাটি হয়ে এক পর্যায়ে আমার বড় ভাইয়া কে আটকিয়ে রাখে, আরো অনেক টাকা দাবি করে এবং প্রচন্ড মারধর করে রাস্তায় ফেলে রাখে। ভাইয়ার অবস্থা শোচনীয়। মাথায় অনেক বেশি আঘাত পাইছে। পেট কেটে গেছে।

এরপর, আমরা পুলিশি সহায়তায় ভাইকে সদর হসপিটালে ভর্তি করি।

এই আসামিরা মারপিট করে স্বাভাবিক ভাবেই এলাকায় ঘুরছে। তারা জানে আমরা পুলিশ দিয়ে তাদের কিছু করতে পারবোনা। তারা এলাকায় ত্রাস সৃষ্টি করে বেড়ায়।

আসামীগন হলেন ১. রনি (৩২), ২.জুয়েল (৩০), ৩. আলিফ(৫০) ৪. শুক্কুরআলী (৩২)।

তাদের বিরুদ্ধে এলাকার কেউই কোন কথা বলেনা। নেত্রকোনা জেলা প্রশাসক স্যার এর সাহায্যও নিতে গেছিলাম কিন্তু উনি চেয়ারম্যান কে বলার পরেও চেয়ারম্যান তাদের বিরুদ্ধে কিছু করার সাহস পায়না।

এমন অবস্থায় কি করব কিছু বুঝে উঠতে পারছিনা। পুরো অসহায় হয়ে গেছি। নুর হাসান এ বিষয়ে প্রতিবাদ করার কারণে তাকেও মারধরের হুকমি দিচ্ছে। তার পরিবার এখন নিরাপত্তা হীনতায় ভুগছে বলে জানিয়েছেন।

নুর হাসান আরো জানান, "পূর্বসূত্রধরে তারা বিভিন্ন সময় হুমকি ধামকি দিয়ে টাকা আদায় করেছে। তারা গ্রামে নিজেদের সন্ত্রাসী হিসাবে জাহির করার চেষ্টা করছে। ইতি পূর্বেও আমাদের জমি বেদখল দিলে দরবার সালিশে এলাকার মুরুব্বিগন মীমাংসা করে দেন।

নুর হোসেনের বড় ভাই হলেন, মাওলানা নূর আহম্মদ(৩০) তিনি একাধারে ফয়জুল উলুম মাদ্রাসার শিক্ষক ও স্কুলঘর জামে মসজিদের ইমাম ও খতীব।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে নেত্রকোনা সদরের ওসি তাজুল ইসলাম ক্যাম্পাসলাইভ২৪ কে বলেন, "আমরা ইতিমধ্যেই ১ জন আসমি কে এরেস্ট করছি, আর যারা এই ঘটনায় জড়িত তাদেরকে শাস্তির আওতায় আনার বিষয়েও আমরা তৎপর।"

ঢাকা, ২৭ জুলাই (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমএম//এমজেড

প্রধান সম্পাদক: আজহার মাহমুদ
যোগাযোগ: হাসেম ম্যানসন, লেভেল-১; ৪৮, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ, তেজগাঁ, ঢাকা-১২১৫
মোবাইল: ০১৬৮২-৫৬১০২৮; ০১৬১১-০২৯৯৩৩
ইমেইল:[email protected]