রহস্যময় পাইন গাছ: ইংরেজি বর্ণ 'জে' এর মতো বাঁকানো!


Published: 2020-09-14 19:18:20 BdST, Updated: 2021-07-28 12:31:37 BdST

ছাবিত হোসাইন মজুমদারঃ পৃথিবীতে এমন অনেক গোপন রহস্য রয়েছে যেগুলির সমাধান খুব সহজে করা সম্ভব হয় না। অনেক সময় ধরে বহু গবেষণার পরও কিছু রহস্যের কোনো সমাধান পাওয়া যায় না। ফলে অনুসন্ধান যেমন অসম্পূর্ণ থেকে যায়, ঠিক তেমনে না পাওয়া উত্তরের জন্য বিষয়টি আরো অদ্ভুত বা রহস্যময় হয়ে যায়।

পশ্চিম পোল্যান্ডের গ্রিফিলো শহরের পাইন গাছের জঙ্গলটি সে রকম একটি রহস্যময় স্থান। কারণ পৃথিবীর অন্য সব পাইন গাছ স্বাভাবিক নিয়মে বেড়ে উঠলেও এই জঙ্গলের পাইন গাছ প্রাকৃতিক সে নিয়ম উপেক্ষা করে বেড়ে উঠছে বাঁকানো ভাবে। এই জঙ্গলটিতে প্রায় ৪০০ পাইন গাছ রয়েছে এবং সব কয়টি পাইন গাছ গোড়ার দিকে ৯০ ডিগ্রি বেঁকে রয়েছে। তবে ঠিক কী কারণে এই গাছ গুলো বেঁকে রয়েছে, সেই সমস্যার সমাধান এখনো বের করা সম্ভব হয়নি।

এই জঙ্গলের সব কয়টি গাছই মাটি থেকে একটু উপরের দিকে ৯০ ডিগ্রি কোণে বাঁকানো। দেখতে অনেকটা ইংরেজি বর্ণ 'জে' এর মতো। এই বাঁকানো গাছের জঙ্গলটি আসলে এক মস্ত অরণ্যের অংশ।মজার ব্যাপার হচ্ছে যে অরণ্যটির এই অংশ ব্যাতিত অন্য অংশের পাইন গাছ গুলো স্বাভাবিক আকৃতির। আর এই কারণেই প্রশ্ন উঠেছে, এই বনের এক প্রান্তের গাছ গুলো বাঁকা হওয়ার পেছনে কারণ কী? আর এই রহস্যের সমাধানে একেক গবেষক দিয়েছে একেক ব্যাখ্যা।

পোল্যান্ডের নয়ে সজারনোয়ে গ্রামের পাশে বিশ্বের এই অদ্ভুত জঙ্গলের গাছ গুলো নাকি রোপণ করা হয়েছিল। ধারণা করা হয় গাছ গুলো দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধকালীন সময়ে রোপণ করা হয়েছিল। ২২ টি সারিতে ৪০০ পাইন গাছ একটি নির্দিষ্ট পদ্ধতিতে বেঁকে রয়েছে। আরও মজার ব্যাপার হলো গাছ গুলো সব উত্তর দিকে বেঁকে রয়েছে!

এই গাছের কাঠ দিয়ে নাকি নৌকা তৈরি করার উদ্দেশ্যে এগুলো লাগানো হয়েছিল। তবে কেন এই গাছ গুলো এমন বিচিত্রভাবে বেঁকে গেল, সেটা আজও জানা যায় নি।

পাইন গাছ

 

অনেকে মনে করেন, ঐ যায়গায় মাধ্যাকর্ষণ শক্তি পৃথিবীর অন্য যে কোনো অংশের চেয়ে বেশি। সেই কারণে গাছ গুলো বেঁকে রয়েছে। তবে অনেকে আবার এর পেছনে ভিনদেশী এলিয়েন দের কারসাজি আছে বলে মনে করেন!

কারো কারো বক্তব্য, সেখানে গাছ গুলো রোপণ করার পর দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ শুরু হয়। তাই, জঙ্গলের পাশে ট্যাংকের কারণেই গাছগুলো বেঁকে গেছে। কিন্তু ট্যাংকের কারণে গাছ বেঁকে যাওয়ার যুক্তি, অনেকেই বিশ্বাস করে না।

অধিকাংশ মানুষ বিশ্বাস করে যে, গাছগুলো যখন বৃদ্ধি পাচ্ছিল, তখন সেটা কোনো কারণে ক্ষতিগ্রস্ত হয়। সেই কারণে গোড়া থেকেই গাছ গুলো বেঁকে যায়। আরও একটি জনপ্রিয় তত্ত্ব হলো যে, বরফ পড়ার কারণেই গাছগুলো ক্ষতিগ্রস্ত হয় এবং এগুলোর গোড়া বেঁকে যায়। এতগুলি তত্ত্ব দেয়ার পরও সঠিক ভাবে বলা সম্ভব নয়, ঠিক কি কারণে গাছ গুলো বেঁকে গেছে।

এই বিচিত্র জঙ্গলে প্রতিবছর পৃথিবীর নানা দেশ থেকে অসংখ্য পর্যটক ভ্রমণ করে।সিনেমার শুটিংও হয়েছে কয়েকবার। তবে গাছ গুলোর এই রহস্যময় আকৃতি নিয়ে এখনো সংশয় রয়েছে বিজ্ঞানীদের।তাইতো এই রহস্যময় জঙ্গল নিয়ে এখনো চলছে নানা গবেষণা!

লেখক: ছাবিত হোসাইন মজুমদার
শিক্ষার্থী, মহিপাল সরকারি কলেজ, ফেনী

ঢাকা, ১৪ সেপ্টেম্বর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমজেড

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।