অনলাইনে ফি দিতে ভোগান্তিতে জবি শিক্ষার্থীরা


Published: 2021-06-16 13:16:57 BdST, Updated: 2021-08-02 12:07:17 BdST

মেহেরাবুল ইসলাম সৌদিপ, জবি: জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) সশরীরে সেমিস্টার ফাইনাল পরিক্ষা ১০ আগস্ট থেকে শুরু করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। এরই সাথে একাডেমিক কাউন্সিলের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ২৯ জুনের মধ্যে অনলাইনে পরবর্তী সেমিস্টারে ভর্তি ও পরিক্ষার ফি জমা দেয়ার জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভাগ গুলো নোটিশ দিয়েছে। তবে ভর্তি ফি জমা দেয়ার একমাত্র মাধ্যম শিউরক্যাশ এজেন্ট খুঁজে পাচ্ছে না ঢাকার বাহিরে নিজ নিজ বাসস্থানে অবস্থানরত অধিকাংশ শিক্ষার্থীরা। ফলে ভর্তি ফি পরিশোধ করতে পোহাতে হচ্ছে বিড়ম্বনা।

২০১৭ সালের শেষের দিকে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি ও পরীক্ষার ফি সহ সকল ফি পরিশোধের জন্য রুপালি ব্যাংকের অনলাইন ব্যাংকিং সেবা শিউরক্যাশের মাধ্যমে টাকা জমাদানের সুবিধা করে দেয় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। সবশেষ এ বছরের ১লা এপ্রিল ডাক বিভাগের মোবাইল ব্যাংকিং সার্ভিস নগদের সঙ্গে বেতন ও পরীক্ষা ফি সহ যাবতীয় ফি প্রদান করতে চুক্তি করে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। নগদ সরকারি প্রতিষ্ঠান ও সকল জায়গায় এর বিস্তৃতি সহ স্বল্প খরচে শিক্ষার্থীরা ফি দিতে পারবে বিধায় এ অনলাইন ব্যাংকিং মাধ্যমটি বেছে নেয় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। তবে এ সেবাটি এখনও চালু না হওয়ায় ফি দিতে শিউরক্যাশ ব্যতিত শিক্ষার্থীদের বিকল্প কোনো উপায় নেই।

দীর্ঘ ছুটি ও বর্তমান করোনা পরিস্থিতিতে বেশিরভাগ শিক্ষার্থী নিজ নিজ গ্রামের বাড়িতে অবস্থান করছে। বিভাগ থেকে ফি দেয়ার নোটিশ দেয়ায় অনলাইনে শিওরক্যাশ এর মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের ভর্তি ও পরিক্ষা ফি দিতে হচ্ছে। গ্রামাঞ্চলে বিকাশ, রকেট, নগদ এজেন্ট সহজে পাওয়া গেলেও শিওরক্যাশ এজেন্ট পাওয়া যায় না বলে জানান বিশ্ববিদ্যালয়ের একাধিক শিক্ষার্থী।

এছাড়াও অনেক সময় একসাথে একমাত্র মাধ্যম সিউরক্যাশে পেমেন্ট দিতে গিয়ে নানা জটিলতায় পড়েছে শিক্ষার্থীরা। এতে করে তাদের চরম ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে। শিক্ষার্থীদের দাবি রূপালী ব্যাংক এর মোবাইল ব্যাংকিং কার্যক্রম শিউরক্যাশের এজেন্ট সর্বস্তরে না থাকায় তাদের ব্যাপক সমস্যার সৃষ্টি হচ্ছে। শিওরক্যাশ এজেন্ট না পাওয়ার অসুবিধাই এসব ফি দিতে ভোগান্তিতে পড়ার প্রধান কারণ বলছেন শিক্ষার্থীরা।

ভোগান্তিতে পরে গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের শিক্ষার্থী ফারজানা ইয়াসমিন জীবন ক্যাম্পাসলাইভকে জানান, আমি করোনাকালীন সময় হতে গ্রামের বাড়িতে অবস্থান করছি, কিন্তু সেমিস্টারের ভর্তি দিতে উপজেলা পর্যায়ের অনেক দোকানে ঘুরেও শিওরক্যাশ এজেন্ট পাইনি। ফলে আমার পেমেন্ট টি করতে পারি নি।

ইতিহাস বিভাগের শিক্ষার্থী আবু রায়হান রতন ক্যাম্পাসলাইভকে বলেন, আমি অনেক দোকানে গিয়েও পেমেন্ট করতে পারিনি, শেষে ঢাকায় এক বন্ধুকে বিকাশে টাকা পাঠিয়ে পেমেন্ট করে নিয়েছি।

ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের শিক্ষার্থী শাওন ক্যাম্পাসলাইভকে জানান, শুনেছি নগদ এর মাধ্যমে বিল পে করতে পারবো কিন্তু নগদের মাধ্যমে বিল পেমেন্টে আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়ের নামই নেই।

সমাজবিজ্ঞান বিভাগের তৃতীয় বর্ষের একজন শিক্ষার্থী ক্যাম্পাসলাইভকে বলেন, আমার বাসা কিশোরগঞ্জের করিমগঞ্জে। এখানে বিকাশ, রকেট ছাড়া অন্য কোনো সেবাই পাচ্ছি না। তাই আমার একজন সহপাঠীর মাধ্যমে টাকা পেমেন্ট করার জন্য তার কাছে বিকাশে টাকা পাঠিয়েছি। আমার মতো অনেকেই এ সমস্যায় পড়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের পনেরোতম আবর্তনের এক শিক্ষার্থী ক্যাম্পাসলাইভকে জানায়, আমার এলাকায় সিউরক্যাশ এজেন্ট নেই। তাই নিজে একটি একাউন্ট খুলে এক বন্ধুর সাথে যোগাযোগ করে টাকা আনতে হয়েছে। এক্ষেত্রে আামাদের খরচ বেশি হচ্ছে। তাকে আমার বিকাশে টাকাটা পেমেন্ট করতে হয়েছে সেক্ষেত্রে তাকে ক্যাশ আউট চার্জ দিতে হয়েছে।

এ বিষয়ে অর্থ ও হিসাব দপ্তরের পরিচালক ড. কাজী নাসির উদ্দিন ক্যাম্পাসলাইভকে বলেন, "আমাদের সাথে নগদের চুক্তি হয়ে গেছে। এখন আইটি দপ্তরের কিছু কাজ বাকি আছে, সেগুলো সম্পন্ন হলে নগদের মাধ্যমে বেতন, পরীক্ষার ফিসহ অন্যান্য পরিশোধযোগ্য ফি দেওয়া যাবে৷ এখন শিওরক্যাশ এর মাধ্যমে ফি নেওয়া হচ্ছে।"

নগদের সুবিধা পেতে শিক্ষার্থীদের অপেক্ষার প্রহরের সময় জানতে চাইলে বিশ্ববিদ্যালয়ের নেটওয়ার্ক এন্ড আইটি দপ্তরের পরিচালক অধ্যাপক ড. উজ্জ্বল কুমার আচার্য্য ক্যাম্পাসলাইভকে জানান, আমাদের পক্ষ থেকে কাজ মোটামুটি কমপ্লিট, এখন নগদের কিছু কাজ বাকি আছে, তাদের কাজ শেষ হলে বলতে পারবো কবে থেকে শিক্ষার্থীরা ফি দিতে পারবে।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার প্রকৌশলী মো. ওহিদুজ্জামান ক্যাম্পাসলাইভকে বলেন, যদি কোথাও এজেন্ট খুঁজে না পাওয়া যায় আামাদের বা বিভাগীয় চেয়ারম্যান কে অভিহিত করলে আমরা অবশ্যই বিকল্প ব্যবস্থা নিবো।

এ বিষয়ে কথা বলতে বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ প্রফেসর ড. কামালউদ্দীন আহমদকে ফোন দেওয়া হলে, সাংবাদিক পরিচয় পেয়ে তিনি অপ্রস্তুত হয়ে ফোন কেটে দেন।

ঢাকা, ১৬ জুন (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমজেড

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।