নর্থ সাউথ ভার্সিটিতে অনলাইনে ২৫টি প্রোগ্রামের ক্লাস চলছে


Published: 2020-03-31 22:09:25 BdST, Updated: 2020-05-29 16:03:14 BdST

শান্তনা চৌধুরী: মরণব্যাধি ও প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাস সংক্রমণের মাঝেও নিয়মিত ভাবে পড়া শুনা ও পাঠদানে ব্যস্ত নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক- শিক্ষার্থীরা। অনলাইন ইন্টারেক্টিভ ও ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে প্রায় ২৪ হাজার শিক্ষার্থী ২৫টি প্রোগ্রামের অধীনে ক্লাস করছেন বলে জানিয়েছেন ভিসি প্রফেসর ড. আতিকুল ইসলাম।

তিনি বলেন আমরা আধুনিক তথ্য ও প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে সর্ব্বোচ্চ সুযোগ সুবিধা দিয়ে থাকি শিক্ষার্থীদের। তাদের ভবিষ্যত চিন্তা করে আধুনিক বিশ্বের সঙ্গে তাল মিলিয়ে আমরা তাদের গড়ে তুলছি। তারা উচ্চ শিক্ষা নিতে বিদেশে গিয়ে যেন কোন সমস্যায় না পড়ে সেদিকে নজর রয়েছে আমাদের।

ভিসি বলেন, করোনা প্রতিরোধ করার লক্ষে সরকার দেশের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের একাডেমিক কার্যক্রম বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তাদের ওই ক্ষতি পুষিয়ে নিতেই আমরা গ্রহণ করেছি অনলাইন কার্যক্রম।

তাছাড়া শিক্ষা কার্যক্রম বন্ধ থাকায় অনলাইনের মাধ্যমে তা সচল করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছি। গত ২৯ মার্চ থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে ক্লাস শুরু হয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর ড. আতিকুল ইসলাম ক্যাম্পাসলাইভকে আরো জানান, আমাদের শিক্ষার্থীদের একাডেমিক পড়াশোনার কোনো প্রকার ক্ষতি হোক তা আমরা চাই না।

করোনা ভাইরাসে শিক্ষা কার্যক্রম বন্ধ থাকলে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা নানান সমস্যায় পড়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এ কারণেই ইউজিসির নির্দেশনা অনুসারে অনলাইনে শিক্ষা কার্যক্রম চালিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে।

নর্থ সাউথের পরিচালক আইটি মাহবুব উল হক সরকার ক্যাম্পাসলাইভকে জানান, ইতোমধ্যে ৩ সপ্তাহ আগে সংশ্লিষ্ট সব অনুষদের ডিন, বিভাগীয় প্রধান ও ফ্যাকাল্টিদের সঙ্গে বৈঠক করা হয়েছে। তাদেরকে ডেমো দেখানো হয়। এর পর অনলাইনে ক্লাস নেয়ার সিদ্ধান্ত নেয় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

অনলাইনে শিক্ষা কার্যক্রমের বিষয়টি সমন্বয় করছেন প্রো-ভিসি প্রফেসর ড. এম ইসমাইল হোসাইন। তিনি ক্যাম্পাসলাইভকে জানান, আমরা আমাদের সকল ফ্যাকাল্টিদের প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা গ্রহণ করেছি। এর পর শুরু করেছি অনলাইনে ক্লাস নেয়া। আমরা শিক্ষার মানের বিষয়ে কোন ছাড় দিতে রাজি নই। আমরা একটা স্ট্যান্ডার্ড মেনটেইন করে থাকি। যেনতেন ভাবে সার্টিফিকেট দেয়াতে আমরা বিশ্বাস করি না।

অন্যদিকে দেশের প্রথম সারির ২/৩টি বিশ্ববিদ্যালয় তারা অসমাপ্ত কোর্সের আনুপাতিক হারে রেজাল্ট দিয়ে দিচ্ছে। যা কোন ভাবেই মেনে নেয়ারমত নয়। কিন্তু নর্থ সা্উথ বিশ্ববিদ্যালয় এসব করছে না বলেও সংশ্লিস্টরা দাবী করেছেন।

অনলাইনে শিক্ষা কার্যক্রম প্রসঙ্গে জানতে চাইলে পরিচালক আইটি মাহবুব উল হক সরকার ক্যাম্পাসলাইভকে জানান, আমরা ক্লাস ও শিক্ষা কার্যক্রমের বিষয়গুলো নিয়ে এর পূর্বে পরীক্ষামূলকভাবে কাজ করেছি। আমরা আশাবাদী বিষয়টি সফলতার সঙ্গেই কাজ করবে।

জানা যায়, ইতোমধ্যে ১৮টি বিভাগের ২৫টি প্রোগ্রাম গুগল মিট ও ভিডিও কনফান্সের মাধ্যমে অনলাইনে শিক্ষা কার্যক্রম চালু করা হয়েছে। ক্লাস নেওয়ার ক্ষেত্রে বিভিন্ন উপকরণ শেয়ারের জন্য গুগল ক্লাসরুম ব্যবহার করছেন শিক্ষকরা ।

প্রসঙ্গত নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয় প্রথম পরীক্ষামূলকভাবে অনলাইনে ক্লাস শুরু করেন ২০১৫ সাল থেকে।এদিকে নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে একটি কমিটি করা হয়েছে। তারা সর্বক্ষণ শিক্ষার্থীরে নানান সমস্যা নিয়ে কাজ করেন। কোন শিক্ষার্থী অনলাইলে যুক্ত না হতে পারলে তাকে বিভিন্ন ধরনের সহায়তা করা হয়ে থাকে।

ঢাকা, ৩১ মার্চ (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//বিএসসি

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।