বশেমুরবিপ্রবিতে প্রশ্নফাঁস চক্রের মূলহোতাসহ বহিষ্কার ৭


Published: 2019-11-17 14:19:21 BdST, Updated: 2019-12-09 18:51:04 BdST

বশেমুরবিপ্রবি লাইভঃ গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বশেমুরবিপ্রবি) সদ্য অনুষ্ঠিত ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষের ভর্তি পরীক্ষায় প্রশ্নফাঁস চক্রের সাথে জড়িত থাকায় মূলহোতা বাবুল শিকদার বাবুসহ ৭ শিক্ষার্থীকে একাডেমিক কার্যক্রম থেকে দুই সেমিস্টার অর্থাৎ এক বছর এবং হল থেকে আজীবন বহিষ্কার করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

রবিবার সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার প্রফেসর ড. নূরউদ্দিন আহমেদ স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এমনই তথ্য নিশ্চিত করা হয়েছে।

বহিষ্কৃত ৭ শিক্ষার্থী হলেন, একাউন্টিং এন্ড ইনফরমেশন সিস্টেম বিভাগের (এআইএস) বিভাগের এমবিএ শিক্ষার্থী এবং গোয়েন্দা সংস্থার তথ্যমতে প্রশ্নফাঁস অপচেষ্টার মূলহোতা বাবুল শিকদার বাবু; ম্যানেজমেন্ট স্টাডিজ বিভাগের ৩য় বর্ষের শিক্ষার্থী মো. নয়ন খান; নিয়ামুল ইসলান এবং মনিমুল হক। আইন বিভাগের ৩য় বর্ষের শিক্ষার্থী অমিত গাইন এবং ২য় বর্ষের শিক্ষার্থী মানিক মজুমদার এবং প্রশ্নোত্তর সমাধানের চুক্তিকারী সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের ২য় বর্ষের শিক্ষার্থী রনি খান।

সরেজমিনে বহিষ্কার বিজ্ঞপ্তির চিঠি এবং তথ্যানুসন্ধান থেকে জানা যায়, গত ০৯ নভেম্বর ‘এ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষার পূর্বে বিকালে আনুমানিক ২.৩০ মিনিটে জাতীয় গোয়েন্দা সংস্থা (এনএসআই) বিশ্ববিদ্যালয়ের যৌথ উদ্যোগে ভর্তি প্রতারক একটি চক্রকে আটক করেন।

বশেমুরবিপ্রবিতে বহিষ্কৃত ৭জনের নোটিশ বিজ্ঞপ্তি

 

গোয়েন্দা সংস্থার তথ্য এবং বিশ্ববিদ্যালয় শৃঙ্খলা কমিটি কাছে ওই সাতজন শিক্ষার্থীর সংশ্লিষ্টতা প্রমাণিত হয়। ফলে তাদেরকে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন দুই সেমিস্টার একাডেমিক বহিষ্কার (জুলাই-ডিসেম্বর ২০১৯, জানুয়ারি-জুন ২০২০) এবং হল থেকে আজীবন বহিষ্কার করা হয়।

বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের এ পদক্ষেপ এবং গোয়েন্দা সংস্থার সজাগ তৎপরতা সাধারণ শিক্ষার্থীদের জ্ঞানার্জনের এবং মেধা বিকাশে সহায়তা করবে এমনটাই আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন সাধারণ শিক্ষার্থীরা।

ঢাকা, ১৭ নভেম্বর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমজেড

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।