শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে নামানোর অভিযোগ!


Published: 2020-12-04 23:37:10 BdST, Updated: 2021-01-27 13:53:46 BdST

ব্রাহ্মণবাড়িয়া লাইভ: এবার মাদরাসা ছাত্রদের আন্দোলনে নামিয়ে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির অভিযোগে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় এক মাদরাসা শিক্ষককে প্রতিষ্ঠানটির সব পদ ও শিক্ষকতা থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে।

তার বিরুদ্ধে অভিযোগ তিনি নানান ভাবে ছাত্রদের আন্দোলনে নামাতেন। আর ওই শিক্ষক হলেন জেলা শহরের জামিয়া ইসলামিয়া ইউনুছিয়া মাদরাসার সহকারী শিক্ষাসচিব মুফতি আব্দুর রহিম কাসেমী।

আরো জানাগেছে তিনি একই সঙ্গে হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য। তার রয়েছে হাজারো ভক্ত ও অনুসারী। মঙ্গলবার জরুরি বৈঠক করে মাদরাসার নীতিনির্ধারণী ফোরাম এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে এলাকায় জানাজানি রয়েছে।

জামিয়া ইসলামিয়া ইউনুছিয়া মাদরাসার প্রিন্সিপাল মুফতি মোবারকুল্লাহ স্বাক্ষরিত এক নোটিশে এ তথ্য জানা গেছে।


নোটিশে বলা হয়, আব্দুর রহিম কাসেমী গত ১২ নভেম্বর জোহর নামাজ শুরুর আগে ভিত্তিহীন বক্তব্য দিয়ে মাদরাসার ছাত্র ও বহিরাগতদের বিক্ষোভ-বিদ্রোহে লেলিয়ে দেন।

ওই সময় তিনি মাদরাসার প্রবীণ একজন ওস্তাদকে লাঞ্ছিত করেন এবং সন্ত্রাসী কায়দায় তাকে উঠিয়ে নিয়ে যান। নোটিশে আরও বলা হয়, শতবর্ষী মাদরাসাটির ইতিহাস ও ঐতিহ্যকে নষ্ট করে নিজ নেতৃত্বদানের লোভে বিদ্রোহের পরিবেশ তৈরি করেন আব্দুর রহিম কাসেমী।

এ বিষয়ে জামিয়া ইউনুছিয়া মাদরাসার প্রিন্সিপাল মুফতি মোবারকুল্লাহ জানান, অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে আব্দুর রহিম কাসেমীকে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে। তবে কাসেমী এধরনের অভিযোগ বরাবরই অস্বীকার করে চলেছেন।

ঢাকা, ০৪ ডিসেম্বর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//বিএসসি

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।