জীবন বাঁচতে আকুতি ক্যান্সারে আক্রান্ত হাবিপ্রবি শিক্ষার্থীর


Published: 2021-07-30 23:18:40 BdST, Updated: 2021-09-19 17:37:50 BdST

হাবিপ্রবি লাইভ: হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (হাবিপ্রবি) ১৫ তম ব্যাচের গণিত বিভাগের শিক্ষার্থী ফিরোজ মেহবুব হেপাটোবিলিয়ারি ক্যান্সারে আক্রান্ত। মেধাবী শিক্ষার্থী ফিরোজ মেহবুবের রোগাক্রান্ত হওয়ায় তার পরিবার, সহপাঠী ও শিক্ষকদের মাঝে নেমে এসেছে শোকের ছায়া। তার জন্য দোয়া ও সহযোগিতা চেয়েছেন তার স্বজন ও সহপাঠীরা।

ফিরোজ মেহবুব বর্তমানে সিরাজগঞ্জের খাজা ইউনুস আলী মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রয়েছেন। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, ফিরোজের ক্যান্সার লিভার থেকে পিত্তথলিতে ছড়িয়ে পড়েছে। এছাড়াও ফিরোজকে বাঁচাতে তাকে দ্রুত ভারতে নেওয়ারও পরামর্শ দিয়েছেন চিকিৎসকরা।

তার বর্তমান অবস্থা সম্পর্কে জানতে তার ভাই আবু জাহিদ আল মামুনের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, ফিরোজের অবস্থা ক্রমেই অবনতির দিকে যাচ্ছে। ঠিকমতো খেতে পারছে না। আর খেলেও হজম করতে পারছে না। এছাড়াও পেট ফুলে যাচ্ছে এবং ঘনঘন বমি হচ্ছে ফিরোজের'।

তিনি আরও জানান, 'ফিরোজের যথাযথ চিকিৎসার জন্য তাকে ভারত নিয়ে যেতে হবে। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন এতে প্রাথমিকভাবে ২০ থেকে ২৫ লক্ষ টাকার প্রয়োজন'।

এদিকে ফিরোজকে বাঁচাতে সকলের আর্থিক সহযোগিতা চেয়েছেন ফিরোজের বন্ধু ও সহপাঠীরা। কেননা এতো টাকা তার পরিবারের পক্ষে বহন করা সম্ভব নয়।

সহপাঠীরা জানায়, ফিরোজ মেহবুব ক্যাম্পাসে খুবই প্রাণচঞ্চল ও হাসি-খুশি ছিলো। সবার সাথে ভালো ব্যবহার করত। কিন্ত হেপাটোবিলিয়ারি ক্যান্সারে আক্রান্ত হওয়ায় তারা সবাই হতবাক। এমতাবস্থায় বন্ধুর জন্য সবার কাছে দোয়া চেয়েছেন এবং তার পরিবারের কথা বিবেচনা করে চিকিৎসা সহায়তার জন্য সবার কাছে অনুরোধ জানিয়েছেন।

ফিরোজকে সহায়তা করতে চাইলে বিকাশ/রকেট অথবা নগদের মাধ্যমে টাকা পাঠানো যাবে।

১.বিকাশ/নগদ/ রকেট-০১৭৫২০১১৫৯৩ (ফিরোজ)

২.বিকাশ /নগদ/ রকেট-০১৭২২৩১১২১৩ (জাহিদ)

এছাড়াও আবু জাহিদ আল মামুন (ফিরোজের ভাই),সোনালী ব্যাংক,মহাখালী শাখা,ঢাকা,এ/সি: ০১২০৬৩৪০৭২৬৯৫ ব্যাংকের হিসাব নম্বরেও টাকা পাঠানো যাবে।

ঢাকা, ৩০ জুলাই (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//বিএসসি

 

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।