আগরবাতি ব্যবহার কেন বন্ধ করবেন ?


Published: 2019-11-17 20:58:10 BdST, Updated: 2019-12-09 18:37:38 BdST

লাইভ প্রতিবেদকঃ আগরবাতি সেই প্রাচীনকাল থেকে ধর্মীয় কাজের অনুসঙ্গ হিসেবে ব্যবহৃত হয়ে আসছে। এখন অবধি মুসলিম বা হিন্দুদের ধর্মীয় অনুষ্ঠানে এই বস্তুটি অপরিহার্য। যেহেতু আগরবাতি ধর্মীয় কাজের অনুসঙ্গ হিসেবে আমরা ব্যবহার করে থাকি তাই কখনো এর খারাপ দিক নিয়ে ভাবা হয়েওঠেনা। এই আগরবাতির ধোঁয়া যে কতোটা ক্ষতিকর সেটা কল্পনাতীত। আসুন তাহলে জেনে নেয়া যাক আগরবাতির ক্ষতিকর দিকসমুহ।

শ্বাসতন্ত্রের সংক্রমন:
গবেষণায় দেখা গেছে জলন্ত আগরবাতির ধোঁয়াতে কার্বনমনোক্সাইড নামক রাসায়নিক পাওয়াযায়যা“নীরবঘাতক”নামেপরিচিত। এই ধোঁয়া বাতাসকে দূষিত করে যা ফুসফুসের প্রদাহ বাড়ায় এবং শ্বাসতন্ত্রে জটিল রোগের ঝুকি বাড়ায়। এছাড়াও এই ধোঁয়াকাশি ও হাঁচি সৃষ্টি করে যা খুবই অস্বস্তিদায়ক।

ফুসফুসের বিভিন্ন রোগ (সিওপিডি) ও অ্যাজমা:
আগরবাতির ধোঁয়াতে রয়েছে সালফারডাইঅক্সাইড, ফরমালডিহাইড, নাইট্রাসঅক্সাইড, কার্বন মনোক্সাইড যা নাকের মধ্য দিয়ে সরাসরি ফুসফুসে প্রবেশ করে এবং ফুসফুসের বিভিন্ন রোগ ও অ্যাজমা সৃষ্টি করে।

ত্বকের অ্যালার্জি:
বিশেষ করে বাচ্চাদের এবং বৃদ্ধদের ত্বকের অ্যালার্জি হয় আগরবাতির সংস্পর্শে আসলে। এছাড়া চোখ জ্বালাপোড়ার সমস্যাও হতে পারে।

স্নায়ুতন্ত্রের সমস্যা:
আগরবাতি পোড়ালে যে ধোয়া উৎপন্ন হয় তা রক্তে কার্বনমনোক্সাইড ও নাইট্রোজেন ডাইঅক্সাইড এর পরিমান বাড়িয়ে দেয় যা স্নায়ুতন্ত্রের নানাবিধ সমস্যা তৈরী করে।

শ্বাস তন্ত্রের ক্যান্সার:
আগরবাতির ধোঁয়াতে কারসিনোজেন পাওয়া গেছে অর্থাৎএটি শ্বাসতন্ত্রের ক্যান্সারের জন্য দায়ী।

কিডনির সমস্যা:
এই ধোঁয়া দেহের বিষাক্ত পদার্থের পরিমান বাড়িয়ে দেয় যা কিডনি দেহ থেকে অপসারন করতে ব্যর্থ হয় এবং কিডনি বিকল হওয়ার সম্ভাবনা তৈরী হয়।

হৃদরোগ:
যারা নিয়মিত আগরবাতি ব্যবহার করেন তাদের হৃদরোগ হওয়ার ঝুকি অনেকগুন বেড়ে যায়। সুতরাং আসুন আমরা আগরবাতির ব্যবহার বন্ধ করি।সকলের জন্য নির্মল বায়ু নিশ্চিত করি এবং ফুসফুসের বিভিন্ন রোগ থেকে নিজেকে বাঁচাই ও অপরকে বাঁচতে সহায়তা করি।

লেখক
মোঃবিল্লাল হোসেন
শিক্ষার্থী, ফলিতপুষ্টি ও খাদ্য প্রযুক্তি বিভাগ
জীব বিজ্ঞান অনুষদ
ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়, বাংলাদেশ।
ই-মেইল : billalanftiu@gmail.com

ঢাকা, ১৭ নভেম্বর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমজেড

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।