Azhar Mahmud Azhar Mahmud
teletalk.com.bd
thecitybank.com
livecampus24@gmail.com ঢাকা | শনিবার, ২৪শে ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১২ই ফাল্গুন ১৪৩০
teletalk.com.bd
thecitybank.com

অতর্কিত সন্ত্রাসী হামলার শিকার জবি শিক্ষার্থী ও তাঁর পরিবার

প্রকাশিত: ৫ মে ২০২২, ০৪:২৯

অতর্কিত সন্ত্রাসী হামলার শিকার জবি শিক্ষার্থী

শরীয়তপুর লাইভ: তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় (জবি) এক শিক্ষার্থী ও তার পরিবার সন্ত্রাসী হামলার শিকার হয়েছেন। হামলার শিকার আবু রায়হান বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষের লোকপ্রশাসন বিভাগের শিক্ষার্থী। ঘটনাটি ঘটে গত সোমবার (২মে) শরীয়তপুর জেলার ভেদরগঞ্জ উপজেলার সখিপুর থানার বাহাউদ্দিন মুন্সি কান্দি নিজ বাড়িতে।

ঘটনার সূত্রপাত কি নিয়ে তা জানতে চাইলে রায়হান জানান, "আমরা সবাই ইফতার আয়োজনে ব্যস্ত ছিলাম। এ সময় আমাদের বাড়িতে আসে সুমন (৩০) সে আমার ভাই সাজিদের (১৮) সাথে প্রথম দুষ্টুমি কর‍তে থাকে একপর্যায়ে সে আমার ভাইকে থাপ্পড় মারে। চিল্লাপাল্লা শুনে আমরা সেখানে গেলে আমরা সবাই আমার ভাইকে বুঝিয়ে ঘরে নিয়ে আসি। স্বভাবতই ঘটনা সেখানে স্বাভাবিক একটি বিষয় হিসেবে শেষ হয়ে যেতে পারতো। আমরা সুমনকে তাদের বাড়ি পাঠিয়ে দেই তার ঠিক ১০ মিনিট পর সুমন ও তার ভাই বিল্লাল (২৬) কে নিয়ে এসে আমাদের উপর ইফতারের পূর্বমূহুর্তে হামলা চালায়।

তারা সাথে করে বাঁশ, লাঠি নিয়ে আসে তাদের থামাতে গেলে আমার বাবা, মা, চাচা এবং আমাকে মারাত্মকভাবে আঘাত করে চলে যায়। আমাদের বাড়িঘর ভাঙ্গচুর করে। এমনকি এক পর্যায়ে প্রাণ নাশের হুমকিও আকারে ইঙ্গিতে দিতে থাকে। বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ে বইলা কি ছেলের পাকনা গজাইছে? এরূপ বিরূপ মন্তব্যতে বিব্রত করে আমাদের পরিবারকে ৷"

তিনি আরো বলেন, "পরবর্তীতে আমরা প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে এলাকার মাতবরকে দিয়ে বিষয়টি সুরাহা করতে বাজারে যাই বাজার থেকে ফিরার পথে আমাদের বাড়ির সামনে আবার হামলার শিকার হই। ব্রিজের কাছে তারা সেখানে হকস্টিক, বাঁশ লাঠি, রামদা নিয়ে আগেই প্রস্তুত ছিল। তারা হকস্টিক দিয়ে পিটিয়ে আমার ভাইয়ের পায়ের বাটি ভেঙ্গে ফেলেছে, আমার ছোট ভাইয়ের পায়ের বাটি ২ ভাগ হয়ে গেছে। বৃহস্পতিবার হয়তো ঢাকা নিয়ে অপারেশন করা লাগবে।

পাশাপাশি আমার বাবাকে মারাত্মক ভাবে কুপিয়ে জখম করা হয়৷ আমার মাথায়ো প্রচন্ড আঘাত লাগে। ডাক্তার বিষয়টিকে যদিও আশঙ্কামুক্ত বলে জানিয়েছে। কিন্তু, পরিবারের অন্যদের অবস্থা খুবই দূর্ভাগ্যজনক। বিষয়টি নিয়ে আমরা মামলা করবো। বাবা মা চাচা সবাই এখন ভেদরগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি আছি।"

এবিষয়ে সখিপুর থানার ওসি আসাদুজ্জামান হাওলাদার বলেন, "আমাকে কেউ একজন ফোন দিয়েছিলো। বলেছি থানায় রিপোর্ট করার জন্য। কিন্তু এখন পর্যন্ত কোনো রিপোর্ট আসেনি।" বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর মো. মোস্তফা কামাল বলেন, "গতকাল আমাকে বিষয়টি জানানো হয়েছে। আমি ঐখানের এসপি'র নাম্বার দিয়েছি ওনার সাথে কথা বলার জন্য। এরপরও যদি কাজ না হয় তাহলে আমাকে জানালে আমি অন্য ভাবে বিষয়টি দেখবো।"

ঢাকা, ০৪ মে (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//বিএসসি


আপনার মূল্যবান মতামত দিন:

সম্পর্কিত খবর


আজকের সর্বশেষ