ডোপিংয়ের দায়ে চার মাস নিষিদ্ধ ভারতীয় ‘পৃথ্বী শ’


Published: 2019-07-31 16:52:15 BdST, Updated: 2019-08-25 21:17:59 BdST

স্পোর্টস লাইভ : ডোপিংয়ের দায়ে চার মাসের জন্য নিষিদ্ধ হয়েছেন ভারতের ভবিষ্যৎ শচীন টেন্ডুলকার খ্যাত ওপেনার পৃথ্বী শ। দ্য বোর্ড অব কন্ট্রোল ফর ক্রিকেট ইন ইন্ডিয়া (বিসিসিআই) নিষিদ্ধ করেছে পৃথ্বীকে।

ফলে চলতি বছরের ১৫ নভেম্বর পর্যন্ত আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে খেলতে পারবেন না তিনি। তবে ১৫ সেপ্টেম্বর থেকে অনুশীলন শুরু করতে পারবেন ১৯ বছর বয়সী এই তরুণ খেলোয়াড়। ২০১৮ সালের অক্টোবরে টেস্ট আঙ্গিনায় পথচলা শুরু হয় পৃথ্বীর।

রাজকোটে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ওপেনার হিসেবে খেলতে নেমে বিশ্বকে চমকে দেন তিনি। ১৯টি চারে ১৫৪ বলে ১৩৪ রান করেন পৃথ্বী। এরপর ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে পরের টেস্টের দুই ইনিংসে ৭০ ও অপরাজিত ৩৩ রান করেন তিনি। এমন ব্যাটিং নৈপুণ্যের পর ক্রিকেট বিশেষজ্ঞরা তাকে ভারতের ভবিষ্যৎ টেন্ডুলকার বলে ভভিহিত করেন।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে দুর্দান্ত নৈপুণ্যে অস্ট্রেলিয়া সফরের দলে সুযোগ হয় পৃথ্বীর। কিন্তু গোড়ালির ইনজুরির কারণে পুরো সিরিজ থেকেই ছিটকে পড়েন তিনি। আশা ছিলো ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফর দিয়ে আবারো দলে ফিরবেন পৃথ্বী। কিন্তু হিপ ইনজুরির কারণে দলে সুযোগ পাননি পৃথ্বী। তবে এরই মধ্যে ডোপ টেস্টে ধরা পড়েন এই ডান-হাতি ব্যাটসম্যান।

বিসিসিআই জানায়, ‘পৃথ্বী অসাবধানবশত নিষিদ্ধ ড্রাগ নিয়েছেন, সাধারনত যা কফ সিরাপে পাওয়া যায়। তার মুত্রে নমুনাতে ‘টারবিউটালিন’ পাওয়া যায়। বিসিসিআই-এর অ্যান্টি ডোপিং নিয়মের ২.১ ধারা ভঙ্গ করায় নিষিদ্ধ করা হয়েছে পৃথ্বীকে।

অবশ্য অনিচ্ছাকৃত এই ভুলের জন্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে ক্ষমা চেয়েছেন পৃথ্বী। তিনি লিখেছেন, ‘আমি আজ জানতে পেরেছি, আগামী ১৫ নভেম্বর পর্যন্ত ক্রিকেট খেলতে পারবো না।

গত ফেব্রুয়ারিতে সৈয়দ মুস্তাক আলি টুর্নামেন্ট খেলার সময় সিরাপ ব্যবহার করেছি। সেখান থেকেই ডোপ টেস্টে পজিটিভ হয়। দ্রুত সুস্থতার জন্য আমি এটি নিয়েছিলাম এবং আশা করি এই ঘটনা অন্যান্যদের সচেতন করবে।’


ঢাকা, ৩১ জুলাই (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমআই

 

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।