আবরারের লাশ কবর থেকে তুলে ময়নাতদন্তের নির্দেশ


Published: 2019-11-06 18:06:36 BdST, Updated: 2019-11-15 15:34:00 BdST

লাইভ প্রতিবেদক: বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে নিহত রাজধানীর রেসিডেনসিয়াল মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজ শিক্ষার্থী নাইমুল আবরার রাহাতের মরদেহ কবর থেকে তুলে ময়নাতদন্তের নির্দেশ দিয়েছে আদালত। বুধবার দুপুরে এই আদেশ দেয় সিএমএম আদালত।

শুক্রবার (১ নভেম্বর) রাত ৯টার দিকে দৈনিক প্রথম আলোর সাময়িকী কিশোর আলোর আনন্দ আয়োজনে বিদ্যুৎস্পর্শে মৃত্যু বরণ করেন রেসিডেনসিয়াল মডেল কলেজের স্কুল শাখার ৯ম শ্রেণির মেধাবী শিক্ষার্থী নাইমুল আবরার রাহাত। নিজ স্কুলে কিশোর আলোর অনুষ্ঠান দেখতে এসেছিলেন আবরার। পরবর্তীতে আবরারের বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হওয়ার খবর লুকিয়ে অনুষ্ঠান চালিয়ে যাওয়ার অভিযোগ ওঠে কিশোর আলো কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে।

অবহেলাজনিত মৃত্যুর অভিযোগে প্রথম আলোর পত্রিকার সম্পাদকের বিরুদ্ধে সিএমএম আদালতে মামলা দায়ের করেছেন নাইমুল আবরার রাহাতের বাবা। মজিবুর রহমান বাদি হয়ে ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতে (সিএমএম) মামলাটি দায়ের করেন।

পরে সেখানেই বিদ্যুতায়িত হয়ে গুরুতর আহত হলে অনুষ্ঠানস্থলের জরুরি মেডিক্যাল ক্যাম্পে তাকে নিয়ে যাওয়া হয়। দুইজন এফসিপিএস ডাক্তার তাকে পরীক্ষা করে দেখেন। পরবর্তীতে আয়োজকরা তাকে মহাখালীর আয়েশা মেমোরিয়াল হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত বলে জানান।

অপমৃত্যু বলা হলেও ময়নাতদন্ত ছাড়াই তার মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়। পরদিন শনিবার ভোরে অ্যাম্বুলেসে করে ঢাকা থেকে নাইমুলের লাশ গ্রামের বাড়ি নোয়াখালীর সোনাইমুড়ী উপজেলার ধন্যপুর গ্রামে নেওয়া হয়। শনিবার সকাল সাড়ে ৯টায় সেখানকার বায়তুল আমান জামে মসজিদ কমপ্লেক্স মাঠে জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে তার লাশ দাফন করা হয়।


ঢাকা, ০৬ নভেম্বর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমআই

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।