উপসর্গ ছাড়াই করোনায় আক্রান্ত বিসিএস ক্যাডার শাবির সাবেক ছাত্র!


Published: 2020-04-29 13:56:50 BdST, Updated: 2020-05-26 18:46:46 BdST

শাবি লাইভ : এবার করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ছাত্র খান মতিউর রহমান। উপসর্গ ছাড়াই করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন হবিগঞ্জের বানিয়াচংয়ের ওই সহকারী কমিশনার (ভূমি)। তিনি শাবিপ্রবির পলিটিক্যাল স্টাডিজ বিভাগের ২০০৫-২০০৬ শিক্ষাবর্ষের ছাত্র ছিলেন। পাশাপাশি পলিটিক্যাল স্টাডিজ এলামনাই এসোসিয়েশনের সহ-সাধারণ সম্পাদক।

জানা গেছে, করোনার প্রাদুর্ভাব রোধে মাঠে কর্মতৎপড়তা চালিয়েছেন কর্মঠ ওই এসিল্যান্ড। করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে তিনি আইসোলেশনে আছেন। বানিয়াচং উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোঃ মামুন খন্দকার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

ইউএনও জানান, গত ২৩ এপ্রিল মতিউর এর নমুনা সংগ্রহ করে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। রোববার রাতে পরীক্ষায় তার নমুনায় করোনা পজিটিভ আসলে তাকে আইসোলেশনে নেয়া হয়। খান মতিউর রহমান বর্তমানে জেলা শহরস্থ তার নিজ বাসায় আইসোলেশনে রয়েছেন। তিনি সার্বক্ষণিক তার শারীরিক অবস্থার খোঁজ নিচ্ছেন বলেও জানিয়েছেন।

জানা যায়, খান মতিউর রহমান প্রতিদিনই ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করতেন। চলমান সংকট চলাকালেও সকাল-সন্ধ্যা ছিল কর্তব্যরত এলাকায় তার পদচারণা। শুধু তাই নয়, করোনা পরিস্থিতিতে কর্মহীন হয়ে পড়া মানুষের বাড়ি বাড়ি সরকারি সহায়তা বিতরণ এবং বাজার মনিটরিংসহ নানা কার্যক্রমে প্রশংসিত হয়েছেন তিনি।

এসিল্যান্ড মতিউর রহমানের সুস্থতা কামনায় শাবিপ্রবির পলিটিকাল স্টাডিজ বিভাগেলর অধ্যাপক ড. জহিরুল হক শাকিল বলেন, “খুবই ভারাক্রান্ত মনে জানাতে হচ্ছে আমাদের শাবিপ্রবির পলিটিক্যাল স্টাডিজ বিভাগের ২০০৫-২০০৬ শিক্ষাবর্ষের মেধাবী ছাত্র পলিটিক্যাল স্টাডিজ এলামনাই এসোসিয়েশনের সহ-সাধারণ সম্পাদক হবিগঞ্জের বানিয়াচং উপজেলার এসি ল্যান্ড খান মতিউর রহমানের করোনা পজিটিভ রিপোর্ট এসেছে। রবিবার সন্ধ্যায় সিলেট থেকে হবিগঞ্জ সিভিল সার্জন বরাবর তার রিপোর্ট প্রেরণ করা হয়।

মতিউর এমনিতেই খুবই কর্মঠ ও চৌকস কর্মকর্তা। সে যখন মাধবপুরের এসিল্যান্ড ছিল সেখানেও খুবই তৎপর ছিল। বানিয়াচং ও আজমিরীগঞ্জের এসিল্যান্ড হিসেবেও সবসময় মাঠে পড়ে থাকতো। করোনা প্রাদুর্ভাবের সাথে সাথে তার কর্মতৎপড়তা আরো বেড়ে যায়। দিনরাত পুরো এলাকা চষে বেড়াতো। কোনো সময় ত্রান বিতরণ, কোন সময় লোকজনকে ঘরে ফেরানো, কোনো সময় মোবাইল কোর্ট এসব নিয়েই তার দিন রাত্রি।

এরই মধ্যে আমি কয়েকদিন তাকে সাবধানে থাকতে বলেছি। ফোন করলেই হেসে হেসে বলতো স্যার আল্লাহ ভরসা। মানুষের জীবনতো বাচাঁতে হবে। সে উল্টো আমাকে পরামর্শ দিতো, স্যার আপনি নিরাপদে থাকবেন।” তিনি আরও বলেন, “আমরা শাবিপ্রবির পলিটিক্যাল স্টাডিজ বিভাগের বর্তমান ও প্রাক্তন অসহায় ছাত্র-ছাত্রীদের সহায়তার জন্য পলিটিক্যাল স্টাডিজ এলামনাই এসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে একটা তহবিল গঠন করেছি। সেখানে তার বিকাশ একাউন্ট নাম্বার ব্যবহার করা হয়েছে আগ্রহীদের কন্ট্রিবিউশন পাঠাতে। আমাকে সবসময় আপডেট দিতো। আর আজকে তার আপডেট হলো করোনা আক্রান্ত। সবাই আমরা আল্লাহর দরবারে দোয়া করি আল্লাহ যেন এই চৌকস, সৎ ও মেধাবি কর্মকর্তা ও সর্বোপরি একজন ভালো মানুষ খান মতিউর রহমানকে সুস্থ করে দেয়।”

ঢাকা, ২৯ এপ্রিল (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//সিএস

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।