১৭ অক্টোবর থেকে সশরীরে ঢাবির ক্লাস শুরু


Published: 2021-10-16 13:55:18 BdST, Updated: 2021-12-02 22:55:04 BdST

ঢাবি লাইভ: ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) সব বর্ষে সশরীরে ১৭ অক্টোবর থেকে ক্লাস-পরীক্ষা শুরু হবে। দীর্ঘ ১৮ মাস পর খুলবে শ্রেণীকক্ষগুলো ৷ কোভিড-১৯ প্রতিরোধ ও নিয়ন্ত্রণে অন্তত এক ডোজ টিকা নেওয়ার শর্তে ও মানসম্মত পরিচালনা পদ্ধতি বা Standard Operating Procedures (SOP) সামনে রেখে ক্লাস পরিচালিত হবে বলে জানা গেছে ৷

সেশনজট নিরসনের জন্য, লস রিকভারি প্ল্যান সামনে রেখে আগামীকাল সশরীরে শুরু হতে যাচ্ছে বিভিন্ন বিভাগের পাঠদান ৷ লস রিকোভারি প্ল্যানের আওতায় সেমিস্টার পদ্ধতির ক্ষেত্রে পরীক্ষাসহ সেমিস্টারকাল ৬ মাসের পরিবর্তে ৪ মাস এবং বার্ষিক কোর্স পদ্ধতির ক্ষেত্রে ১২ মাসের পরিবর্তে ৮ মাস করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান ক্যাম্পাসলাইভকে জানান,“ ক্লাস ও পরীক্ষাগুলো পরিচালনার ক্ষেত্রে বিশ্ববিদ্যলায় কর্তৃক প্রণীত স্ট্যান্ডার্ড অপারেটিং প্রসেডিওরস পালনের উপর সর্বোচ্চ গুরুত্ব আরোপ করা হবে। যেসব বিভাগ, ইনস্টিটিউটে শিক্ষার্থীদের সংখ্যা বেশি ঐ বিভাগগুলোতে দুইধাপে ক্লাস নেওয়া হবে ৷”

এছাড়াও আগামীকাল হতে সকল রুটে আগের সময়সূচী মেনে বিশ্ববিদ্যালয়ের বাসগুলোর সাথে বিআরটিসির কিছু বাসও চলাচল করবে বলে জানান পরিবহন ম্যানেজার মো: আতাউর রহমান ৷ এর আগে এক ডোজ টিকা নেওয়ার সনদ ও বৈধ কাগজপত্র দিয়ে ৫ অকক্টোবর হতে চতুর্থ বর্ষ ও মাস্টার্সের এবং ১০ই অক্টোবর হতে প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থীদের হলে উঠার অনুমতি দেয় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন ৷

আর ২৬ সেপ্টেম্বর হতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগার, বিজ্ঞান গ্রন্থাগার ও বিভাগীয়/ইনস্টিটিউটের সেমিনার লাইব্রেরি ও আংশিক পরিবহন সেবা চালু করা হয় ৷

এদিকে ওই কার্যক্রম শুরুর পরও বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভাগ-ইনস্টিটিউটগুলো চাইলে অনলাইনে ক্লাস নিতে পারবে। তবে সে ক্ষেত্রে অনলাইনে সর্বোচ্চ ৪০ শতাংশ ক্লাস নেওয়া যাবে। আজ বৃহস্পতিবার বিকেলে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা পরিষদের (একাডেমিক কাউন্সিল) সভায় এসব সিদ্ধান্ত হয়।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর এ কে এম গোলাম রব্বানী বলেন, একাডেমিক কাউন্সিল ১৭ অক্টোবর থেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সব বিভাগ-ইনস্টিটিউটে সশরীর শ্রেণি কার্যক্রম পরিচালনার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। বিভাগ-ইনস্টিটিউটগুলো চাইলে শনিবারও শ্রেণি কার্যক্রম চালাতে পারবে। তবে এটি বাধ্যতামূলক নয়। বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের করা একাডেমিক ক্ষতি পুনরুদ্ধার পরিকল্পনাটি সবাইকে অনুসরণ করতে হবে।

প্রক্টর বলেন, ‘পরীক্ষা অনলাইনে নাকি অফলাইনে হবে, সে সিদ্ধান্ত নেবে বিভাগ। কোনো শিক্ষার্থী করোনায় আক্রান্ত হলে পরীক্ষা দেওয়া সম্ভব না হলে তাঁর পরীক্ষা পুনরায় নেওয়ার ব্যবস্থা করা হবে।’

ঢাকা, ১৬ অক্টোবর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এআইটি

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।