‘কুবির বন্ধ ক্যাম্পাসে খেলবে কারা’


Published: 2021-09-03 17:33:14 BdST, Updated: 2021-10-18 06:42:25 BdST

কুবি লাইভ: পড়াশুনার খবর নেই। তবে খেলাধুলার প্রতি দরদের সামান্য কমতি নেই বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের। কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের (কুবি) বিভিন্ন বিভাগ ও হলসমূহে ক্রীড়া সামগ্রী বিতরণ করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। তবে দেশজুড়ে করোনাভাইরাসের কারণে গত বছরের মার্চ মাস থেকে বন্ধ রয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়টি। এনিয়ে রয়েছে নানান বিতর্ক। নানা মত।

এদিকে ওই বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের দাবি থাকা সত্ত্বেও অনলাইন ক্লাস-মূল্যায়নের প্রয়োজনে অপারেটরদের সাথে স্বল্পমূল্যে ইন্টারনেট ডাটার চুক্তি চূড়ান্ত করতে না পারা, ক্রমবর্ধমান সেশনজট নিরসনে ডিজাস্টার রিকোভারি প্ল্যান বাস্তবায়নে ধীরগতি, অন্যান্য অনেক বিশ্ববিদ্যালয়ের তুলনায় টিকা কার্যক্রমে পিছিয়ে থাকা, বারবার পরীক্ষা দিতে এসেও করোনা-লকডাউনে বাধ্য হয়ে শিক্ষার্থীদের ফিরে যাওয়ার প্রেক্ষাপটে এসব ক্রীড়াসামগ্রী বিতরণকে ইতিবাচকভাবে দেখছেন না শিক্ষার্থীরা। তারা বলছেন এটা একটা হাস্যকর বিষয়। এমনটি আমরা আশা করি না।


এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়টির শিক্ষার্থী আবদুল্লাহ আল আমিন বলেন, যেহেতু ক্যাম্পাস বন্ধ সেহেতু ক্রীড়া সামগ্রীর পরিবর্তে অনলাইনে পড়াশোনা চালিয়ে যাওয়ার জন্য ইন্টারনেটের ব্যবস্থা করতে পারতো প্রশাসন। এখন এসব সামগ্রী দিয়ে খেলবে কারা? আরেক শিক্ষার্থী কানিজ ফাতিমা সুমি বন্ধ ক্যাম্পাসে ক্রীড়াসামগ্রী বিতরণ প্রসঙ্গে ইন্টারনেটের পাশাপাশি টিকার কথাও তুলে ধরে জানিয়েছেন, এইসব হাবিজাবি লোক দেখানো কাজ না করে যদি ইন্টারনেট নিশ্চিত করতো তাহলে আমরা সেশনজটে পড়তাম না।

এত শিক্ষার্থী ডিপ্রেশনে থাকতো না। যারা গ্রামে থাকে তারা ঠিকভাবে অন্তত ক্লাস করতে পারতো, পাশাপাশি নতুন স্কিলও বাড়াতে পারতো। আর টিকার কথা যদি বলি, আমার অন্যান্য ক্যাম্পাসের সব বন্ধুরা দুটি করে ডোজ পেয়েছে, আমরা এখনো একটাও পাইনি।
আরেক শিক্ষার্থী সামিয়া হক রিভা বিরক্তি প্রকাশ করে আরটিভি নিউজকে জানিয়েছেন, এই সিচুয়েশনে এই কার্যক্রমের কোনো যৌক্তিকতা পেলাম না। এর মানে কী? পরীক্ষা করো না। বল দিয়েছি, খেলাধুলা করো। যেমন ছোটবেলায় কোনো কিছু নিয়ে বায়না করলে, চকলেট দিয়ে থামিয়ে দিতো!

ক্রীড়া সামগ্রী বিতরণ অনুষ্ঠানে ভিসি অধ্যাপক ড. এমরান কবির চৌধুরী বলেন, পড়াশোনার পাশাপাশি শিক্ষার্থীদের বিনোদন ও খেলাধুলার প্রয়োজন রয়েছে। শিক্ষার্থীদের জন্য আগামীতে আরও ভালো কাজ হবে। ইতোমধ্যে নতুন প্রজেক্টের কাজ শুরু হয়েছে এবং কাজ শেষ হওয়ার পর অবশ্যই শিক্ষার্থীরা আরও বেশি সুযোগ সুবিধার আওতায় আসবে। আমরা আমাদের সাধ্যমত সব কিছুই করবো।

ঢাকা, ০৩ সেপ্টেম্বর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//বিআইটি

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।