যে কারণে পোল্যান্ড যাচ্ছে বুয়েটের রোবট


Published: 2019-07-24 22:29:12 BdST, Updated: 2019-10-18 01:05:06 BdST

বুয়েট লাইভঃ এবার আরেক দফা সফলতা দেখিয়েছেন বুয়েটিয়ানরা। তারা দুনিয়াজুড়ে নানান বিষয়ে বিশেষ করে রোবট নিয়ে ছুটাছুটি করে দেশের মান- সম্মান ও সুখ্যাতি বাড়াচ্ছেন। নিজেদের তৈরি রোবটের সঙ্গে ফোটোসেশনে বুয়েটের শিক্ষার্থীরা।

জানা গেছে পোল্যান্ডে অনুষ্ঠিতব্য এ বছরের আন্তর্জাতিক রোভার প্রতিযোগিতা ইউরোপিয়ান রোভার চ্যালেঞ্জে (ইআরসি) যাচ্ছে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) দল ইন্টারপ্ল্যানেটার।

রোবটিক্সে বিশ্বের অন্যতম বড় এই প্রতিযোগিতার চূড়ান্ত পর্বের জন্য টিম ইন্টারপ্ল্যানেটার নির্বাচিত হয়েছে।

সংশ্লিস্টরা জানান, ২০১৪ সাল থেকে মার্স সোসাইটি এই প্রতিযোগিতা আয়োজন করে। বিভিন্ন দেশের বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের গড়া ৫০টির বেশি দল এই প্রতিযোগিতায় প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে।

এ প্রতিযোগিতায় রোবটকে বিভিন্ন প্রতিযোগিতার মধ্য দিয়ে যেতে হয়। এবড়ো-থেবড়ো পথে চলা, মাটির গুণাগুণ পরীক্ষা, আবহাওয়া তথ্য সংগ্রহ ইত্যাদিতে সক্ষম করে তৈরি করতে হয় রোবটকে।

মহাকাশ সংস্থা নাসা (ন্যাশনাল অ্যারোনটিক্স অ্যান্ড স্পেস অ্যাডমিনিস্ট্রেশন) এবং ইসা (ইউরোপিয়ান স্পেস এজেন্সি) চাঁদ ও মঙ্গলগ্রহে তাদের রোবট পাঠিয়েছে। নিকট ভবিষ্যতে এসব প্রযুক্তির বাস্তবায়নের জন্য রোভার টেকনোলজির উন্নয়নের মাধ্যমে বৈজ্ঞানিক গবেষণার বিস্তার প্রয়োজন।

তাই ছাত্র-ছাত্রীদের স্পেস টেকনোলজিতে উদ্বুদ্ধ করাই ইআরসির মূল লক্ষ্য। সৌরজগতের আরেক গ্রহ মঙ্গলের প্রকৃতি ও পরিবেশ কেমন, গ্রহটি মানুষের বসবাসের জন্য কতটা উপযোগী, তা নিয়ে বিজ্ঞানীরা কাজ করে যাচ্ছেন।

আর এই গবেষণায় সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হলো কার্যকরী রোবট তৈরি, যা সেই গ্রহে পৌঁছে সেখানকার পরিবেশ সম্পর্কে পুঙ্খানুপুঙ্খ বিবরণ তুলে ধরবে। শিক্ষার্থীদের তৈরি রোবটের বিভিন্ন দিক বিবেচনা করে সেগুলোর বৈশিষ্ট্য মঙ্গলে পাঠানোর জন্য তৈরি রোবটে সংযুক্ত করা হয়।

উন্নত দেশের প্রতিযোগীরা এই প্রতিযোগিতায় প্রচুর শ্রম ও সময় ব্যয় করে। ইন্টারপ্ল্যানেটারের টিমের অন্যতম সদস্য বায়োমেডিকেল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের শিক্ষার্থী অনির্বাণ বললেন, ‘আমরা চাই এ বছর আমাদের রোবটের সক্ষমতা যেন শুধু প্রতিকূল অঞ্চলে চলা ও বৈজ্ঞানিক নমুনা সংগ্রহে সীমাবদ্ধ না থাকে; বরং চলার পথে বাধা চিহ্নিত করা, অভ্যন্তরীণ পরিবেশে কাজ করতে পারা ইত্যাদিতে সক্ষম হয়।’

টিমের দলনেতা যন্ত্রকৌশল বিভাগের শিক্ষার্থী মিশুজুর রহমান পারভেজ বললেন, ‘আমরা প্রতিযোগিতা নিয়ে অনেক আশাবাদী। আমাদের অনেক সীমাবদ্ধতা রয়েছে। প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের জন্য আমাদের প্রচুর অর্থ সাহায্য প্রয়োজন।

আমরা স্পন্সর খুঁজছি। ’আঠারো জন সদস্যের মধ্যে দশজন সদস্য নিয়ে পোল্যান্ড যাবে টিম ইন্টারপ্ল্যানেটার। ইন্টারপ্ল্যানেটারের সুপারভাইজারের দায়িত্বে আছেন বুয়েটের যন্ত্রকৌশল বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ আশিকুর রহমান।

এর আগেও টিম ইন্টারপ্ল্যানারের হয়ে বুয়েট শিক্ষার্থীরা বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় সাফল্য পেয়েছেন। এবারও তারা ইআরসিতে ভালো করবেন বলে আশাবাদী। এবার কেবল অপেক্ষার পালা।

ঢাকা, ২৪ জুলাই (ক্যাম্পাসলাইভ২৪কম)//বিএসসি

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।