কিট সংকটে বন্ধ রয়েছে নোবিপ্রবির করোনা পরীক্ষা


Published: 2020-05-24 20:45:05 BdST, Updated: 2020-07-06 18:19:40 BdST

নোবিপ্রবি লাইভঃ করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা প্রতিদিন যেন বেড়েই চলেছে। সেই সাথে বাড়ছে করোনা উপসর্গযুক্ত রোগীর সংখ্যা। এমন অবস্থায় জরুরি হয়ে পড়েছে দ্রুত নমুনা পরীক্ষা। এমন অবস্থার মধ্যে দিয়েই কিট সংকটে নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের অণুজীববিজ্ঞান বিভাগে স্থাপিত করোনাভাইরাসের নমুনা পরীক্ষা বন্ধ রয়েছে। কিট পেলে পুনরায় নমুনা পরীক্ষা চালু হবে বলে জানিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর প্রফেসর ড. নেওয়াজ মোহাম্মদ বাহাদুর জানান, গত ১১ মে নোবিপ্রবির অণুজীববিজ্ঞান বিভাগে স্থাপিত পিসিআর ল্যাবে এক হাজার ৪৮০টি কিট নিয়ে করোনাভাইরাসের নমুনা পরীক্ষা শুরু হয়। ল্যাবটি প্রতিদিন ১৯৪টি নমুনা পরীক্ষা করতে সক্ষম। শনিবার ২৪টি নমুনা পরীক্ষা করতেই কিট শেষ হয়েছে।

তিনি জানান, ল্যাবে এখনও ২৫০টি নমুনা জমা আছে। কিটের জন্য স্বাস্থ্য অধিদফতরে চাহিদাপত্র পাঠানো হয়েছে। ২-৩দিনের মধ্যে কিট পাবেন বলে আশা তার।

নোবিপ্রবির মাইক্রোবায়োলজি বিভাগের চেয়ারম্যান ও করোনা পরীক্ষার ফোকাল পার্সন প্রফেসর ফিরোজ আহম্মেদ জানান, করোনার নমুনা পরীক্ষার ল্যাবে কর্মরত কাউকেই ঈদের ছুটি প্রদান করা হয়নি। অথচ কিট না থাকার ফলে তারা বসে রয়েছেন। কিট থাকলে ঈদের দিনও পরীক্ষার পরিকল্পনা ছিল।

তিনি আরও জানান, সংগ্রহকৃত নমুনা ৭২ ঘন্টার মধ্যে পরীক্ষা না হলে তা নষ্ট হয়ে যেতে পারে। এছাড়াও যারা নমুনা দিয়েছেন তারাও ফল না পেয়ে উৎকন্ঠায় পড়েছে। তাদের মধ্যে পজেটিভ কেউ থাকলে তারা ভাইরাসও ছড়াচ্ছেন। বিষয়টি অত্যন্ত চিন্তার।

তবে নোয়াখালী সিভিল সার্জনের সঙ্গে নোবিপ্রবির সমন্বয়হীনতার জন্য পরীক্ষা বন্ধ হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। নিয়ম অনুযায়ী, কিট শেষ হওয়ার ১ সপ্তাহ আগে চাহিদাপত্র দিতে হয়। যেটা দেওয়া হয়নি।

কিট সংকট নিয়ে জেলা সিভিল সার্জন ডা. মো. মোমিনুর রহমান জানান, নোবিপ্রবির জন্য কিটের চাহিদাপত্র প্রেরণ করা হয়েছে।

ঢাকা, ২৪ মে (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমজেড

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।