ঢাবির ভর্তির আবেদন ফি পরিশোধ করা যাবে মোবাইলেই (ভিডিও)


Published: 2021-03-08 19:32:11 BdST, Updated: 2021-05-18 23:32:26 BdST

ঢাবি লাইভ: ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে (ঢাবি) ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে স্নাতক শ্রেণীতে ভর্তির আবেদন প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। তবে অনলাইনে আবেদন শেষে রাষ্ট্রায়ত্ত সোনালী, অগ্রণী, জনতা বা রূপালী ব্যাংকের যেকোনো শাখার পাশাপাশি যে কোনো মোবাইল পেমেন্ট সার্ভিস( বিকাশ, নগত, রকেট ইত্যাদি), ডেবিট ও ক্রেডিট কার্ড ইত্যাদি ব্যবহার করে অনলাইনেই ঢাকা জমা দেয়া যাবে।

আগামী ৩১ মার্চ রাত ১১টা ৫৯ মিনিট পর্যন্ত আবেদন প্রক্রিয়া অব্যাহত থাকবে। টাকা জমা দেয়া যাবে পহেলা এপ্রিল রাত ১২ টা পর্যন্ত । পহেলা মে বিকেল ৩টা থেকে সংশ্লিষ্ট ইউনিটের পরিক্ষা শুরুর ৩০ মিনিট পূর্বে প্রবেশ পত্র ডাউনলোড করা যাবে।

সোমবার বিকেলে বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় ভর্তি কার্যালয়ে অনলাইন ভর্তি আবেদন-প্রক্রিয়ার উদ্বোধন করেন উপাচার্য মো. আখতারুজ্জামান ৷ বিগত বছরগুলোতে আবেদন ফি ৪৫০ টাকা থাকলে এবারের আবেদন ফি ৬৫০টাকা করা হয়েছে ৷

প্রতিবছর ভর্তি পরীক্ষা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ও ঢাকার অন্যান্য কলেজগুলোতে হলেও এবারে করোনা পরিস্থিতিতে স্বাস্থ্যবিধি মানার জন্য ৮টি বিভাগীয় শহরে অনুষ্ঠিত হবে। শিক্ষার্থীকে আবেদনের সময় ৮ টি বিভাগীয় শহরের যেকোন একটি কে তার ভর্তি কেন্দ্র হিসেবে নির্বাচন করতে হবে।

বিভাগীয় শহরের বিশ্ববিদ্যালয়গুলো ঢাবির ভর্তি পরিক্ষার নিয়ন্ত্রকের ভূমিকা পালন করবেন। বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে সিটের সংকট হলে পার্শ্ববর্তী কলেজগুলোতে পরিক্ষার সিট প্লাণ করা হবে।

বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি কমিটির সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, এবারের ক ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা ২১শে মে, খ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা ২২মে, গ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা ২৭শে মে, ঘ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা ২৮শে মে এবং চ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা (এমসিকিউ) ৫ই জুন অনুষ্ঠিত হবে। প্রতিটি পরীক্ষা সকাল এগারটা থেকে বেলা সাড়ে বারটা পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হবে। প্রতিবছর সকাল দশটায় পরিক্ষা শুরু হলেও এবারে বিভাগীয় শহরে পরিক্ষা হওয়ার তা সকাল এগারোটায় অনুষ্ঠিত হবে।

এবার ক, খ, গ ও ঘ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় ৬০ নম্বরের বহুনির্বাচনি ৪৫ মিনিটে এবং ৪০ নম্বরের লিখিত পরীক্ষা নেয়া হবে ৪৫ মিনিটে। চ ইউনিটের ক্ষেত্রে ৪০ নম্বরের বহুনির্বাচনি পরিক্ষা ৩০ মিনিটে এবং বহুনির্বাচনি পরিক্ষার ফলাফলের ভিত্তিতে পরবর্তীতে মেধাক্রম অনুযায়ী ১৫০০ জন ৬০ নম্বরের অঙ্কন পরীক্ষা ৬০ মিনিটে দিতে হবে।

ক-ইউনিটভুক্ত নতুন বিভাগ আবহাওয়া বিজ্ঞানে ১৫ জন শিক্ষার্থী ভর্তি করা হবে। পাঁচটি ইউনিটের অধীনে এবার মোট আসনসংখ্যা পূর্বের ৭১১৮ হতে বৃদ্ধি পেয়ে ৭১৩৩ হবে৷

এবার বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত ‘ক’ ইউনিটে ১৮০৫, কলা অনুষদভুক্ত ‘খ’ ইউনিটে ২৩৭৮, ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদভুক্ত ‘গ’ ইউনিটে ১২৫০, সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত ‘ঘ’ ইউনিটে ১৫৬০ এবং চারুকলা অনুষদভুক্ত ‘চ’ ইউনিটে ১৩৫টি আসন রয়েছে ৷

ক, খ, গ ও ঘ এই চার ইউনিট দুটি অংশে এমসিকিউ ৬০ ও লিখিত ৪০ মোট ১০০ নম্বরের পরীক্ষা দিবে। চ-ইউনিটের শিক্ষার্থীরা এমসিকিউ ৪০ নম্বরের পরীক্ষা দিবে। এর ফলাফলের ভিত্তিতে পরবর্তীতে মেধাক্রম অনুযায়ী ১৫০০ জন ৬০ নম্বরের অঙ্কন পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করবে। ভর্তি পরীক্ষায় প্রাপ্ত নম্বরের সাথে উচ্চমাধ্যমিকের প্রাপ্ত জিপিএ-র উপর ১০ ও মাধ্যমিকের প্রাপ্ত জিপিএ-র উপর ১০, মােট ২০ নম্বর যােগ করে মেধা-তালিকা তৈরি করা হবে।

ভিডিও দেখতে লিঙ্কটিতে ক্লিক করুন: https://web.facebook.com/Campuslive24/videos/814511645798301 

ঢাকা, ০৮ মার্চ (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমএম//এমজেড

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।