৪ দিনের আন্দোলনে যাচ্ছে চবির কর্মকর্তা-কর্মচারীরা


Published: 2021-10-10 14:38:24 BdST, Updated: 2021-10-18 06:44:37 BdST

চবি লাইভ: আলটিমেটাম দেওয়া ৫ দফা দাবি বাস্তবায়ন না হওয়ায় আন্দোলনের ডাক দিয়েছে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় (চবি) কর্মকর্তা-কর্মচারী যৌথ সংগ্রাম পরিষদ। চবি অফিসার সমিতির কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে পরিষদের নেতৃবৃন্দ ৪ দিন ব্যাপী আন্দোলনের ঘোষণা দেন।

আন্দোলনের কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে ১৮ অক্টোবর সাধারণ কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সাথে মত বিনিময়, ১৯ অক্টোবর মানববন্ধন, ২১ অক্টোবর ২ ঘন্টা কর্ম বিরতি এবং ২৪ অক্টোবর অর্ধ দিবস কর্ম বিরতি। এ সময় নেতৃবৃন্দ ২৪ অক্টোবরের মধ্যে তাদের দাবি বাস্তবায়ন না হলে সামনে আরো কঠোর আন্দোলনের হুঁশিয়ারি দেন।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন চবি কর্মচারী সমিতির সভাপতি মোঃ আনোয়ার হোসেন, কর্মকর্তা-কর্মচারী পরিষদের আহবায়ক ও চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় অফিসার সমিতির সভাপতি রশিদুল হায়দার জাবেদ, অফিসার সমিতির সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ হামিদ হাসান নোমানী এবং সাধারণ কর্মচারী ও কর্মকর্তারা।

উল্লেখ্য, গত ৫ অক্টোবর তারা রেজিস্ট্রার বরাবর ৪ দিনের আলটিমেটামে ৫ দফা দাবি পেশ করেন। তাদের ৫ দফা দাবিগুলো ছিল— প্রশাসক পদ বাতিলসহ অফিসারদের সকল পদ হতে সম্মানিত শিক্ষকদের প্রত্যাহার, কর্মকর্তা-কর্মচারীদের পদোন্নতি নির্বাচনী বোর্ড সভা বাস্তবায়ন, কর্মকর্তাদের ডিউ ডেইট সুবিধা পূর্বের ন্যায় বহাল রাখা, ৩য় শ্রেণী কর্মচারীদের পদোন্নতির নীতিমালা সংশোধন-সংযোজন পূর্বক সময়োপযোগী করা, ওয়ারিশ সূত্রে চাকরি নিশ্চিতকরণ (বিশেষত যারা চাকুরীরত অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন) করতে বিগত ৩০ সেপ্টেম্বর ২০০২ তারিখে অনুষ্ঠিত সিন্ডিকেটের ৩৯১ তম সভার ৯ (১) সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন।

সম্মেলনে অফিসার সমিতির সভাপতি রশিদুল হায়দার জাবেদ আক্ষেপ করে বলেন, দীর্ঘদিন থেকে তারা দাবি আদায়ে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করলেও প্রশাসন শুধু আশ্বাসই দিয়ে এসেছে। এমনকি শেষবার তারা বিশ্ববিদ্যালয় রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) এস. এম. মনিরুল হাসানের কাছে দাবি পেশ করতে গেলে সম্মানিত রেজিস্ট্রার তাদের প্রতি নূন্যতম সৌজন্যতাও দেখাননি।

ঢাকা, ১০ অক্টোবর (ক্যাম্পাসইভ২৪.কম)//এজে//এমজেড

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।